×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

৯ বছর আগে এই দিনে কোন ‘কঠিনতম’ মাইল ফলকে পৌঁছেছিলেন সচিন?

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৬ মার্চ ২০২১ ০৯:৫৭
শতরানের পর সচিন।

শতরানের পর সচিন।
—ফাইল চিত্র

২৩ বছরের ক্রিকেট জীবনে বহু রেকর্ড নিজের পকেটে পুরেছেন সচিন রমেশ তেন্ডুলকর। তবে সব চেয়ে কঠিন ছিল বোধ হয় শততম শতরান। ৯৯ থেকে ১০০ পৌঁছতে ১ বছর সময় নিয়েছিলেন সচিন। নিজেও মেনে নিয়েছিলেন এটাই ছিল তাঁর সব চেয়ে কঠিন শতরান। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ২০১২ সালে ১৬ মার্চ এই রেকর্ড গড়েছিলেন সচিন।

৯৯তম শতরান এসেছিল ২০১১ সালের বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে নাগপুরে। বিশ্বকাপের উত্তাপে ঢাকা পড়ে গিয়েছিল সচিনের রেকর্ড। মাস্টার ব্লাস্টার বলেন, “৯৯তম শতরানের পর কেউ ১০০তম শতরান নিয়ে কথা বলেনি বিশ্বকাপের জন্য। বিশ্বকাপ শেষ হতেই সবার নজরে শুধুই আমার ১০০তম শতরান। ইংল্যান্ড সফরে যখন গেলাম সবাই বলল যে আমি লর্ডসে শতরান করব। ভালই হতো তেমন হলে। কিন্তু হল না।”

১০০ শতরানের মালিক বলেন, “শতরান খুব সহজে আসে না। কঠিন কাজ। সব কিছু ঠিক ঠিক মতো হলে তবেই শতরান পাওয়া যায়। ৯৯টা শতরান করার পরেও কঠিন ছিল ১০০তম পাওয়া। সব চেয়ে কঠিন বোধ হয় ওটাই ছিল। চাপ মুক্ত হয়েছিলাম।”

Advertisement

শততম শতরান করেছিলেন বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ঢাকায়। তবে ভারত জিততে পারেনি সেই ম্যাচ। শাকিব আল হাসানরা ৫ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেন। তার পরেও ২০ মাস আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলেছিলেন সচিন। তবে শতরান আসেনি, ৯০-এর ঘরেও পৌঁছতে পারেননি কখনও ওই ২০ মাসে।

Advertisement