Advertisement
৩১ জানুয়ারি ২০২৩
Manika Batra

Tokyo Olympics 2020: পদকের দৌড়ে ভরসা নারীশক্তি

মেরি কমের মতোই দেশ এখন তাকিয়ে ব্যাডমিন্টনে পিভি সিন্ধুর দিকে।

ত্রয়ী: স্বপ্ন দেখাচ্ছেন মেরি, সিন্ধু এবং মনিকা। রবিবার।

ত্রয়ী: স্বপ্ন দেখাচ্ছেন মেরি, সিন্ধু এবং মনিকা। রবিবার। ছবি পিটিআই।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৬ জুলাই ২০২১ ০৫:৩২
Share: Save:

ভারতকে টোকিয়ো অলিম্পিক্সে রুপো দিয়ে শুরুটা করেছিলেন মীরাবাই চানু। রবিবার দেশের অন্যতম সেরা ভারোত্তোলকের ব্যাটনটাই যেন হাতে তুলে নিলেন ভারতের অন্য তিন কন্যা। বক্সিংয়ে মেরি কম। পি ভি সিন্ধু ব্যাডমিন্টনে। এবং খানিকটা অপ্রত্যাশিত ভাবে মেয়েদের টেবল টেনিসে মনিকা বাত্রা।

Advertisement

টোকিয়ো রওনা হওয়ার আগে মেরি কম বলেছিলেন, এটাই তাঁর শেষ অলিম্পিক্স। ছ’বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন মেরি চেয়েছেন, বিশ্বের সব চেয়ে বড় ক্রীড়াযজ্ঞ থেকে দারুণ কিছু করেই চিরবিদায় নিতে। অলিম্পিক্সে এ বার তাঁর শুরুটা ভালই হল। ডমিনিকান রিপাবলিকের মিগুয়েলিনা হের্নান্দেস গার্সিয়ার কঠিন চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করে প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালেও পৌঁছে গেলেন। কে বলবেন, ২০১২ লন্ডন অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জজয়ী ভারতীয় বক্সারের বয়স এখন ৩৮। তাঁর থেকে ১৫ বছরের ছোট বক্সারের বিরুদ্ধে জিতলেন ৪-১ স্কোরে। প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে মেরির সামনে তৃতীয় বাছাই ইনগ্রিট ভ্যালেন্সিয়া। যিনি রিয়ো অলিম্পিক্সের রুপোজয়ী।

মেরি কমের মতোই দেশ এখন তাকিয়ে ব্যাডমিন্টনে পিভি সিন্ধুর দিকে। তাঁরও শুরুটা দারুণ হল। বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ভারতীয় তারকার সামনে ইজ়রায়েলের সেনিয়া পলিকার্পোভা দাঁড়াতেই পারলেন না। ২৬ বছরের সিন্ধু এ বারের অলিম্পিক্সে ষষ্ঠ বাছাই। বিশ্বের ৫৮ নম্বর খেলোয়াড় পলিকার্পোভা-কে হারালেন ২১-৭, ২১-১০ গেমে। ম্যাচের পরে সিন্ধু বলেছেন, ‘‘এটা ঘটনা যে প্রথম ম্যাচটা বেশ সহজই পেলাম। তবে কাউকেই ছোট করে দেখা যায় না।’’ গ্রুপ পর্বে বিশ্বের সাত নম্বর সিন্ধুর পরের ম্যাচ হংকংয়ের চিউং ন্যান ই-র সঙ্গে। যিনি বিশ্ব তালিকায় রয়েছেন ৩৭ নম্বরে।

অলিম্পিক্সের রবিবাসরীয় আসর ভারতীয়দের জন্য জমিয়ে দিলেন টেবল টেনিস তারকা মনিকা বাত্রাও। চমকে দিলেন বিশ্ব ক্রমতালিকায় ৩২ নম্বরে থাকা ইউক্রেনের মার্গারিটা পেসোতস্কা-কে পিছিয়ে পড়েও হারিয়ে। মনিকা উঠলেন তৃতীয় রাউন্ডে। প্রথম দু’টি গেমই এ দিন তিনি হেরে যান। তবু প্রবল চাপকে জয় করে সেখান থেকে ম্যাচ বার করেন ৪-১১, ৪-১১, ১১-৭, ১২-১০, ৮-১১, ১১-৫, ১১-৭ গেমে। প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে খেলা নিশ্চিত করতে সোমবার মনিকার লড়াই অস্ট্রিয়ার সফিয়া পলকানোভার সঙ্গে। এই ম্যাচটাও যদি জেতেন, তা হলে সেটা হবে রীতিমতো কৃতিত্বের ব্যাপার। তার উপরে অলিম্পিক্সে তিনি খেলছেন ব্যক্তিগত কোচ ছাড়াই।

Advertisement

১০ মিটার এয়ার পিস্তল ফাইনালেও উঠতে পারেননি মনু ভাকের, যশস্বিনী সিংহ দেসোয়াল। মনু জানিয়েছেন, তাঁর বিদায়ের জন্য দায়ী পিস্তলের টেকনিক্যাল গলদ। টেনিসে মেয়েদের ডাবলস থেকে বিদায় সানিয়া মির্জা-অঙ্কিতা রায়না জুটির। প্রথম সেট ৬-০ জিতে পরের দু’টি সেটই হারেন সানিয়ারা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.