Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

মহড়া শুরু রাফার, তৈরি সেরিনাও

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৬:০৯
নজরে: অনুশীলনে নাদাল। চোটমুক্ত সেরিনাও। চর্চায় তাঁরা। গেটি ইমেজেস

নজরে: অনুশীলনে নাদাল। চোটমুক্ত সেরিনাও। চর্চায় তাঁরা। গেটি ইমেজেস

মেলবোর্নে সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে অস্ট্রেলীয় ওপেন। এটিপি কাপ থেকে নাম তুলে নেওয়ায় রাফায়েল নাদালের মরসুমের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেলা নিয়ে যথেষ্ট সংশয় ছিল। শনিবার সেই সংশয় কাটল অনেকটাই। বিশ্বের দু’নম্বর তারকা নাদাল মেলবোর্নের জন কেন এরিনায় দীর্ঘক্ষণ অনুশীলন করলেন। নেটের চারদিকে পৌঁছে গেলেন অনায়াসে। রিটার্নে যতটা সম্ভব শক্তি প্রয়োগ করলেন। সার্ভিসও ছিল সাবলীল। একবারও মনে হয়নি, তাঁর খেলা নিয়ে কোনও সংশয় আছে।

অস্ট্রেলীয় ওপেনের টুর্নামেন্ট ডিরেক্টর ক্রেগ টিলে জানালেন, তিনি স্পেনীয় মহাতারকার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন। বলেছেন, ‘‘রাফা এ বার মেলবোর্নে জীবনের ২১ নম্বর গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিততে মরিয়া। যে ভাবে অনুশীলন করছে তাতে পরিষ্কার, টুর্নামেন্টের জন্য পুরোপুরি তৈরি। অস্ট্রেলীয় ওপেনের আগে কোনও ঝুঁকি নিতে চায়নি বলেই ও এটিপি কাপে খেলেনি।’’

পিঠে ব্যথা নিয়ে সমস্যাটা নাদালের কাছে নতুন কিছু নয়। গ্র্যান্ড স্ল্যামের সপ্তাহে সাধারণত তিনি কোনও টুর্নামেন্ট খেলেন না। গত সপ্তাহে নিজেই জানিয়েছিলেন, নিভৃতবাসে থাকার সময় নির্ধারিত পাঁচ ঘণ্টার মধ্যে দুই থেকে আড়াই ঘণ্টা হাল্কা অনুশীলন করেছেন। নাদাল কিন্তু টেনিস জীবনে মাত্র একবারই অস্ট্রেলীয় ওপেন জিতেছেন। সেটা ২০০৯-এ। এ বার তিনি সার্বিয়ান লাসলো জেরের বিরুদ্ধে প্রথম রাউন্ডে খেলবেন মঙ্গলবার। এবং তার একদিন আগে সোমবারই আবার নোভাক জ়োকোভিচের প্রথম খেলা। তাঁর সামনে ফ্রান্সের জেরেমি শার্ডি। টেনিস মহলে বলা হচ্ছে, সার্বিয়ান মহাতারকার লড়াইটা এ বার আরও কঠিন। প্রথম রাউন্ডে সহজ প্রতিপক্ষ পেলেও তাঁর দিকেই আছেন আলেকজান্ডার জ়েরেভ, মিয়োস রাওনিচ, স্ট্যান ওয়ারিঙ্কা। সেমিফাইনালে নোভাক বনাম ডমিনিক থিম হওয়ার সম্ভাবনাও প্রবল।

Advertisement

এ দিকে সেরিনা উইলিয়ামস স্বীকার করলেন, মার্গারেট কোর্টের সব চেয়ে বেশি ২৪টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের রেকর্ড স্পর্শ করার ভাবনাটা সবসময় তাঁর মাথায় থাকে। দিদি ভিনাসকে হারিয়ে তিনি শেষ বার গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতেন অস্ট্রেলীয় ওপেনে। সেটা ২০১৭-তে। সে সময় তিনি অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। তার পর থেকে চার বার গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনালে খেলে একবারও জিততে পারেননি। তবে সেরিনা জানাচ্ছেন, রেকর্ডের মুখে দাঁড়িয়ে থাকার চাপের সঙ্গে তিনি অভ্যস্ত হয়ে উঠেছেন। সাত বারের অস্ট্রেলীয় ওপেন চ্যাম্পিয়ন বলেছেন, ‘‘অবশ্যই রেকর্ডের ভাবনাটা আমার কাঁধের উপরে রয়েছে। এটা নিয়ে চিন্তা তো করিই। সারাক্ষণ মনের মধ্যে ব্যাপারটা থাকলেও আমি কিন্তু এখন অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছি।’’

অস্ট্রেলীয় ওপেনে সেরিনার লড়াইটা এ বার বেশ কঠিন। তাঁর দিকেই আছেন বিশ্বের দু’নম্বর তারকা সিমোনা হালেপ এবং তিন বার গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী নেয়োমি ওসাকা। সেরিনা অবশ্য তাঁর প্রথম রাউন্ডের প্রতিপক্ষ লরা সিগমন্ডকে নিয়েই ভাবছেন। বলেছেন, ‘‘সেরা খেলোয়াড়দে বিরুদ্ধে অনেকবার ও জিতেছে। ওর খেলার ধরনটা অন্যরকম। স্কিলের সঙ্গে দারুণ ভাবে নিজের গতিকে মেশাতে পারে। শুরুতেই এ রকম কঠিন ম্যাচ জিতলে অবশ্যই আমার আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাবে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement