Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

শাস্তির প্রক্রিয়া শুরু উয়েফার, মাথা নত করবে না তিন ক্লাব

উয়েফার সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে পাল্টা প্রশ্ন তুলে দিয়েছে তিন ক্লাব। বুধবার রিয়াল, বার্সেলোনা এবং জুভেন্টাস দল যৌথ ভাবে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৭ মে ২০২১ ০৫:১৩
প্রতিবাদ: সুপার লিগের বিরুদ্ধে সরব সমর্থকেরা।

প্রতিবাদ: সুপার লিগের বিরুদ্ধে সরব সমর্থকেরা।
ফাইল চিত্র।

বিদ্রোহী ইউরোপীয় সুপার লিগ নিয়ে নতুন করে সঙ্ঘাত শুরু হয়ে গেল উয়েফা বনাম তিন ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা এবং জুভেন্টাসের।

প্রস্তাবিত নতুন লিগ থেকে এই তিন ক্লাব এখনও না সরে আসায় কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার পদক্ষেপ শুরু করেছে উয়েফা। ইতিমধ্যে ১২ ক্লাবের মধ্যে ন’টি ক্লাব সমর্থকদের তীব্র প্রতিবাদের মুখে পড়ে এই লিগ থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিতে বাধ্য হয়েছে। ব্যতিক্রম রিয়াল, বার্সা এবং জুভেন্টাস।

মঙ্গলবার উয়েফা এক বিবৃতিতে পরিষ্কার লিখেছে, ‘‘তথাকথিত সুপার লিগের পরিকল্পনা নিয়ে আমাদের নীতিনির্ধারক ও শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি ইতিমধ্যেই তদন্ত করেছে। তার ভিত্তিতে আদৌ শৃঙ্খলাভঙ্গ হয়েছে কি না, তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পদক্ষেপও শুরু করা হল। এখানে দেখা হবে উয়েফার আইনি পরিকাঠামো বিরোধী কোনও কাজ রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও জুভেন্টাস করেছে কি না। নির্দিষ্ট দিনে এ’ব্যাপারে সবাইকে আরও তথ্য জানানো হবে।’’

Advertisement

কিন্তু উয়েফার সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে পাল্টা প্রশ্ন তুলে দিয়েছে তিন ক্লাব। বুধবার রিয়াল, বার্সেলোনা এবং জুভেন্টাস দল যৌথ ভাবে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে। সেখানে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, উয়েফার এই চাপের সামনে তারা মাথা নত করবে না। এর আগে মাদ্রিদের এক আদালত ইউরোপিয়ান কোর্ট অব জাস্টিসের কাছে এই প্রশ্ন করেছিল, ক্লাবগুলির বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ নিতে গিয়ে উয়েফা কি ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিয়মকেই লঙ্ঘন
করছে না?

সেই বিষয়কে তুলে ধরে তিন ক্লাবের যৌথভাবে প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “আদালত কিন্তু আগেই উয়েফাকে সতর্ক করে দিয়েছিল, এই ধরনের শাস্তিমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করে তারা আইনি মতামতকেই উপেক্ষা করার চেষ্টা করছে। তা ছাড়াও এই বিষয় নিয়ে আদালতে এখনও শুনানি চলছে। সেই অবস্থায় উয়েফা কোনও শাস্তিমূলক সিদ্ধান্ত নিতে পারে না।”

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, “উয়েফা সরাসরি আইনি ধারাকেই লঙ্ঘন করার চেষ্টা করে চলেছে। তা ছাড়া ফুটবলকে আরও আধুনিক রূপ দেওয়ার যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, তা নিয়ে দুই তরফে খোলামেলা আলোচনা হতেই পারত। তার পরিবর্তে উয়েফা সমস্ত দলকে প্রস্তাবিত সুপার লিগ থেকে সরে দাঁড়ানোর নির্দেশ দিচ্ছে। এটা কোনও সময়েই প্রত্যাশিত ছিল না।”

এ দিকে, বাকি ন’টি ক্লাব প্রস্তাবিত লিগ থেকে সরে দাঁড়ালেও তাদের কিছুটা আর্থিক মাসুল দিতেই হচ্ছে। আর্সেনাল, চেলসি, লিভারপুল, ম্যাঞ্চেস্টার সিটি, ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড, টটেনহ্যান হটস্পার, এসি মিলান, ইন্টার মিলান এবং আতলেতিকো দে মাদ্রিদ, এই ন’টি ক্লাবকে সম্মিলিত ভাবে প্রায় ১৩৪ কোটি টাকা দিতে হচ্ছে। যা খরচ করা হবে অবহেলিত শিশুদের এবং প্রাথমিক স্তরের ফুটবলের উন্নতিতে।

আরও পড়ুন

Advertisement