Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

আই লিগ করোনা ঠেকাতে পারলেও অনেক বেশি টাকা খরচ করেও পারল না আইপিএল

আই লিগ চলাকালীন জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থেকে কেউ আক্রান্ত হননি কোভিডে।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৩ মে ২০২১ ২৩:০৯
বিমর্ষ কেকেআর।

বিমর্ষ কেকেআর।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে গোটা ভারতে। জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থাকলেও আইপিএল-এ কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলা বরুণ চক্রবর্তী ও সন্দীপ ওয়ারিয়র কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন। তবে গত বছর লকডাউনের পর ভারতের ফুটবল ফেডারেশন সফল ভাবেই আই লিগের যোগ্যতা নির্ণায়ক পর্ব ও আই লিগ করে। আই লিগ চলাকালীন জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থেকে কেউ আক্রান্ত হননি কোভিডে। তবে আইপিএল-এ কঠোর জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে ক্রিকেটাররা থাকলেও কোভিডকে ঠেকানো গেল না।

আই লিগের প্রধান কার্য নির্বাহক সুনন্দ ধর বলেন, ‘‘আমি আইপিএল-এর ব্যাপারে জানি না। তবে আমরা যা ব্যবস্থা নিয়েছিলাম তাতে কেউ আক্রান্ত হননি। আমাদের হোটেলে আলাদা ব্যবস্থা ছিল। সেখানে নিভৃতবাসের ব্যবস্থাও ছিল। একজন চিকিৎসক ও একজন সহযোগী সবসময় ছিলেন। প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থাও ছিল। ফলে কারোর চোট লাগলেও হোটেলেই তাঁদের শুশ্রূষা করার ব্যবস্থা ছিল। আই লিগে নিভৃতবাসে যাওয়ার আগে পাঁচ ফুটবলারের কোভিড আক্রান্ত হন। এরপর তাঁরা সুস্থ হয়ে সুরক্ষা বলয়ে ঢোকেন।’’

আইপিএল-এ সংক্রমিত হওয়ার কারণ নিয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘‘দ্বিতীয় ঢেউ অনেক বেশি ভয়ঙ্কর। প্রথম ঢেউয়ের সময় আমরা আই লিগ করেছিলাম। তবে এই দ্বিতীয় ঢেউয়ে অনেকেই আক্রান্ত হচ্ছেন। তাছাড়া বারবার বিভিন্ন শহরে খেলা হওয়ায় সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যায় না। সেই কারণে আমরা কলকাতাতেই আই লিগ করেছি।’’

Advertisement

সুনন্দ ধর আরও বলেন, ‘‘আমরা যখন আই লিগের যোগ্যতা নির্ণায়ক প্রতিযোগিতা করি তখন সিএবি সভাপতি অভিষেক ডালমিয়া ও সচিব স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায় এসেছিলেন গোটা ব্যবস্থা দেখতে। এরপর তাঁরা সিএবি টি২০ লিগও করেন সফল ভাবেই। তবে এবার আইপিএল-এ কেন এমন হল তা পর্যালোচনা করতে হবে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement