Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

আইপিএলের শুরুর দিকেও অনিশ্চিত কোহালি

সুমিত ঘোষ
২৭ মার্চ ২০১৭ ০৪:২৩

কাঁধের চোট নিয়ে বিরাট কোহালির ভোগান্তি ধর্মশালাতেই হয়তো শেষ হচ্ছে না। গড়াতে পারে আইপিএলের শুরুর দিকেও।

ধর্মশালায় সিরিজ ফয়সালার মরণ-বাঁচন টেস্টে কোহালি নামতে পারেননি কাঁধের চোট সম্পূর্ণ সেরে না ওঠায়। ধৌলাধার পাহাড়ের কোলে তাঁর অনুপস্থিতি নিয়ে রবিবার সারা দিন ধরে ক্রিকেট ভক্তদের চর্চা চলল। বিরাট আগ্রাসন না থাকায় ভারতীয় দলকে খুব ন্যাতানো মনে হয়েছে, এটাই মোটামুটি আলোচনার রিংটোন।

এর মধ্যেই অশনি সংকেত— আইপিএলের শুরুর দিকের কয়েকটি ম্যাচেও অনিশ্চিত হয়ে পড়তে পারেন কোহালি। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর দশম আইপিএলে প্রথম নামছে ৫ এপ্রিল উদ্বোধনী ম্যাচেই। সেই ম্যাচের এখনও দিন দশেক বাকি। তবু প্রথম ম্যাচে আরসিবি জার্সি গায়ে কোহালি টস করতে যেতে পারবেন কি না, তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। আরসিবি টিম সূত্রে খবর, প্রথম দিকের কয়েকটি ম্যাচে অধিনায়ককে ছাড়া নামতে হলেও হতে পারে।

Advertisement

ধর্মশালায় ভারত-অস্ট্রেলিয়া মরণ বাঁচন ম্যাচ চলার মধ্যেই দেশের আটটি শহরে আইপিএল নিয়ে ঢাকে কাঠি পড়ে গিয়েছে। ইডেনে কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্র্যাকটিস শুরু হয়ে গিয়েছে। বিদেশি খেলোয়াড়রা আসতে শুরু করে দিয়েছেন। বেঙ্গালুরুতে আরসিবি-ও নেমে পড়েছে। তাদের বোলার্স ক্যাম্প হয়ে গেল তিন দিন ধরে। এ বি ডিভিলিয়ার্স, শেন ওয়াটসন-রা এসে পড়বেন দু’তিন দিনের মধ্যে। তাঁদের ক্যাপ্টেন কবে যোগ দেবেন, সেটাই এখন দেখার।

গত বার ইডেনে ফেটে যাওয়া হাত নিয়ে ব্যাট করতে নেমে সেঞ্চুরি করেছিলেন কোহালি। গোটা টুর্নামেন্টে দুরন্ত ফর্মে ছিলেন। কিন্তু বলের সেলাইয়ে হাত ফালি হয়ে যাওয়া আর রাঁচীর শক্ত মাঠে ধড়াম করে কাঁধ দিয়ে পড়ার মধ্যে তফাত আছে।

জানা গিয়েছে, পেশি ছিড়ে না গেলেও বিপজ্জনক লক্ষণ ধরা পড়েছে পরীক্ষায়। ডাক্তারি পরামর্শ হচ্ছে, কোহালিকে এখন যতটা সম্ভব বেশি বিশ্রাম নিয়ে কাঁধের আঘাতপ্রাপ্ত পেশিকে আগের মতো শক্তিশালী জায়গায় নিয়ে আসতে হবে। চোট লেগেছে তাঁর থ্রোয়িং আর্মে। মাঠে নামার কথা তখনই ভাবা যাবে যখন তিনি দেখবেন থ্রো করতে গিয়ে বিন্দুমাত্র অস্বস্তিও আর হচ্ছে না।

এমনিতেই মাঠে তিনি ভীষণ ‘হাইপার’। মাঠে অসম্ভব তীব্রতা দেখান। প্রত্যেক বলে উইকেট চাই। প্রত্যেক ম্যাচ জিততে হবে, এমন মনোভাব। আহত কাঁধ নিয়ে ঝাঁপ দিয়ে দিলে কেলেঙ্কারি হতে পারে। জুনে ইংল্যান্ডে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। সেখানে তিনি শুধু দেশের সেরা ম্যাচউইনারই নন, ধোনির পরিবর্তে অধিনায়কত্বও করবেন। সেরা সম্পদকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে চায় না ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডও।

শেষ পর্যন্ত কোহালি যদি ৫ এপ্রিলের মধ্যে সম্পূর্ণ ফিট না হতে পারেন, দশম আইপিএলে ব্লকবাস্টার শুরু জোরাল ধাক্কা খেতে পারে। ফাইনালে উঠেও গত বার কোহালি-রা হেরে যান ডেভিড ওয়ার্নারের সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে। এ বার উদ্বোধনী ম্যাচটাই কোহালি বনাম ওয়ার্নার। মানে ফের কোহালি বনাম অস্ট্রেলিয়া। এই মুহূর্তে যা ক্রিকেট দুনিয়ার রক্তক্ষয়ী পানিপথের যুদ্ধের মতো হয়ে দাঁড়িয়েছে। কোহালি না থাকা মানে অনেকের আশঙ্কা, উদ্বোধনের টিআরপি না পড়ে যায়!

আরসিবি কর্তারা উৎকণ্ঠা নিয়ে তাকিয়ে রয়েছেন ভারতীয় বোর্ডের রিপোর্টের দিকে। দু’এক দিনের মধ্যেই বোর্ড থেকে কোহালির মেডিক্যাল রিপোর্ট আরসিবি-র কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। সেখানেই পরিষ্কার করে লেখা থাকবে, খেলার মতো অবস্থায় আসতে আর কত দিন লাগতে পারে। কোহালি না পারলে আরসিবি-র নেতৃত্ব দেবেন এ বি ডিভিলিয়ার্স ।

ইডেনে কোহালি-দর্শন নিয়ে অবশ্য আপাত ভাবে কোনও অনিশ্চয়তা নেই। কলকাতায় গৌতম গম্ভীরের নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে আরসিবি-র ম্যাচ ২৩ এপ্রিল। সেটা তাদের সপ্তম ম্যাচ। আনন্দ এবং আতঙ্ক তাই মিলেমিশে যাওয়ার কথা কলকাতার ক্রিকেটভক্তদের জন্য।

আরও পড়ুন

Advertisement