Advertisement
২৩ জুন ২০২৪
Syed Mushtaq Ali Trophy

লজ্জাজনক! তামিলনাড়ুর কাছে হেরে মুস্তাক আলি থেকে ছিটকে গেল বাংলা

এন জগদীশন ও দীনেশ কার্তিকের ১১০ রানের পার্টনারশিপ জেতাল তামিলনাড়ুকে। নিজস্ব চিত্র।

এন জগদীশন ও দীনেশ কার্তিকের ১১০ রানের পার্টনারশিপ জেতাল তামিলনাড়ুকে। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৮ জানুয়ারি ২০২১ ২৩:৩৯
Share: Save:

সোমবার ইডেন গার্ডেন্সে তামিলনাড়ুর কাছে ৮ উইকেটে হেরে সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নিলবাংলা। সৌজন্যে তৃতীয় উইকেটে দীনেশ কার্তিক ও এন জগদীশনের ১১০ রানের পার্টনারশিপ।

জয়ের হ্যাটট্রিক করে নতুন বছরে বেশ আশা জাগিয়েছিল অনুষ্টুপ মজুমদারের দল। অসমের বিরুদ্ধে ১৩ রানে হেরে আগেইকাজটা কঠিন করেছিল। যদিও অধিনায়ক জোর গলায় বলেছিলেন,"চ্যাম্পিয়ন হতে গেলে বড় দলকে হারাতেই হবে। তাইচ্যাম্পিয়নের মতো ম্যাচটা খেলব।" কিন্তু কোথায় কি! বরং লজ্জাজনক হারের সাক্ষী থাকল বঙ্গক্রিকেট। মূলত ব্যাটিং ব্যর্থতারজন্যই ঘরের মাঠে হার হজম করল বঙ্গব্রিগ্রেড। হারতে হল কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রাক্তন অধিনায়ক দীনেশ কার্তিকের দলেরকাছে।

প্রতিযোগিতার শুরু থেকেই ব্যাটিং ব্যর্থতা চলছিল। ভাল সময় চলছিল বলে কেউ সেই দিকে নজর দেয়নি। শুরু থেকেই দলেরসবচেয়ে সিনিয়র ব্যাটসম্যান মনোজ তেওয়ারি চূড়ান্ত ব্যর্থ। বিবেক সিংহ ও শ্রীবৎস গোস্বামী শুরুটা ভাল করলে ইনিংস এগোবে।আর সেটা না হলেই মিডল অর্ডারে ভাঙ্গন অবশ্যম্ভাবী। সবচেয়ে অভিজ্ঞ মনোজ (প্রতিযোগিতায় রান ১২, ১৬, ৩৩, ৭) দাগকাটতে পারলেন না। শুধু ওড়িশার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে ব্যাট করার সুযোগ আসেনি। আর এবার এমন মরণ বাঁচন ম্যাচেও তিনিদলকে সাহায্য করতে পারলেন না। মাত্র ৭ রান করে মুরুগন অশ্বিনকে উইকেট ছুড়ে দিয়ে দলকে আরও ব্যাকফুটে ঠেলে দেন।পিছনে দাঁড়িয়ে তাঁর স্টাম্প ছিটকে দেন দীনেশ কার্তিক। বাংলার স্কোর তখন ৮৭ রানে ৫ উইকেট।

তরুণ কাইফ আহমেদ ৪৭ বলে ৬৩ রানে অপরাজিত রইলেন। অধিনায়কের ব্যাট থেকে এল ৩৪ রান। ষষ্ঠ উইকেটে তাঁদের ৫৬রানের পার্টনারশিপের জন্যই ৮ উইকেটে ১৬৩ রান তুললো বাংলা। বাকিদের স্কোর লেখার মতো নয়। প্রতি ম্যাচে তো ঈশানপোড়েল ব্যাটিং ব্যর্থতা ঢাকবেন না। তিনি এদিন আর পারলেন না। ফলে অনায়াসে ২ উইকেটে ১৬৭ রান তুলে ৮ উইকেটেজিতে নিল তামিলনাড়ু। এন জগদীশন ৪৫ বলে ৭১ রানে অপরাজিত রইলেন। প্রাক্তন নাইট অধিনায়কের ব্যাট থেকে এলঅপরাজিত ৩১ বলে ৪৭ রান। তৃতীয় উইকেটে ১১০ রান যোগ করে বাংলাকে প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে দিলেন।

গত মরসুম ঠিক একইরকম ভাবে সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-টোয়েন্টির গ্রুপ পর্ব থেকে বাংলা ছিটকে গিয়েছিল। এবারও ঠিক তাই।সত্যি ‘এভাবেও হেরে যাওয়া যায়!’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Cricket Tamil Nadu Syed Mushtaq Ali Trophy
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE