Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

যুবরাজরা ঝলকই দেখাচ্ছে, দায়িত্ব নয়

রবি শাস্ত্রী
২৩ এপ্রিল ২০১৫ ০৪:৪১

অবশেষে আসল চেহারায় ফিরল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। কোহলি, গেইল, ডে’ভিলিয়ার্সের রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে ১৮ রানে হারানোর মধ্যে তেমন দাপটের লক্ষণ না থাকলেও জয়টা খুব একটা খারাপ নয়। কোহলিদের হারানোটা আর যাই হোক, সোজা নয়।

ম্যাচটা আসলে জেতাল কয়েক জন অন্য ধরনের ক্রিকেটার। উন্মুক্ত চন্দ ও রোহিত শর্মা একই স্তরের ক্রিকেটার না হলেও ওরা যে আকাঙ্খার দিক থেকে একই জায়গায়, সেটাই বোঝা গেল সে দিন। দেরিতে হলেও জ্বলে ওঠা যেন ক্রমশ রোহিত শর্মার অভ্যাসে পরিণত হচ্ছে। অন্য দিকে লেন্ডল সিমন্সকে সেই ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটারের মতো মনে হল, যে একাই একটা ম্যাচ জিতিয়ে দিতে পারে। পোলার্ড এই ম্যাচে প্রায় বিশ্রামই নিল বলা যায়। আর নিজের ব্যাটিং সম্পর্কে উচ্চ ধারণাটা বোধহয় এ দিন ভেঙে গেল হরভজনের।

বেঙ্গালুরুর বোলিং বিভাগ তেমন ভাল মনে হচ্ছে না। বরুণ অ্যারন গতি বাড়াতে গিয়ে বোলিংয়ের অ-আ-ক-খ ভুলে যাচ্ছে। দায়িত্ব নেওয়ার মতো বোলার ওদের দলে কোথায়? যা অবস্থা, তাতে ওরা হয়তো চাইবে মিচেল স্টার্ক এসে দু’দিক থেকেই বোলিং করুক! মুম্বই জ্বলে উঠলেও ধারাবাহিকতা বজায় রাখাটা ওদের এখন সবচেয়ে বড় পরীক্ষা।

Advertisement

সে দিক থেকে দিল্লির বোলিং কিন্তু খারাপ নয়। ইমরান তাহির আর জে পি দুমিনি তো এখন আইপিএলের সেরা পাঁচ বোলারের মধ্যে। কেকেআরের যেমন সুনীল নারিন, তেমন দিল্লির তাহির। যে কোনও পরিস্থিতিতে বল করতে পাঠানো যায়। তবে ওদের ওই ডমিনিক মুথুস্বামী ছেলেটা কিন্তু বেশ ভাবাচ্ছে। সে দিন কোটলায় উথাপ্পা ও পাণ্ডেকে যে ভাবে ফেরাল, তাতে মনে হল ৩৪ বছর বয়সেও ওর যতটুকু খ্যাতি প্রাপ্য, তাও পেতে পারে। দুমিনি ও যুবরাজের কাছ থেকে যা পাওয়া যাবে ভেবে ওদের ফ্র্যাঞ্চাইজি ওদের নিয়েছিল, সেই ফর্মের ঝলক দেখা গিয়েছে মাত্র। তার বেশি কিছু নয়। বরং ওদের দুই ওপেনার ময়ঙ্ক ও শ্রেয়াস অবাক করেছে। তবে তারকাদের এ বার দায়িত্ব নিতেই হবে। কারণ, এখন এক ইঞ্চি জমি ছাড়া মানে শেষ দিকে কয়েক মাইল পিছিয়ে যাওয়া।

ধোনির আশিসে হারলেন বিরাট

সংবাদ সংস্থা • বেঙ্গালুরু

দুই ভারতীয় ক্যাপ্টেনের দ্বৈরথে পোড়খাওয়া উড়িয়ে দিলেন নব্যকে। বুধবার চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে ২৭ রানে হারাল মহেন্দ্র সিংহ ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস। সুরেশ রায়নার (৩২ বলে ৬২), দু’প্লেসির (১৮ বলে ৩৩ ন.আ) ব্যাটের চেয়েও বল হাতে আশিস নেহরার দাপটই (৪-১০) চেন্নাইকে জেতাল।

আগে ব্যাট করে ১৮১-৮ তুলেছিল সিএসকে। জবাবে বিরাটের (৪২ বলে ৫১) হাফ সেঞ্চুরির পরেও ১৫৪-৮ থেমে যায় আরসিবির ইনিংস। দলে তিনটি পরিবর্তন করেছিল এ দিন আরসিবি। ক্রিস গেইল নামেননি। তবে মিচেল স্টার্ক তিন ম্যাচ পর চোট সারিয়ে দলে ফিরেছিলেন। আর আইপিএলের কনিষ্ঠতম ক্রিকেটার হিসেবে নেমেছিলেন ১৭ বছরের সরফরাজ খান। শেষ পর্যন্ত সেই ক্যারিবিয়ান ‘ঝড়’-এর অভাবই আরসিবিকে পয়েন্ট টেবলের লাস্টবয় রেখে দিল।

আরও পড়ুন

Advertisement