Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ভারতীয় দলের সবচেয়ে সিনিয়র ক্রিকেটার, তা সত্ত্বেও এঁকে নিয়েই সবচেয়ে বেশি মজা করা হয়!

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০২ ডিসেম্বর ২০১৯ ১২:২০
সিনিয়র হলেও ইশান্তকে নিয়েই দলে মজা করা হয় সবচেয়ে বেশি। ফাইল চিত্র।

সিনিয়র হলেও ইশান্তকে নিয়েই দলে মজা করা হয় সবচেয়ে বেশি। ফাইল চিত্র।

ভারতীয় পেস ব্যাটারিকে এখন বিশ্বের সেরার তকমা দিচ্ছেন অনেকেই। ইশান্ত শর্মা, মহম্মদ শামি, উমেশ যাদবরা রীতিমতো আগুন ঝরাচ্ছেন বাইশ গজে। চোটের জন্য এই মুহূর্তে খেলছেন না জশপ্রীত বুমরা। ভুবনেশ্বর কুমার আবার চোট সারিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে আসন্ন সিরিজে ফিরেছেন দলে।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সদ্যসমাপ্ত টেস্ট সিরিজে ভারতীয় পেসাররাই নিয়েছিলেন ৩৩ উইকেট। উমেশ, শামি ও ইশান্ত ইডেনে গোলপি বলের টেস্টে নিয়েছিলেন বিপক্ষের ২০ উইকেটই। দুই স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাডেজা কোনও উইকেট পাননি।

পেসারদের মধ্যে সবচেয়ে সিনিয়র ইশান্ত। ২০০৭ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল তাঁর। এখনও পর্যন্ত খেলেছেন ৯৬ টেস্ট। ৩২.৬৮ গড়ে নিয়েছেন ২৯২ উইকেট। স্ট্রাইক রেট ৬১.৬। ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিয়েছেন ১০বার। টেস্টে দশ উইকেট নিয়েছেন একবার। সদ্য ইডেনে গোলাপি বলের টেস্টে ৯ উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা হয়েছিলেন তিনি। তবে দলের সবচেয়ে সিনিয়র ক্রিকেটার হলেও ইশান্তকে নিয়েই নাকি মজা করা হয় সবচেয়ে বেশি।

Advertisement

আরও পড়ুন: অ্যাডিলেডে ব্যর্থ ইমাম-উল-হক, পাক ক্রিকেটারকে তীব্র কটাক্ষ করল আইসল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড​

আরও পড়ুন: জঘন্যতম বোলিং আক্রমণ! পাকিস্তানকে নিয়ে এই মন্তব্য কে করলেন জানেন?

ভারতীয় পেসারদের নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক নিয়ে বিরাট কোহালি বলেছেন, “এখনকার যে কোনও মজার সিনেমার সঙ্গে এই ক্রিকেটারদের কাণ্ডকারখানার তুলনা করা যায়। আমি তো বলব, এদের দেখলে আপনারা বরং বেশিই হাসবেন। তবে হ্যাঁ, একটু সেন্সর করে নিতে হবে আপনাদের।” আর ইশান্তকে নিয়ে সতীর্থ পেসারদের মজার ব্যাপারে ভারত অধিনায়ক বলেছেন, “ইশান্ত দলের সবচেয়ে সিনিয়র। কিন্তু সবচেয়ে বেশি ওর পিছনেই লাগা হয়। বুমরা খুব লাজুক, তবে খুব রসিক। ও ঠিক সময় মুখ খোলে। এই বিষয়ে ওর টাইমিং একেবারে পারফেক্ট। ভুবনেশ্বর কুমার আবার পুরো উত্তরপ্রদেশ ঘরানার। সবসময় মজা করে চলেছে। শামিও এদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলে। উমেশও তাই। উমেশও পিছনে লাগে ইশান্তের।”

আরও পড়ুন

Advertisement