• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নবান্ন অভিযান নিয়ে দ্বন্দ্ব যুব বিজেপিতে

BJP
ছবি: সংগৃহীত।

ফের রাজ্য বিজেপির যুব মোর্চার দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে। আগামী ৮ অক্টোবর যুব মোর্চার নবান্ন অভিযান কর্মসূচির রাশ কার হাতে থাকবে, এ বার মতান্তর তাই নিয়ে। 

ওই কর্মসূচির জন্য সংগঠনের দুই সহ-সভাপতি তাপস ঘোষ এবং রাজু সরকারকে আহ্বায়ক করা হয়েছে। এ দিকে যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ দাস সংগঠনের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে লেখেন, ওই কর্মসূচির প্রস্তুতির বিষয়ে তাঁকে এবং আর এক সাধারণ সম্পাদক গোবিন্দ রায়কে জানাতে হবে। তার জবাবে যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি সৌমিত্র খান ওই গ্রুপেই লেখেন, জেলা সভাপতিদের নবান্ন অভিযানের প্রস্তুতির বিষয়ে যাবতীয় তথ্য তাপস এবং রাজুকেই জানাতে হবে। এই ঘটনা থেকে ফের সৌমিত্রের সঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ঘনিষ্ঠ প্রকাশের দ্বন্দ্ব সামনে এসেছে। এর আগে জেলা সভাপতির তালিকা ঘোষণা নিয়ে দিলীপবাবুর সঙ্গে সৌমিত্রের মতান্তর হয়। ওই তালিকা প্রকাশ করেও দিলীপবাবুর নির্দেশে তা তুলে নিতে হয় সৌমিত্রকে। তার পরে যুব মোর্চার রাজ্য পদাধিকারীর তালিকা বেরনোর পর থেকেই প্রকাশকে নিয়ে দিলীপবাবু এবং সৌমিত্রর মতান্তর চর্চার বিষয় হয়েছে। 

বিজেপি সূত্রের খবর, রাজ্য দলের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়ও প্রকাশকে যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক ‌পদ থেকে সরাতে চেয়েছিলেন। যদিও প্রকাশ এখনও সেই ‌পদেই আছেন। হোয়াটসঅ্যাপ-দ্বন্দ্ব নিয়ে প্রশ্নের জবাবে শুক্রবার সৌমিত্র বলেন, ‘‘ছোট বিষয়। আমাদের দলে সাধারণ সম্পাদককে রিপোর্ট করার রেওয়াজ আছে। তবে নবান্ন অভিযানের ক্ষেত্রে ওই কর্মসূচির দায়িত্বপ্রাপ্ত দুই আহ্বায়ককেও রিপোর্ট করতে হবে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন