Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

Heart Attack: অকালে প্রয়াত বাংলার প্রাক্তন ক্রিকেটার, রাতের খাওয়ার পর হাঁটতে বেরিয়ে ঘরে ফেরা হল না

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১১:২৬
মুর্তাজা লোধগার অকালে প্রয়াত।

মুর্তাজা লোধগার অকালে প্রয়াত।
—ফাইল চিত্র

বাংলার প্রাক্তন স্পিনার মুর্তাজা লোধগার অকালে প্রয়াত। ৪৫ বছরের লোধগার রাতে খাওয়ার পর হাঁটতে বেরিয়েছিলেন। সেই সময় হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। সেপ্টেম্বরের শুরুতেই মিজোরামের অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচিংয়ের দায়িত্ব নিয়েছিলেন লোধগার। মাত্র ৪৫ বছর বয়সে এই আকস্মিক মৃত্যু অবাক করে দিয়েছে সকলকে। নিয়মিত খেলাধুলার মধ্যে থেকেও হঠাৎ হৃদরোগে প্রাণ হারাতে হল লোধগারকে।

বিনু মাঁকড় ট্রফি খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল মিজোরামের অনূর্ধ্ব-১৯ দল। বিশাখাপত্তনমে দলের সঙ্গে ছিলেন লোধগার। বাংলার ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা সিএবি-র প্রধান অভিষেক ডালমিয়া বলেন, “রাতের খাওয়ার পরেই এই ঘটনা ঘটে। দলের ফিজিয়োর সঙ্গে হাঁটতে বেরিয়েছিলেন লোধগার। হঠাৎ বুকে ব্যথা অনুভব করেন তিনি। রাস্তায় পড়ে যান। ফিজিয়ো এবং দলের অন্য সদস্যরা সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যান তাঁকে। পথেই মৃত্যু হয় তাঁর।”

লোধগারের শেষকৃত্যে পরিবারকে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করছে সিএবি। ক্লাব ক্রিকেটে প্রচুর সাফল্য রয়েছে বাংলার প্রাক্তন স্পিনারের। রঞ্জিতে বাংলার হয়ে ন’টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। ৩৪টি উইকেট নেন লোধগার। বাংলার হয়ে ২০০৭ সালে শেষ ম্যাচ খেলেন এই বাঁহাতি স্পিনার। ময়দানের বিভিন্ন ক্লাবে খেলেছিলেন তিনি। ইস্টবেঙ্গল, কালীঘাট, স্পোর্টিং যার মধ্যে অন্যতম।

Advertisement

দীপ দাশগুপ্ত টুইট করে লেখেন, ‘খুব তাড়াতাড়ি চলে গেলে বন্ধু।’ শোকার্ত বাংলার ক্রিকেট। তাঁর সদাহাস্য মুখটাই মনে রাখতে চান প্রিয়জনেরা। স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, “খুবই আকস্মিক এবং দুঃখের ঘটনা। আমি এক ভাইকে হারালাম। বিশ্বাস করতে পারছি না লোধগার নেই। মাত্র ৪৫ বছর বয়সেই চলে যেতে হল। ওকে কী ভাবে বাংলার ক্রিকেটে ফিরিয়ে আনা যায় সেই নিয়ে চিন্তা ভাবনা করছিলাম। জীবন খুবই অনিশ্চিত। এত কম বয়সে ওর মতো একজন ক্রিকেটার এবং মানুষকে হারানো খুবই দুঃখের। লোধগারের পরিবারকে আমার সমবেদনা জানাই।”


বাংলার অনূর্ধ্ব-২৩ দলের খেলা রয়েছে। ম্যাচের আগে লোধগারের জন্য নীরবতা পালন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন কোচ লক্ষ্মীরতন শুক্ল। তিনি বলেন, “বড় ক্ষতি হয়ে গেল। ওর সঙ্গে অনেকদিন খেলেছি। খুব ভদ্র একজন ক্রিকেটার। ওর অভাব অনুভব করব।” লোধগারের জন্য সিএবি-র পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে।

আরও পড়ুন

Advertisement