×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ মে ২০২১ ই-পেপার

প্রায় অসম্ভবকে সম্ভব করার পরীক্ষা নেমার-এমবাপের

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৪ মে ২০২১ ০৬:৪৭
মুখোমুখি: দ্বিতীয় পর্বের খেলায় নজরে নেমার এবং ফডেন।

মুখোমুখি: দ্বিতীয় পর্বের খেলায় নজরে নেমার এবং ফডেন।
ফাইল চিত্র।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে উঠেও গত মরসুমে ট্রফি অধরা ছিল নেমার দা সিলভা স্যান্টোস (জুনিয়র), কিলিয়ান এমবাপেদের। বায়ার্ন মিউনিখের বিরুদ্ধে ০-১ হেরে গিয়েছিল প্যারিস সাঁ জারমাঁ। এই মরসুমে গত বারের চ্যাম্পিয়নদের শেষ আট থেকেই ছিটকে দিয়েছেন নেমার-রা।

সেমিফাইনালের প্রথম পর্বেই ম্যাঞ্চেস্টার সিটির বিরুদ্ধে এগিয়ে গিয়েও বিপর্যয় আটকাতে পারেননি পিএসজি। নাটকীয় প্রত্যাবর্ত ঘটিয়ে ২-১ জিতেছিলেন কেভিন দ্য ব্রুইন, রিয়াদ মাহরেজ়-রা। বিশেষজ্ঞদের মতে অ্যাওয়ে ম্যাচে দু’গোল করার ফলে মঙ্গলবার ঘরের মাঠে কিছুটা এগিয়ে থেকেই নামবে ম্যান সিটি। লড়াই অনেক কঠিন পিএসজি-র। খেতাবি দৌড়ে টিকে থাকার জন্য নেমারদের অন্তত দু’গোলের ব্যবধান রেখে জিততে হবে। অথচ মরণ-বাঁচন এই ম্যাচের আগেই পিএসজি শিবিরে অস্বস্তি বাড়ছে এমবাপেকে নিয়ে!

সোমবার প্যারিস থেকে ম্যাঞ্চেস্টারে পৌঁছছেন নেমাররা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমের দাবি, এমবাপেকে দেখা গিয়েছে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে টিম বাসে উঠতে। মাংসপেশিতে চোট থাকায় ফরাসি লিগে আগের ম্যাচে লেন্সের বিরুদ্ধে খেলেননি পিএসজি তারকা। ম্যান সিটির বিরুদ্ধে তিনি কি পারবেন শেষ পর্যন্ত মাঠে নামতে?

Advertisement

এমবাপেকে নিয়ে পিএসজি সমর্থকেরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়লেও নেমার জয় ছাড়া কিছুই ভাবতে চান না। পিএসজি-র ওয়েবসাইটে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ব্রাজিলীয় তারকা বলেছেন, “এই ম্যাচটা জেতার জন্য মাঠের মধ্যে মৃত্যুবরণ করতেও আমি ভয় পাই না।”

পেপ গুয়ার্দিওলার চালে প্রথম পর্বে নেমার গোল করতে পারেননি। এ বারও তাঁকে আটকানোর রণনীতি নিশ্চয়ই তৈরি ম্যান সিটি ম্যানেজারের? পিএসজি তারকার কথায়, “সমর্থকদের জন্য আমরা নিজেদের সব কিছু উজাড় করে দেব। এই ম্যাচ সব ধরনের মানসিক লড়াইয়ের ঊর্ধ্বে।” গত শনিবার ফরাসি লিগে লেন্সের বিরুদ্ধে ২-১ জিতেছে পিএসজি। গোল করেছিলেন নেমার ও মার্কোস কোহেরা (মারখিনোস)। বিশেষজ্ঞদের মতে, টানা ম্যাচ খেলার ফরে পর্যাপ্ত প্রস্তুতির অভাব ও ক্লান্তি সমস্যায় ফেলতে পারে পিএসজির ফুটবলারদের। নেমার যদিও তা উড়িয়ে দিয়েছেন। বলেছেন, “এটা এমন একটা ম্যাচ যে, সকলেই উদ্বুদ্ধ থাকে। কেউ ক্লান্তি অনুভব করে না। ক্লাবের সম্মানের জন্য নিজেকে উজাড় করে দেয়। বিশেষ করে ম্যান সিটির মতো দুর্দান্ত দলের বিরুদ্ধে সকলেই চাইবে ভাল ফল করতে।” তিনি আরও বলেছেন, “আমি মনে করি, এই ধরনের ম্যাচের জন্য কম প্রস্তুতি বরং ভাল। না হলে ম্যাচের তিন-চার দিন আগে থেকে চাপ বাড়তে শুরু করবে ফুটবলারদের মধ্যে। সব কিছু তালগোল পাকিয়ে যাবে।”

ঘরের মাঠে পিএসজি-র বিরুদ্ধে ম্যাচের আগে ম্যান সিটি শিবিরে অবশ্য চোট-আঘাতের কোনও সমস্যা নেই। ফুটবল পণ্ডিতেরা এই ম্যাচে কেভিন দ্য ব্রুইনদের এগিয়ে রাখলেও গুয়ার্দিওলা ফুটবলারদের সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, “এই জায়গায় পৌঁছে কোনও অবস্থাতেই আমাদের সুযোগ হাতছাড়া করা উচিত নয়। ফুটবলারদের বুঝতে হবে, এই লড়াইটা অত্যন্ত কঠিন। এই ধরনের ম্যাচে যে কোনও মুহূর্তে বিপর্যয় ঘটে যেতে পারে। আশা করব, আমাদের ফুটবলারেরা এই ব্যাপারে ওয়াকিবহাল। ওদের বলেছি, গত সাত মাসে আমরা ও পিএসজি আলাদা কিছুই করিনি। তাই নিজেদের স্বাভাবিক খেলা খেলে জেতার চেষ্টা করো।”

গত মরসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আট থেকে বিদায় নিয়েছিল ম্যান সিটি। এ বার খেতাবের অন্যতম দাবিদার তারা। মঙ্গলবার পিএসজি-র বিরুদ্ধে রণনীতি কী হবে? ম্যান সিটি ম্যানেজার বলেছেন, “আগের ম্যাচে আমরা যে লক্ষ্য নিয়ে নেমেছিলাম, এ বার তার কোনও পরিবর্তন হচ্ছে না। প্রিমিয়ার লিগে কঠিন ম্যাচ যে ভাবে খেলি, সে ভাবেই পিএসজি-র বিরুদ্ধে খেলতে চাই।”

পিএসজি ম্যানেজার মৌরিসিয়ো পচেত্তিনো যে চাপে রয়েছেন, তা সেমিফাইনালের প্রথম পর্বে ম্যান সিটির কাছে হারের পরেই স্বীকার করে নিয়েছিলেন। বলেছিলেন, “ফুটবলে নিজেদের উপরে বিশ্বাস রাখা অত্যন্ত জরুরি। আমাদের চেষ্টা করতে হবে গোল করার জন্য। জয়ের জন্য।” তিনি আরও বলেছিলেন, “দ্বিতীয় পর্বের ম্যাচে আমরা একটু চাপে থাকব ঠিকই। কিন্তু চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।”

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আজ: ম্যাঞ্চেস্টার সিটি বনাম পিএসজি (রাত ১২.৩০ থেকে। সোনি টেন টু চ্যানেলে)

Advertisement