Advertisement
০১ এপ্রিল ২০২৩

ইংল্যান্ডে প্রস্তুতির যথেষ্ট সময় থাকবে: জাহির

শুক্রবার মুম্বইয়ে এক অনূর্ধ্ব ১৬ ক্রিকেট লিগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জাহির সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার জন্য ওখানে অনেক সময় পাবে ক্রিকেটাররা।

আশাবাদী: ইংল্যান্ড সিরিজে বিরাটদের ভরসা দিচ্ছেন জাহির।

আশাবাদী: ইংল্যান্ড সিরিজে বিরাটদের ভরসা দিচ্ছেন জাহির।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৮ এপ্রিল ২০১৮ ১৬:৩৪
Share: Save:

ইংল্যান্ডে টেস্ট সিরিজের প্রস্তুতির জন্য ভারতীয় ক্রিকেটাররা যথেষ্ট সময় পাবেন কি না, তা নিয়ে চর্চা চলছে। কিন্তু অগস্টে পাঁচ টেস্টের সিরিজের আগে বিরাট কোহালিদের প্রস্তুতির সমস্যা হবে না বলে মনে করেন প্রাক্তন ভারতীয় পেসার জাহির খান। সিরিজের এক মাস আগে থেকেই তাঁরা ওখানকার পরিবেশে প্রস্তুতি নিতে পারবেন বলে মনে করেন জাহির।

Advertisement

ইংল্যান্ডে যাওয়ার আগে জুনে ভারতীয় দল আয়ারল্যান্ডে দু’টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে। জুলাইয়ের ৩ থেকে ১৭ ইংল্যান্ডে তাদের তিনটি টি-টোয়েন্টি ও সমসংখ্যক ওয়ান ডে খেলার কথা। এজবাস্টনে প্রথম টেস্ট শুরু হচ্ছে ১ অগস্ট। মাঝের এই সময়ে ক্রিকেটাররা ইংল্যান্ডের আবহাওয়ায় যথেষ্ট ভাল অনুশীলন করতে পারবেন বলে মনে করেন জাহির। যিনি ইংল্যান্ডে আটটি টেস্টে প্রায় তিনশো ওভার বোলিং করে ৩১টি উইকেট পেয়েছেন।

শুক্রবার মুম্বইয়ে এক অনূর্ধ্ব ১৬ ক্রিকেট লিগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জাহির সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার জন্য ওখানে অনেক সময় পাবে ক্রিকেটাররা। দলের বেশির ভাগ ক্রিকেটারই তো একাধিক ফর্ম্যাটে খেলছে। ওরা উইকেট ও পরিবেশ সম্পর্কে ধারণা করে নিতে পারবে আগে থেকেই।’’ ইংল্যান্ডে ২৬টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে ৫৬ উইকেট পাওয়া পেসার অবশ্য আশাবাদী। মনে করেন, ‘‘ওখানে আবহাওয়া এক রকম থাকে না বলেই সমস্যা হয়। তবে টেস্ট সিরিজের সময় পিচ কিছুটা শুকনো থাকবে। কারণ, ওই সময় ওখানে দিনের বেশির ভাগই রোদ থাকে।’’

ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহালি ইংল্যান্ডে টেস্ট সিরিজের আগে কাউন্টিতে খেলবেন বলে ঠিক করেছেন। সারে ও উরস্টারশায়ার কাউন্টিতে খেলা জাহির এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘এটা বিরাটের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। দলের নয়। তবে আমাদের দলের অনেকেরই ইংল্যান্ডে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। ওরা জানে ওখানে কী রকম উইকেট ও পরিবেশ থাকে।’’

Advertisement

বোলারদের চাপ নিয়ন্ত্রণে তাঁদের ম্যাচ না কমিয়ে অনুশীলন কমানোর পরামর্শ দেন জাহির। বলেন, ‘‘ম্যাচেই সথেকে ভাল অনুশীলন হয়। তাই ম্যাচ না খেলা উচিত না। বরং নেটে কম পরিশ্রম করে চাপ নিয়ন্ত্রণ করা ভাল। আমি এটাই করতাম।’’

টি-টোয়েন্টিতে পেসারদের সেরা অস্ত্র নাক্‌ল বল, মনে করেন জাহির। তাঁর মতে, ‘‘নাক্‌ল বল ব্যাটসম্যানরা সাধারণত বুঝতে পারে না। আমি এই বল করে প্রচুর সাফল্য পেয়েছি। টি-টোয়েন্টিতে এটা পেসারের সবচেয়ে বড় অস্ত্র। তাই আইপিএলেও অনেককে নাক্‌ল বল দিতে দেখছি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.