Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

সাকিব, মুস্তাফিজুরকে নিয়ে বেশ টেনশনে নিউজিল্যান্ড কোচ

চোখে সার্জারির পর খেলার জন্য ফিট হয়ে ওঠেননি রস টেলর। তাঁর জায়গায় ছ’বছর পর ওয়ানডে দলে ফিরিয়ে আনা হয়েছে নেইল ব্রুমকে। অফ ফর্মের কারণে ওয়াটলিং-

নিজস্ব সংবাদদাতা
ঢাকা ২০ ডিসেম্বর ২০১৬ ১৩:৪৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

চোখে সার্জারির পর খেলার জন্য ফিট হয়ে ওঠেননি রস টেলর। তাঁর জায়গায় ছ’বছর পর ওয়ানডে দলে ফিরিয়ে আনা হয়েছে নেইল ব্রুমকে। অফ ফর্মের কারণে ওয়াটলিং-ও নেই ওয়ানডে দলে, বাধ্য হয়ে নিউজিল্যান্ড নির্বাচক কমিটি লুক রনচিকে নিয়েছে ১৩ সদস্যের দলে। ২৬ ডিসেম্বর থেকে বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে পূর্ণ শক্তির দল পাচ্ছে না নিউজিল্যান্ড। তা নিয়ে দুর্ভাবনার কমতি নেই নিউজিল্যান্ড কোচ মাইক হেসনের। টি-২০ বাদ দিলে অন্য দুই ফর্ম্যাটের ক্রিকেটে এ বছরটা ভাল কাটেনি নিউজিল্যান্ডের। টেস্ট, ওয়ানডে আন্তর্জাতিকে জয়ের চেয়ে হারের পাল্লা ভারী। ১৫টি ওয়ানডে ম্যাচে ৭টি জয়। হার ৮টি। আর ১১ টেস্টে ৪ জয়ের পাশে হার ৬টি। এ বছর নিউজিল্যান্ড দলের পারফরম্যান্সের উপরে আছে বাংলাদেশের গ্রাফ। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ১-১ ড্র। ৬টি ওয়ানডে ম্যাচে ৩ জয়ের পাশে ৩ হার। তার উপর গত ২ বছর বদলে যাওয়া বাংলাদেশ দলের পারফরমেন্সটাও মাথায় রাখতে হচ্ছে নিউজিল্যান্ড কোচকে।

আরও পড়ুন

২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে দুই সুখবরের মালিক মুস্তাফিজুর

Advertisement

২০১২ সালের জুলাইয়ে জন রাইটের স্থলাভিষিক্ত হয়ে নিউজিল্যান্ডের হেড কোচের দায়িত্ব নেন মাইক। তার ১৫ মাসের মাথায় বাংলাদেশ সফরে এসেছিলেন। ধাক্কা খেয়েছিলেন জোর। ২০১৩ সালের সেই ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশের হাতে ৩-০তে হোয়াইট ওয়াশের লজ্জা। পূর্ণাঙ্গ ওই সফরে ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের ট্রফিও নিয়ে যেতে পারেনি তার দল। দু’টি টেস্টই ড্র হয়। চট্টগ্রাম টেস্টে বদলে যাওয়া বাংলাদেশকে দেখতে হয়েছে মাইক হেসনকে। বিশ্বকাপে নিজেদের মাঠ হ্যামিল্টনে বাংলাদেশের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই, মাহামুদুল্লাহ-র সেঞ্চুরিতে ২৮৮/৭ স্কোর দেখেও বিস্মিত হতে হয়েছে তাঁকে। সর্বশেষ টি-২০ বিশ্বকাপে কলকাতার ইডেন গার্ডেনসে মুস্তাফিজুরের ভয়ংকর বোলিংয়ে (৫/২২) নিউজিল্যান্ড ব্যাটসম্যানদের পিলে চমকে যাওয়ার দৃশ্যও দেখেছেন এই কোচ। সে কারণেই ২৬ ডিসেম্বর থেকে একটি প্র্যাকটিস ম্যাচ, ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ, ৩ ম্যাচের টি-২০ সিরিজ এবং ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশকে কঠিন প্রতিপক্ষই মনে করছেন এই কিউই কোচ।

ক্রিকেট বিশ্বে সেরা অল রাউন্ডার হিসেবে সাকিব আল হাসানের নিজেকে চেনানো শুরু নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে (৭১ রান এবং ৭/৩৬)। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৬ টেস্টে ৪৭৯ রান এবং ২০ উইকেট আছে এই বাঁ হাতি অল রাউন্ডারের। যার মধ্যে ২০১০ সালে হ্যামিল্টন টেস্টে ছিল ৮৭ এবং ১০০ রান। প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ডকে পেলে যে একটু বেশিই চাঙ্গা হয়ে পড়েন ওয়ানডে র‌্যাংঙ্কিয়ে বিশ্বের নাম্বার ওয়ান এই অল রাউন্ডার। ২০১০ সালে নিউজিল্যান্ডকে ৪-০তে হোয়াইট ওয়াশে বাংলাদেশের ইতিহাসময় সিরিজে ম্যান অব দ্য সিরিজ হওয়া এই অল রাউন্ডারকে তাই একটু বেশিই সমীহ করতে হচ্ছে নিউজিল্যান্ড দলকে। সিরিজ শুরুর আগে সে বার্তাই শিষ্যদের দিয়েছেন মাইক হেসন। সোমবার নিউজিল্যান্ডের একটি অনলাইন পোর্টালকে দেওয়া সাক্ষাতকারে সেই সতর্ক সঙ্কেতই দিয়েছেন নিউজিল্যান্ড কোচ, “সাকিব এই মূহুর্তে র‌্যাংকিংয়ে বিশ্বের সেরা অল রাউন্ডার। তার বাঁ হাতি স্পিন এবং মিডল অর্ডারে ব্যাটিং ধ্বংসাত্মক।”

আরও পড়ুন

৪০ রানে রূপকথা হাতছাড়া পাকিস্তানের

ইডেন গার্ডেনসে টি-২০ বিশ্বকাপের ম্যাচে কার্টার জাদুতে মুস্তাফিজুরের বিধ্বংসী বোলিংয়ে ৫ শিকারের ৪ জনই বোল্ড। কেন উইলিয়ামসন, নিকোলাস, স্যান্টনার, ন্যাথান ম্যাককালামকে বোল্ড আউট করে ফিরিয়ে দেওয়া সেই ডেলিভারিগুলির কথা মনে পড়লে এখনও আঁতকে ওঠেন মাইক হেসন। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ট্রফি জয়ে অবদান রাখা মুস্তাফিজুর কাঁধে সফল অস্ত্রোপচারের পর সুস্থ হয়ে উঠে এসেছেন বাংলাদেশ দলের সঙ্গে। সবুজ বাউন্সি উইকেট পেলে না জানি কতটা ভয়ংকর রূপ ছড়ায় এই বাঁ হাতি কাটার মাস্টার, তাও ভাবিয়ে তুলেছে নিউজিল্যান্ড কোচকে, “এ বছর মুস্তাফিজুর আইপিএলে যে ঝড় বইয়ে দিয়েছে, তাতে মনে হচ্ছে আগামীতে বিশ্ব ক্রিকেটে সে অনেক বড় তারকা হিসেবে নিজেকে মেলে ধরবে। ইনজুরি থেকে ফিরেছে সে। খেলায় কতটা ভূমিকা রাখতে পারবে, সে ব্যাপারে আমরা নিশ্চিত নই।”

হোমে ২০১৪-র অক্টোবর থেকে ২০১৬-র অক্টোবর, এই দু’বছরে বাংলাদেশ দল জিতেছে ৫টি ওয়ানডে সিরিজ। পাকিস্তান, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো বাঘা বাঘা প্রতিপক্ষকে নাস্তানাবুদ করে জিতেছে সিরিজের ট্রফি, তা অজানা নয় এই কিউই কোচের। টেস্ট সিরিজে ইংল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ ড্র-এর সাম্প্রতিক অতীতও মাথায় আছে তার। সে কারণেই ৩ ম্যাচের ওয়ানডে, ৩ ম্যাচের টি-২০ এবং ২ ম্যাচের টেস্ট সিরিজকে সামনে রেখে বাংলাদেশ দলকে হালকাভাবে নেয়ার পক্ষপাতী নন মাইক হেসন। “হোমে তাদের সাম্প্রতিক রেকর্ড দুর্দান্ত। গত বিশ্বকাপ থেকে তারা অবিশ্বাস্যভাবে ভাল খেলছে। গত তিন চার বছরে তারা যেভাবে খেলেছে, তা অসাধারণ।” বললেন নিউজিল্যান্ড কোচ।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement