Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

স্বস্তি মিললেও বিরাটের বিশ্বাসই হচ্ছিল না জিতেছেন

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৫ মে ২০১৭ ০৫:১৫
স্বস্তি: রান পেলেন, কোটলায় দলকেও জেতালেন কোহালি।ছবি: পিটিআই

স্বস্তি: রান পেলেন, কোটলায় দলকেও জেতালেন কোহালি।ছবি: পিটিআই

চওড়া সেই হাসিটা অনেক দিন পরে দেখা গেল বিরাট কোহালির মুখে। যে হাসিতে অনেকটাই মিশে আছে স্বস্তি। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগে রানে ফেরার স্বস্তি, আইপিএলের শেষ ম্যাচে জয় পাওয়ার স্বস্তি।

রবিবার দিল্লি ডেয়ারডেভিলসকে ১০ রানে হারিয়ে উঠে কোহালি বলছিলেন, ‘‘বিশ্বাসই হচ্ছে না ম্যাচটা জিতেছি। আমি তো ম্যাথু হেডেনকে (যিনি হেরে যাওয়া টিমের অধিনায়কদের সাক্ষাৎকার নেন) ইন্টারভিউ দিতে যাচ্ছিলাম!’’

কোহালির সঙ্গে নিশ্চয়ই ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীরাও স্বস্তি পাবেন অধিনায়কের রবিবারের ইনিংসটা দেখার পরে। ৪৫ বলে ৫৮ রান করে গেলেন কোহালি। ইনিংসে রয়েছে তিনটে বাউন্ডারি, তিনটে ওভারবাউন্ডারি। যার মধ্যে কোরি অ্যান্ডারসনের বলে কোহালির মারা একটা ছয় নিয়ে ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ফ্রন্টফুটে এসে চিপ করেছিলেন কোহালি। সবাইকে অবাক করে দিয়ে বল লংঅফের মাথার ওপর দিয়ে স্ট্যান্ডে চলে যায়। যা নিয়ে পরে সঞ্জয় মঞ্জরেকর প্রশ্ন করেন, ‘‘তুমি কি ভেবেছিলে বলটা ছয় হবে?’’ কোহালির জবাব, ‘‘সত্যি বলতে কী, আমি ভাবিনি। আমি চেয়েছিলাম দু’জন ফিল্ডারের মাঝখান দিয়ে দু’টো রান নিতে।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: বীরুর তোপ বিদেশিদের

বিরাটের ইনিংসের সৌজন্যে আরসিবি তোলে ১৬১-৬। ক্রিস গেল করেন ৩৮ বলে ৪৮ রান। জবাবে দিল্লির ইনিংস শেষ হয়ে যায় ১৫১ রানে। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগে রান পাওয়ায় তৃপ্ত কোহালি বলেন, ‘‘যে ভাবে ব্যাটে-বলে হচ্ছে, তাতে আমি খুশি। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগে মনে হয় ছন্দেই আছি।’’

আরও পড়ুন

Advertisement