Advertisement
০৬ ডিসেম্বর ২০২২
World Athletics Championships

World Athletics Championship: নিজের রেকর্ড ভেঙে বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে সোনা, বিশ্বাসই করতে পারছেন না সিডনি ম্যাকললিন

বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে ৪০০ মিটার হার্ডলসে সোনা দিতেছেন সিডনি ম্যাকললিন। সময় নিয়েছেন ৫০.৬৮ সেকেন্ড। নিজের রেকর্ড নিজেই ভেঙেছেন তিনি।

বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জিতলেন সিডনি ম্যাকললিন।

বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জিতলেন সিডনি ম্যাকললিন। ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৩ জুলাই ২০২২ ১৪:২৪
Share: Save:

৪০০ মিটার হার্ডলসে বিশ্বরেকর্ড তাঁর দখলে। অলিম্পিক্স রেকর্ডেও সবার আগে তাঁর নাম। অথচ এর আগে বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে ব্যক্তিগত প্রতিযোগিতায় সোনা জিততে পারেননি আমেরিকার ক্রীড়াবিদ সিডনি ম্যাকললিনের। এ বার সেই নজিরও ছুঁলেন সিডনি। বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে ৪০০ মিটার হার্ডলসে সোনা জিতেছেন তিনি। সময় নিয়েছেন ৫০.৬৮ সেকেন্ড। নিজের করা বিশ্বরেকর্ডের থেকে ০.৭৩ সেকেন্ড কম সময় নিয়েছেন সিডনি।

Advertisement

ফাইনালে ১৫০ মিটারের মধ্যেই বাকি প্রতিযোগীদের থেকে এগিয়ে যান সিডনি। ক্রমেই সেই ব্যবধান বাড়তে থাকে। দ্বিতীয় স্থানে শেষ করা নেদারল্যান্ডসের ফিমেক বল সিডনির থেকে ১.৫৯ সেকেন্ড বেশি সময় নেন। এই সময় থেকেই পরিষ্কার, কতটা দাপট দেখিয়ে জিতেছেন সিডনি। ৪X৪০০ মিটার দলগত রিলে প্রতিযোগিতাতেও সোনা জিতেছেন আমেরিকার দৌড়বিদ।

বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে রেকর্ড গড়ে সোনা জয়ের কথা বিশ্বাস করতে পারছেন না সিডনি নিজেই। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘‘বিশ্বাসই হচ্ছে না। সত্যি বলতে, আমি শুধু জোরে দৌড়তে চেয়েছিলাম। সময়ের কথা ভাবিনি। রেকর্ড করতে পেরে খুব খুশি।’’

সিডনির পরিবারের সবাই দৌড়ের সঙ্গে যুক্ত। তাঁর বাবা ১৯৮৪ সালের অলিম্পিক্সে অংশ নিয়েছিলেন। মা কার্ডিনাল হাইস্কুলে ছেলেদের দলে দৌড়তেন। কারণ, সেই সময় হাইস্কুলে মেয়েদের আলাদা দল ছিল না। সিডনির দিদি, দাদা ও ভাই, তিন জনই দৌড়বিদ। ছোট থেকে সিডনিকে প্রশিক্ষণ দিতেন তাঁর বাবা-মা। হাইস্কুল স্তরে সিডনির পারফরম্যান্স নজর কেড়েছিল। তার পরেই আমেরিকার দলে সুযোগ পেয়েছিলেন সিডনি।

Advertisement

২০২০ সালের টোকিয়ো অলিম্পিক্সে ৪০০ মিটার হার্ডলসে সোনা জিতেছিলেন সিডনি। সময় নিয়েছিলেন ৫১.৪৬ সেকেন্ড। সেটিও এখনও পর্যন্ত রেকর্ড। ২০১৯ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে ৪X৪০০ মিটার দলগত রিলে প্রতিযোগিতায় সোনা জিতলেও ৪০০ মিটার হার্ডলসে রুপো নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছিল তাঁকে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.