Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৯ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

পূর্বসূরির প্রতি কোহালির শ্রদ্ধার্ঘ্য

ধোনির সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙবে না কখনও

বিরাট কোহালি এবং মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। যত সময় গিয়েছে, দু’জনের মধ্যে সম্পর্ক তত মজবুত হয়েছে। এবং যার জন্য রীতিমতো গর্বিত কোহালি। একটি ওয়েবসাইটে

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৬ নভেম্বর ২০১৭ ০৫:২৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
নেতৃত্ব বা মাঠের লড়াই, বিরাট পাশে পেয়েছেন ধোনিকে। ফাইল চিত্র

নেতৃত্ব বা মাঠের লড়াই, বিরাট পাশে পেয়েছেন ধোনিকে। ফাইল চিত্র

Popup Close

তাঁদের দু’জনের সম্পর্ক নিয়ে অনেকেই অনেক কথা বলে থাকেন। ভারতের প্রাক্তন এবং বর্তমান অধিনায়কের সম্পর্কের মধ্যে দূরত্ব খুঁজে বার করারও কম চেষ্টা হয়নি। যাঁরা এই ধরনের কাজে সময় দেন, তাঁদের জন্য ভারত অধিনায়কের একটাই বার্তা— ‘‘আমাদের সম্পর্কে কেউ প্রভাব ফেলতে পারবে না। আমাদের বন্ধুত্ব চিরজীবন অটুট থাকবে।’’

বিরাট কোহালি এবং মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। যত সময় গিয়েছে, দু’জনের মধ্যে সম্পর্ক তত মজবুত হয়েছে। এবং যার জন্য রীতিমতো গর্বিত কোহালি। একটি ওয়েবসাইটের অনুষ্ঠানে কোহালি বলেছেন, ‘‘আমরা দেখেছি, আমাদের দু’জনের সম্পর্কে ভাঙন ধরেছে, এ সব বলে অনেক লেখালেখি হয়েছে। সব চেয়ে ভাল ব্যাপার হল, এ সব লেখা আমিও পড়ি না, ধোনিও পড়ে না। এর পরে লোকে যখন আমাদের দু’জনকে এক সঙ্গে দেখে, তখন ভাবে, ‘আরে ওদের মধ্যে ঝামেলা হয়েছিল না!’ এ সব নিয়ে আমরা হাসাহাসি করি। আর কেউ প্রশ্ন করলে বলি, ঝামেলা ছিল নাকি? সত্যি? আমরা তো জানি না।’’

বিরাট বা ধোনির ঘনিষ্ঠমহল অবশ্য খুব ভাল করেই জানে, কোহালি কতটা শ্রদ্ধাশীল তাঁর পূর্বসূরি সম্পর্কে। যা অনেক সময়েই প্রকাশ্যে চলে এসেছে। শ্রীলঙ্কায় ধোনির তিনশোতম ম্যাচে তাঁর হাতে স্মারক তুলে দিয়ে কোহালি বলেছিলেন, ‘‘তুমি চিরদিন আমাদের অধিনায়ক থেকে যাবে।’’ যে শ্রদ্ধা বারবার ধরা পড়েছে কোহালির কথায়।

Advertisement

ধোনির শিশুসুলভ মনের কথাও তুলে ধরেছেন কোহালি। এক বার অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন ক্রিকেটার ম্যাথু হেডেন বলেছিলেন, ধোনি এমন সব জিনিসে মজা পায়, যা শুধু বছর সাতেকের বাচ্চার পক্ষেই সম্ভব। এই নিয়ে প্রশ্ন করা হলে কোহালি বলেন, ‘‘হেডেন খুব একটা ভুল বলেনি। অনেকেই জানে না, ধোনির মধ্যে একটা শিশুসুলভ মন আছে। ও সব সময় নতুন জিনিসের খোঁজে থাকে। ছোটখাটো ব্যাপারে ভীষণ আগ্রহী হয়ে পড়ে।’’ এর পরে কোহালি একটা গল্পও শুনিয়েছেন। তখন কোহালি অনূর্ধ্ব ১৭ অ্যাকাডেমি দলের অধিনায়ক। একটা ম্যাচে নতুন একটা ছেলে দলে এসেছে। ম্যাচে কোহালি তার দিকে বলটা ছুড়ে দিয়ে জানতে চায়, ‘কোথা থেকে?’ (কোহালি বলতে চেয়েছিলেন, কোন প্রান্ত থেকে বল করবে) ছেলেটা সঙ্গে সঙ্গে জবাব দেয়, ‘ভাইয়া, নজফগর থেকে’।

গল্পটা শুনিয়ে কোহালি বলতে থাকেন, ‘‘ধোনিকে যখন গল্পটা বলছিলাম, ও হাসতে হাসতে গড়িয়ে পড়ছিল। আর তখন আমরা একটা ম্যাচ খেলছিলাম।’’

এখন তিনি অধিনায়ক হলেও ধোনির ক্রিকেটীয় মস্তিষ্ক নিয়ে শ্রদ্ধা ফুটে ওঠে কোহালির কথায়। ভারত অধিনায়ক বলছিলেন, ‘‘আমার মনে হয় না, ধোনির মতো ক্রিকেটীয় মস্তিষ্ক আমি কখনও দেখেছি বলে। পরিকল্পনা করা বলুন, খেলাটাকে বোঝা বলুন, যে কোনও পরিস্থিতিতে কী করা দরকার বলুন, এ সব ধোনির চেয়ে কেউ ভাল বুঝতে পারে না। আমি যখনই ওর কাছ থেকে কোনও পরামর্শ চাই, দশ বারের মধ্যে আট বা ন’বার ধোনির পরামর্শ কাজে লেগে যায়। যত বছর গিয়েছে, আমাদের দু’জনের বন্ধুত্ব ততই জমাট হয়েছে।’’

ভারতীয় দলের রাজদণ্ড যখন ধীরে ধীরে ধোনির হাত থেকে বিরাটের হাতে যাচ্ছিল, অনেকেই সন্দিহান ছিলেন, কতটা মসৃণ হবে এই পরিবর্তন। সে প্রসঙ্গ উঠতেই কোহালি বলছেন, ‘‘এই পরিবর্তনটা এত মসৃণ ভাবে হয়েছে, যে ক্রিকেটারদের মনেই হয়নি কোনও বদল হয়েছে দলে। সব কিছুই খুব সুষ্ঠু ভাবে হয়েছে। আমার অধিনায়কত্বের শুরুর থেকে যে আমি ওকে পাশে পেয়েছি, তাতে আমি খুশি। শুধু খুশি নই, আমি ভাগ্যবানও।’’

কোহালি এও জানাচ্ছেন, ধোনির সঙ্গে ব্যাট করার সময় তিনি চোখ বন্ধ করে তাঁর সঙ্গীর ওপর ভরসা রাখেন। ‘‘আমাদের দু’জনের মধ্যে বোঝাপড়াটা দারুণ। দু’জনে ব্যাট করার সময় ধোনি যদি বলে দু’রান, তা হলে আমি চোখ বুজে দৌড়ই। কারণ ধোনির ওপর আমার পুরো ভরসা আছে। আমি জানি, ঠিক ক্রিজে পৌঁছে যাব।’’

ধোনি ছাড়াও এই অনুষ্ঠানে আরও দুই সতীর্থের কথা বলেছেন বিরাট। এক জন হার্দিক পাণ্ড্য। অন্য জন শিখর ধবন। এই দু’জনের মতো মজার ছেলে খুব কমই দেখেছেন বিরাট। হার্দিক নিয়ে তাঁর অধিনায়ক বলছিলেন, ‘‘হার্দিকের কাছে একটা আই-পড আছে। যেখানে সব ইংরেজি গান রয়েছে। কোনও গানের পাঁচটা শব্দও হার্দিক জানে না। কিন্তু শুধু সুরের তালে নাচতে চায়।’’

নতুন এই তারকাকে নিয়ে আরও একটা গল্প শুনিয়েছেন কোহালি। ‘‘নিজের জগতে সব সময় ডুবে থাকে হার্দিক। কখন কী বলছে ঠিক থাকে না। এই তো সে দিন অশ্বিনকে নিয়ে বলল, ‘ইয়ার, এই রবি কাশ্যপ (হবে রবিচন্দ্রন) অশ্বিন কী বল করে।’ হার্দিক কখন কী বলে হয়তো ঠিক নেই, তবে ওর মতো পরিষ্কার মন খুব কম লোকেরই আছে,’’ মত কোহালির।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Tags:
MS Dhoni Virat Kohliবিরাট কোহালিমহেন্দ্র সিংহ ধোনি Cricket
Something isn't right! Please refresh.

Advertisement