Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

২২শে কাঞ্চনজঙ্ঘায় ইস্টবেঙ্গল

সাফ মহিলা ফুটবল প্রতিযোগিতার আগে ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে বাঘা যতীন অ্যাথলেটিক ক্লাবের প্রদর্শনী ফুটবল ম্যাচকে ঘিরে মেতে উঠতে চলেছে কাঞ্জনজঙ্ঘা স্

নিজস্ব সংবাদদাতা
শিলিগুড়ি ১২ ডিসেম্বর ২০১৬ ০২:০১
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

সাফ মহিলা ফুটবল প্রতিযোগিতার আগে ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে বাঘা যতীন অ্যাথলেটিক ক্লাবের প্রদর্শনী ফুটবল ম্যাচকে ঘিরে মেতে উঠতে চলেছে কাঞ্জনজঙ্ঘা স্টেডিয়াম। রবিবার সাংবদিক বৈঠকে ম্যাচের অন্যতম উদ্যোক্তা তথা ভারতীয় ফুটবল দলের প্রাক্তন অধিনায়ক ভাইচুং ভুটিয়া জানিয়ে দেন, আই লিগের প্রস্তুতি হিসাবেই ২২ ডিসেম্বর শিলিগুড়িতে এই প্রদর্শনী ম্যাচ খেলতে আসছে ইস্টবেঙ্গল। লাল হলুদের পুরো দলটিই থাকছে।

এই ম্যাচের উদ্যোক্তা বাঘা যতীন অ্যাথেলেটিক ক্লাব ও পূর্বাচল ক্লাব। সহায়তা করছে নর্থবেঙ্গল বোর্ড ফর ডেভেলপমেন্ট অব স্পোর্টস অ্যান্ড গেমস। এই বোর্ডের চেয়ারম্যান ভাইচুং ভুটিয়া। ম্যাচের আয়োজনের জন্য যে স্টিয়ারিং কমিটি তৈরি হয়েছে, তারও চেয়ারম্যান ভাইচুং।

বাঘা যতীন ক্লাবের ব্যানারে যে দলটি ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে খেলবে, তাতে থাকবেন উত্তরবঙ্গের অন্য ক্লাবের ভাল খেলোয়াড়েরাও। ১৮-১৯ ডিসেম্বর ফটবলার বাছতে একটি শিবিরও হবে। ভাইচুং বলেন, ‘‘এ ধরনের ম্যাচে ভাল পারফরম্যান্স দেখালে বড় দলে সুযোগও আসতে পারে। এটা স্থানীয় ফুটবল প্রতিভাদের কাছে নিজেদের তুলে ধরার একটা প্ল্যাটফর্ম হিসাবে কাজ করবে। আগামী বছর থেকে একাধিক ক্লাবকে খেলার সুযোগ করে দেওয়ার চেষ্টা করব। বাঘা যতীনের হয়ে নামবেন রেনেডি সিংহ। ব্যারেটোর আসার সম্ভবনাও রয়েছে।’’ ভাইচুং জানান, ভবিষ্যতে এ ধরনের ম্যাচ আরও করানোর চেষ্টা করবেন। বড় দলের সঙ্গে খেললে স্থানীয় ফুটবলারদের খেলার মানোন্নয়ন হবে।

Advertisement

সম্প্রতি শেষ হয়েছে মহকুমা পরিষদের উদ্যোগে নৈশ ফুটবল প্রতিযোগিতা। তাতে অংশগ্রহণকারী দলগুলিতে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বাইরে থেকে ফুটবলার এনে খেলানো হয়েছে। ভাইচুঙের মতে, ‘‘লিগ বা শিলিগুড়ি নৈশ ফুটবলের মতো আসরে নিয়ম থাকা উচিত ন্যূনতম কিছু ফুটবলার স্থানীয় রাখতেই হবে। এ ছাড়া বাইরে থেকে ফুটবলার আসুক।’’ তা ছাড়া নৈশ ফুটবলের মতো আসরে কাস্টমস, রেলের মতো দলগুলি ডাকলে ভাল হয় বলে ভাইচুং জানান। উদ্যোক্তারা জানান, খেলার টিকিটের দাম রাখা হয়েছে, ১০০, ৫০ এবং ২০ টাকা। ভিআইপি টিকিটের মূল্য এখনও ঠিক হয়নি।

ম্যাচের দু’দিন আগে কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামের কাউন্টার থেকে টিকিট মিলবে। ১৫ ডিসেম্বর থেকে ক্লাবে, প্রচার গাড়িতে, শহরের আরও কিছু জায়গাতেও টিকিট মিলবে। পড়ুয়া এবং তাঁদের সঙ্গে থাকা একজন অভিভাবকের জন্য টিকিট ২০ টাকা করে। তবে ভাইচুং আয়োজক ক্লাব বাঘা যতীনকে অনুরোধ করেন পড়ুয়াদের, বিভিন্ন কোচিং সেন্টারের খেলোয়াড়দের নিখরচায় খেলা দেখার সুযোগ করে দিতে। বাঘা যতীন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শিবনাথ গঙ্গোপাধ্যায় জানান, বিষয়টি দেখা হচ্ছে। তবে নোট সমস্যার মধ্যে এ ধরনের খেলার আয়োজনে কিছুটা সমস্যা হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন ভাইচুং এবং অন্য উদ্যোক্তারা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement