Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Sunil Narine: অ্যাকশন বদলের ফল পাচ্ছি, বলে দিলেন নারাইন

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৬:১৯
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

একাধিক বার নিজের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সমস্যায় পড়েছেন সুনীল নারাইন। শেষ বার সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতেই অ্যাকশনে সমস্যা হওয়ায় বেশ কয়েকটি ম্যাচে দলের বাইরে থাকতে হয়েছিল। এ বারের আইপিএল খেলতে আসার আগে অ্যাকশন পরিবর্তন করেছেন নাইটদের নায়ক। নারাইন জানিয়েছেন, সেটাই তাঁর সাফল্যের চাবিকাঠি।

ম্যাচ সেরার পুরস্কার নিতে এসে বিস্ময় স্পিনার বললেন, ‘‘ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ ও দ্য হান্ড্রেড ক্রিকেট খেলেছি এত দিন। ক্রিকেটের মধ্যেই ছিলাম। প্রত্যেক ম্যাচেই উন্নতি করছি বলে মনে হচ্ছে।’’ যোগ করেন, ‘‘অ্যাকশন পরিবর্তন করেছি কয়েক দিন আগে। এই অ্যাকশন রপ্ত করতে বহু সময় লেগেছে। যার ফল পাচ্ছি এখন।’’

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স অধিনায়ক রোহিত শর্মার মূল্যবান উইকেট পেয়েছেন নারাইন। যা নিয়ে বিস্ময় স্পিনারের অনুভূতি, ‘‘যে কোনও ফর্ম্যাটেই রোহিতের উইকেট মূল্যবান। ওকে আউট করতে পেরে আমি খুশি।’’

Advertisement

সতীর্থ সি ভি বরুণের বোলিংয়েও মুগ্ধ নারাইন। বললেন, ‘‘খুব দ্রুত শিখতে পারে। কোনও কিছু বোঝালে তা ধরে ফেলতে সময় লাগে না। আমি নিশ্চিত, ও অনেক দূর যাবে।’’

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে নামার আগের দিন ওপেনারদের বিশেষ বার্তা দিয়েছিলেন অধিনায়ক অইন মর্গ্যান। বলে দিয়েছিলেন, ব্রেন্ডন ম্যাকালামকে যেন অনুসরণ করেন বেঙ্কটেশ আয়ার ও শুভমন গিল। কোচ ম্যাকালাম চাইতেন, তাঁর দলের ওপেনারেরা যেন ভয়ডরহীন ক্রিকেট উপহার দিতে পারেন। কোচ ও অধিনায়কের কথা রেখেছেন বেঙ্কটেশ। ১৫৬ রান তাড়া করতে নেমে ৩০ বলে ৫৩ রান করে গেলেন তরুণ ওপেনার। তাঁর ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ মর্গ্যান। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে বলেছেন, ‘‘শেষ দু’ম্যাচে আমরা যে রকম আগ্রাসী ক্রিকেট খেলেছি, ঠিক এ রকম ক্রিকেট দেখতে চেয়েছিলেন কোচ। আমাদের দলে এ রকম ক্রিকেট খেলার প্রতিভাই আছে।’’ যোগ করেন, ‘‘শক্তিশালী মুম্বইকে ১৫৫ রানে আটকে দেওয়া সহজ নয়। সেই রান মাত্র ১৫.১ ওভারের মধ্যে তাড়া করা আরও কঠিন। টানা দু’টো ম্যাচ জিতে কিছুটা স্বস্তিবোধ করছি।’’

তরুণ ওপেনার বেঙ্কটেশ আয়ারের প্রশংসাও করে গেলেন মর্গ্যান। বলে দিলেন, ‘‘প্রথম একাদশে জায়গাই পাচ্ছিল না বেঙ্কটেশ। কিন্তু প্রস্তুতি ম্যাচগুলোয় এ ভাবেই ব্যাট করত ও। সেখান থেকেই ওর উপরে আস্থা তৈরি হয় দলের। আজ যে ভঙ্গিতে ও ইনিংস সাজিয়েছে, তা সত্যি অসাধারণ।’’

মর্গ্যানের ভরসা বাড়াচ্ছে বিস্ময় স্পিন-জুটি। বরুণ ও নারাইনের হাতে বল তুলে দিয়ে আট ওভার বার করে নিতে পারছেন নাইট অধিনায়ক। তাঁর কথায়, ‘‘নারাইন শুরু থেকেই নাইটদের হয়ে খেলছে। ও ভাল বল করলে কেকেআর হারে না। বরুণও দারুণ প্রতিভা। ওদের জুটি সত্যি বোলিং বিভাগকে আলাদা মাত্রায় নিয়ে গিয়েছে। এই জায়গা থেকে আমাদের ফিরে তাকানোর কিছু নেই। শুধুমাত্র এগিয়ে যেতে হবে।’’

বিপক্ষ অধিনায়ক রোহিত শর্মা অত্যন্ত হতাশ। বললেন, ‘‘ওপেনিং জুটিতে বড় রান যোগ করার পরেও এত কম স্কোর হবে ভাবিনি। মাঝে একটা বড় জুটি গড়তে পারলে ম্যাচের শেষটা অন্য রকম হতে পারত। আমি আর কুইন্টন নামার পরে শুরুতেই দ্রুত রান আসতে শুরু করেছিল। কিন্তু সেই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে পারিনি আমরা।’’

আরও পড়ুন

Advertisement