×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৩ মে ২০২১ ই-পেপার

বোর্ড প্রেসিডেন্ট বলে সৌরভের সম্পর্কে ভাল কথা বলছে বিরাট, তীব্র কটাক্ষ গাওস্করের

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৪ নভেম্বর ২০১৯ ১৯:১৬
কোহালির সঙ্গে একমত নন গাওস্কর। ছবি— পিটিআই।

কোহালির সঙ্গে একমত নন গাওস্কর। ছবি— পিটিআই।

ভরা ইডেন। মন জিতে নেওয়া সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। অসাধারণ দর্শক সমর্থন। নৈশালোকে দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচ। বিরাট কোহালির দলের দাপুটে জয়...। ‘পিকচার পার্ফেক্ট’ হওয়ার সব উপাদান মজুদ থাকলেও শেষ বেলায় যেন একটু কালির ছিটে লেগে গেল ছবিটায়। দ্বিতীয় টেস্ট শেষের পরে দেশের সর্বকালের অন্যতম সেরা ওপেনার সুনীল গাওস্করের সঙ্গে লেগে গেল বিরাট কোহালির।

প্রতিবেশী দেশকে ইডেনে ইনিংস ও ৪৬ রানে হারানোর পরে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে দেশের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রশংসা করে কোহালি বলেন, ‘‘টেস্ট ক্রিকেট হল মানসিক লড়াইয়ের জায়গা। আমরা শিখেছি কী ভাবে চ্যালেঞ্জের মুখে দাঁড়াতে হয়। বিপক্ষকে চ্যালেঞ্জটা ফিরিয়ে দিতে হয়। আর এটা দাদার দলই শুরু করেছিল। আমরা শুধু সেটাকে এগিয়ে নিয়ে চলেছি।’’

নেতৃত্বের ব্যাটন সৌরভের হাতে চলে আসার পরেই ভারতীয় ক্রিকেটের মানসিকতাই বদলে গিয়েছিল। শত্রুপক্ষের দিকে চোখে চোখ রেখে লড়াই শুরু হয় সৌরভের জমানা থেকেই। বিরাট তুলে ধরেন অগ্রজের নেতৃত্বের সোনার সময়কে। কোহালি জমানাতেও সেই একই ছবির প্রতিফলন দেখা যাচ্ছে। ভারত অধিনায়কের এই মন্তব্য ভাল ভাবে নেননি গাওস্কর।

Advertisement

আরও পড়ুন: দাদার দল থেকেই সব শুরু, ইডেনে টেস্ট জিতে সৌরভকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন কোহালি

সম্প্রচার চ্যানেলে কোহালিকে কটাক্ষ করে গাওস্কর বলেন, ‘‘ভারত দুর্দান্ত জয় পেয়েছে। তবে আমি একটা কথা বলতে চাই। ভারত অধিনায়ক বলল, দাদার দলের হাত ধরে ২০০০ সাল থেকে জিততে শুরু করেছে ভারত। দাদা এখন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট। তাই কোহালি ওর সম্পর্কে ভাল ভাল সব কথা বলেছে। ভারত সত্তর-আশির দশকেও জিতেছে। ১৯৮৬ সালে বিদেশের মাঠে গিয়ে জিতেছে ভারত, ড্রও করেছে। সেই সময়ে বিরাটের জন্মও হয়নি।’’

ঐতিহাসিক দিন-রাতের টেস্ট আড়াই দিনের কম সময়ে ভারত জিতলেও বিতর্কের ঢেউ তুলে দিয়ে গেল গাওস্করের এই মন্তব্য। যার ঢেউ আগামী দিনে ভারতীয় ক্রিকেটকে আন্দোলিত করতেই পারে।

আরও পড়ুন: সুপারহিট ইডেন টেস্ট! পৃথিবীর ব্যস্ততম মানুষ ছিলাম, বলছেন সৌরভ

Advertisement