Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ডোপ বিরোধী নিয়ম লঙ্ঘনে ৪ বছরের জন্য নির্বাসিত রাশিয়া, নেই টোকিয়ো যজ্ঞে

২০১১-১৫ সরকারি মদতে রাশিয়ায় ডোপ বিরোধী নিয়ম লঙ্ঘন ও ডোপিংয়ের রিপোর্ট বদলে একাধিক প্রতারণা করা হয়েছে— এই অভিযোগে বিশ্ব ডোপ বিরোধী সংস্থা (ওয়া

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ ০২:৩৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
ধাক্কা: কিংবদন্তি ইসিনবায়েভার দেশকে দেখা যাবে না আগামী বছরের টোকিয়ো অলিম্পিক্সের মঞ্চে। ফাইল চিত্র

ধাক্কা: কিংবদন্তি ইসিনবায়েভার দেশকে দেখা যাবে না আগামী বছরের টোকিয়ো অলিম্পিক্সের মঞ্চে। ফাইল চিত্র

Popup Close

শোকের ছায়া রুশ ক্রীড়াজগতে!

২০১১-১৫ সরকারি মদতে রাশিয়ায় ডোপ বিরোধী নিয়ম লঙ্ঘন ও ডোপিংয়ের রিপোর্ট বদলে একাধিক প্রতারণা করা হয়েছে— এই অভিযোগে বিশ্ব ডোপ বিরোধী সংস্থা (ওয়াডা) সোমবার সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা থেকে চার বছরের জন্য বহিষ্কার করল রাশিয়াকে।

সুইৎজ়ারল্যান্ডের লোজ়ানে অনুষ্ঠিত বিশ্ব ডোপ বিরোধী সংস্থার কর্মসমিতির এক বৈঠকের পরে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় সোমবার। সংস্থার তরফে এক বিবৃতিতে মুখপাত্র জেমস ফিৎজ়েরাল্ড জানিয়েছেন, ‘‘রাশিয়ার বিরুদ্ধে এই শাস্তি প্রদানের সিদ্ধান্ত সর্বসম্মত ভাবেই নেওয়া হয়েছে।’’ সঙ্গে এটাও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, রাশিয়ার ডোপ বিরোধী সংস্থা রুশাডা এই শাস্তি কমানোর জন্য ২১ দিনের মধ্যে আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালতে আবেদন করতে পারবে।

Advertisement

যার অর্থ, আগামী বছর আসন্ন টোকিয়ো অলিম্পিক্স, ২০২২ সালে বেজিংয়ে শীতকালীন অলিম্পিক্স ও একই বছরে দোহায় বিশ্বকাপ ফুটবলে অংশ নিতে পারবে না রাশিয়া। তবে ২০২০ টোকিয়ো অলিম্পিক্সে রুশ অ্যাথলিটরা অংশ নিতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে তাঁরা অলিম্পিক্সে যোগ দেবেন আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির হয়ে। রাশিয়ার পতাকার বদলে তাঁরা বহন করবেন আন্তর্জাতিক অলিম্পিক্স সংস্থার পতাকা। এমনকি তাঁরা সোনা জিতলেও বাজানো হবে না রুশ জাতীয় সঙ্গীত।

সোচিতে শুরু: রুশ ডোপ কলঙ্ক

• ফেব্রুয়ারি, ২০১৪: সোচিতে শীতকালীন অলিম্পিক্সে গোটা বিশ্বকে অবাক করে সব চেয়ে বেশি পদক পেল রাশিয়া। চার বছর আগের চেয়ে তাদের প্রাপ্ত পদক সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ।

• ডিসেম্বর, ২০১৪: জার্মান টিভি চ্যানেল এআরডি ফাঁস করল, দুর্নীতি ও সিন্থেটিক ডোপিং রমরমিয়ে চলছে রাশিয়ার ক্রীড়াজগতে। তথ্য দিলেন রাশিয়ার ডোপ বিরোধী সংস্থার প্রাক্তন আধিকারিক ভিতালি স্তেপানভ ও তাঁর স্ত্রী ইউলিয়া।

• নভেম্বর, ২০১৫: বিশ্ব ডোপ বিরোধী সংস্থার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডিক পাউন্ড জানালেন, রাশিয়ার ডোপ বিরোধী সংস্থা নির্দেশ মতো কাজ করছে না। ডোপ পরীক্ষাকেন্দ্রগুলি বন্ধ করেছে। বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স সংস্থা (আইএএএফ) নির্বাসিত করল রাশিয়ার অ্যাথলেটিক্স সংস্থাকে। যে নির্বাসন আজও বহাল।

• মে, ২০১৬: মস্কোর ডোপ বিরোধী পরীক্ষাগারের প্রাক্তন ডিরেক্টর জানালেন, ২০১৪ শীতকালীন অলিম্পিক্সের সময়ে তিনি অনেক অ্যাথলিটের নেতিবাচক ফলযুক্ত নমুনা বদল করে দিয়েছিলেন। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক্স কমিটি এক ডজনের বেশি রুশ ও অন্য দেশের অ্যাথলিটদের নির্বাসিত করল।

• অগস্ট, ২০১৬: ডোপ পরীক্ষায় অনেক অ্যাথলিট উত্তীর্ণ হতে না পারায় রিয়ো অলিম্পিক্সে কম সংখ্যক অ্যাথলিট নিয়ে যোগ দিল রাশিয়া। প্যারালিম্পিক্সে রাশিয়ার অংশগ্রহণ বাতিল হল। রুশ ভারোত্তোলন
দল বাতিল।

• অগস্ট, ২০১৭: দু’বছর নির্বাসিত থাকার পরে ১৯ জন অ্যাথলিটকে নিয়ে লন্ডনে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে নামার অনুমতি পেল রাশিয়া।

• ডিসেম্বর, ২০১৭: আন্তর্জাতিক অলিম্পিক্স কমিটি মেনে নিল ২০১৪ সালে শীতকালীন অলিম্পিক্সে ডোপিং করা অ্যাথলিটদের লুকিয়েছিল রাশিয়া। তাই ২০১৮ সালের শীতকালীন অলিম্পিক্সে নির্বাসন দেওয়া হল রাশিয়াকে।

• জুন-জুলাই, ২০১৮: নির্বিঘ্নে সম্পন্ন হল রাশিয়া বিশ্বকাপ।

• সেপ্টেম্বর, ২০১৮: প্রতারণার অভিযোগ মানে না রাশিয়া। এমন অভিযোগ ইউরোপের অনেক দেশের। এ বার রুশ পরীক্ষাগারের তথ্য তাঁদের হাতে তুলে দিতে বলল বিশ্ব ডোপ বিরোধী সংস্থা।

• অক্টোবর, ২০১৮: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অভিযোগ আনল রুশ সামরিক গোয়েন্দারা ক্রীড়া সংস্থাগুলোকে হ্যাক করেছে। উদ্দেশ্য, বিভিন্ন দেশের অ্যাথলিটদের দোষী বানানো।

• জুন, ২০১৯: আন্তর্জাতিক অ্যাথলেটিক্স সংস্থার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ফের মামলার নির্দেশ দিলেন রাশিয়ার
প্রতারণার বিরুদ্ধে।

• সেপ্টেম্বর, ২০১৯: বিশ্ব ডোপ বিরোধী সংস্থা জানাল, তিন সপ্তাহের মধ্যে জবাব দিতে হবে রাশিয়াকে।

• ডিসেম্বর, ২০১৯: অলিম্পিক্স ও অন্য আন্তর্জাতিক বড় খেলার আসর থেকে চার বছরের জন্য নির্বাসিত রাশিয়া। তবে ইউরো ও বিশ্বকাপ যোগ্যতা অর্জনের ম্যাচে খেলতে পারবে।

এ দিন শাস্তি ঘোষণার পরে রাশিয়ার বেশ কয়েকটি ক্রীড়া সংস্থা জানিয়ে দিয়েছে, টোকিয়োয় নিরপেক্ষ দেশের হয়ে নামবেন রুশ খেলোয়াড়রা। রুশ সাঁতার সংস্থার প্রধান ভ্লাদিমির সালনিকভ বলেছেন, ‘‘পরিস্থিতি যা-ই হোক, রুশ ক্রীড়াবিদেরা টোকিয়ো অলিম্পিক্সে অংশ নেবেই। অবশ্যই চাইব, রুশ জাতীয় পতাকা ও রুশ জাতীয় সঙ্গীত থাকবে অলিম্পিক্সে। কিন্তু পরিস্থিতি নিজেদের হাতে না থাকলে তো কিু করার নেই। কারও অধিকার নেই নিরাপরাধ অ্যাথলিটদের স্বপ্ন ভেঙে দেওয়ার।’’ ওয়াটার পোলো ও ডাইভিং সংস্থার প্রধান অ্যালেক্সি ভ্লাসেঙ্কো বলেন, ‘‘যদি নিরপেক্ষ দেশের হয়েও নামতে হয়, তা হলেও আমাদের অ্যাথলিটরা অলিম্পিক্সে যাবে। পদক জিতে দেখিয়ে দেবে ওদের দৃঢ়তা।’’

আরও পড়ুন: টিম ম্যানেজমেন্টকে আক্রমণ করে জয়ের খোঁজে আলেসান্দ্রো

যে রুশ অ্যাথলিটরা টোকিয়ো অলিম্পিক্সে অংশগ্রহণ করতে চান, তাঁদের জন্যও নিয়ম শুনিয়ে দিয়েছে বিশ্ব ডোপ বিরোধী সংস্থা। তাদের মুখপাত্র ফিৎজ়েরাল্ড জানিয়ে দিয়েছেন, ‘‘যাঁরা অলিম্পিক্সে অংশ নেবেন, তাঁদের প্রমাণ করতে হবে, রুশ পরীক্ষাগারগুলো ওয়াডার নিয়মকে বৃদ্ধাঙ্গুষ্ঠ দেখিয়ে যে ভাবে তথ্য গোপন করেছিল, তার সঙ্গে কোনও যোগসাজশ তাঁদের ছিল না।’’ যোগ করেন, ‘‘ম্যাকলারেন রিপোর্টে বলা হয়েছে, অ্যাথলিটের নমুনা বদলে অনেককে নির্দোষ ঘোষণা করেছে রুশ ডোপ বিরোধী সংস্থা ও তার পরীক্ষাগারগুলো। প্রতারণার মাধ্যমে নির্দোষ সাব্যস্ত হওয়া সেই অ্যাথলিটদের অলিম্পিক্সে অংশ নিতে দেওয়া যাবে না।’’

গত মাসেই আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি জানিয়ে দিয়েছিল, একশোরও বেশি অ্যাথলিটের নমুনা বদল-সহ একাধিক ডোপিংয়ের ঘটনা লুকিয়ে গিয়েছিল মস্কোর পরীক্ষাগার। বরং রুশ ডোপ বিরোধী সংস্থা পাল্টা দোষারোপ করেছিল ওয়াডা ও আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটিকে।

আরও পড়ুন: যে কোনও মাঠে ছয় মারার ক্ষমতা রাখি, হুঙ্কার দিচ্ছেন শিবম

এ দিন শাস্তি ঘোষণার পরে ওয়াডার ভাইস প্রেসিডেন্ট লিন্ডা হেলল্যান্ড বলেন, ‘‘যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হল, তাতে খুশি হওয়ার কিছু নেই। কিন্তু যে অপরাধ হয়েছে, তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করতে গিয়ে এই শাস্তিই দেওয়া হল। খেলার দুনিয়ার এটা সব চেয়ে বড় দুর্নীতি। আশা করব, এ বার রাশিয়া তাদের দোষ মেনে নেবে। একই সঙ্গে ক্ষমা চাইবে বিশ্বের ক্রীড়াপ্রেমী দর্শক ও অ্যাথলিটদের কাছে।’’

ওয়াডার এই শাস্তির বিরুদ্ধে আবেদনের পরে ভবিষ্যৎ কী হবে, সে ব্যাপারে নিশ্চিত নন রাশিয়ার ডোপ বিরোধী সংস্থা রুশাদার প্রধান য়ুরি গ্যানুস স্বয়ং। তার মতে, আবেদন করলেও, লড়াই করে এই রায়ের বিরুদ্ধে জিততে পারবে না রাশিয়া। রুশাদা প্রধানের কথায়, ‘‘আদালতে চার বছর নির্বাসিত থাকার এই শাস্তির বিরুদ্ধে আবেদন করেও কিছু হবে না বলেই মনে হয়।’’ ১৯ ডিসেম্বর রুশাদার পরিচালন সমিতির সদস্যরা মিলিত হবেন এক বৈঠকে। সেখানেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, এই শাস্তির বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক ক্রীড়া-আদালতে আবেদন করা হবে কি না।

যুরি আরও বলেন, ‘‘এই ঘটনা একটা ট্রাজেডি ছাড়া কিছুই নয়। যে অ্যাথলিটরা ডোপিংয়ের ধারকাছ দিয়েও যায় না তাঁদের আন্তর্জাতিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আসরে নামার সুযোগও কমে গেল।’’ যুরির কথাতেই পরিষ্কার, এ দিন শাস্তি ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই কয়েক জন রুশ অ্যাথলিট রাশিয়া ছেড়ে অন্য দেশের নাগরিকত্ব নেওয়ারও চিন্তা ভাবনা করেছেন। তাঁর কথায়, ‘‘অ্যাথলিটদের অনেকের ক্রীড়াবিদ জীবন খুব কম সময়ের হয়। সেখানে মধ্য গগনে থাকার সময়ে এই চার বছরের নির্বাসন কারও কারও কাছে বড় ধাক্কা।’’

গত কয়েক বছর ধরেই অলিম্পিক্স-সহ বেশ কিছু প্রতিযোগিতায় রাশিয়ার অ্যাথলিট ও ভারত্তোলোকদের নির্বাসন দেওয়া হয়েছে। এমনকি ২০১৮ সালে শীতকালীন অলিম্পিক্সেও রাশিয়ার অ্যাথলিটদের নিরপেক্ষ দেশের হয়ে নামতে হয়েছিল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement