Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

পুজোর মেজাজে ঢাকে কাঠি ডার্বির

তৈরি সমর্থকেরাও। স্থানীয় ইস্টবেঙ্গল এবং মোহনবাগান ফ্যানেরাও মুখিয়ে আছেন প্রিয় দলের সমর্থনে মাঠে নামার জন্য। মোহনবাগান সমর্থকেরা বিভিন্ন স্কু

সৌমিত্র কুণ্ডু
শিলিগুড়ি ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ০৩:৫৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে। নিজস্ব চিত্র

কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে। নিজস্ব চিত্র

Popup Close

ঢাকে কাঠি পড়েছে পুজোর। সেই সঙ্গে শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে ডার্বিরও।

হাতে আর বেশি সময়ও নেই। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর কলকাতা ফুটবল লিগের ডার্বি ম্যাচ হচ্ছে এখানে। উৎসাহী দীপু হালদার, রজত রায়দের মতো ফুটবলপ্রেমীরা। স্টেডিয়ামে মহকুমা ক্রীড়া পরিষেদর অফিসে টিকিটের জন্য খোঁজখবরও শুরু করে দিয়েছেন তাঁরা। ম্যাচের স্থানীয় সংগঠক শিলিগুড়ি মহকুমা ক্রীড়া পরিষদের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আইএফএ থেকে তাদের জানানো হয়েছে, আজ, সোমবার নাগাদ টিকিট পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে শিলিগুড়িতে। ক্রীড়া পরিষদের সচিব অরূপরতন ঘোষ বলেন, ‘‘পুজোর আবহে ডার্বি নিয়ে পারদ চড়ছে। টিকিট চেয়ে অনেকেই যোগাযোগ করতে শুরু করেছেন। আমরা তাদের সোমবার, মঙ্গলবার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলেছি। তার পর আর হাতে সময় থাকবে না। টিকিট বিক্রি শুরু করে দেওয়া হবে।’’ কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে ইতিধ্যেই ৩টি ডার্বি হয়েছে। সব ক’টিই আই লিগের। তার মধ্যে এ বছরই ইতিমধ্যেই দুটি ডার্বি হয়েছে গত ফেব্রুয়ারি এবং এপ্রিলে। সেই হিসাবে এ বছর তৃতীয় ডার্বি হচ্ছে কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে। এ বারই প্রথম কলকাতা লিগের ডার্বি হতে চলেছে শিলিগুড়িতে। মাঠের প্রস্তুতিও সেই মতো জোর কদমে শুরু হয়ে গিয়েছে। ঘাস ছাঁটা, জল দেওয়ার মতো মাঠের দেখভাল চলছে নিয়মিত।

তৈরি সমর্থকেরাও। স্থানীয় ইস্টবেঙ্গল এবং মোহনবাগান ফ্যানেরাও মুখিয়ে আছেন প্রিয় দলের সমর্থনে মাঠে নামার জন্য। মোহনবাগান সমর্থকেরা বিভিন্ন স্কুলের সামনে দলে পতাকা লাগাতে শুরু করেছেন। টিকিট খুঁজতে এসে ইস্টবেঙ্গলের সমর্থক দীপু হালদার, রজতবাবুরা বলেন, ‘‘টিকিট কবে থেকে আসবে তারই অপেক্ষায় আছি। আগের বার টিকিট নেওয়া জন্য দীর্ঘ লাইন দিতে হয়েছিল। এ বার তাই আগে থেকে খোঁজ নিচ্ছি।’’

Advertisement

পুলিশ-প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করে রবিবারই নিরাপত্তা দেখতে আবেদন করবে ক্রীড়া পরিষদ। সোমবার থেকে ম্যাচ প্রচারে নেমে পড়তে চান ক্রীড়া পরিষদের কর্মকর্তারা। ক্রীড়া পরিষদের তরফে জানানো হয়েছে, টিকিটের দামের ব্যাপারে যা কথা হয়েছে তাতে ১০০, ১৫০, ৩০০ এবং ৫০০ টাকার টিকিট করার কথা। টিকিট এলেই চূড়ান্ত বুঝতে পারবেন তাঁরা। সেই মতো জানানো হবে। ফ্লাডলাইটেই ম্যাচ হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement