Advertisement
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
Queen Elizabeth II Death

বার বার বিতর্কের অভিঘাত, কেচ্ছা! লোকচক্ষু এড়াতে রানির ভরসা ছিল যে যে বিলাসবহুল রাজপ্রাসাদ

মাঝেমধ্যেই রানিকে দেখা যেত লন্ডনের বাসস্থান ছেড়ে অন্য জায়গার রাজপ্রাসাদে চলে যেতে। হাজার হাজার একরের উপর তৈরি সে সব প্রাসাদে অভাব নেই বিলাসব্যসনের। পর্যটকরাও ঘুরে দেখতে পারেন।

রানির প্রাসাদে ঘুরতে যাবেন?

রানির প্রাসাদে ঘুরতে যাবেন? ছবি: সংগৃহীত

সংবাদ সংস্থা
লন্ডন শেষ আপডেট: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৪:১০
Share: Save:

পুত্রবধূ ডায়ানার সঙ্গে ছেলে চার্লসের বিচ্ছেদ থেকে নাতি হ্যারির স্ত্রী মেগানের তোলা বর্ণবৈষম্যের অভিযোগ— সাত দশকের রাজত্বকালে কম বিতর্ক দেখেননি ইংল্যান্ডের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। কিন্তু হাজার বিতর্কের মাঝেও গোটা জীবনে এক বারও সংবাদমাধমে মুখ খোলেননি রানি। বিতর্কের মাঝে সংবাদমাধ্যমের নজর এড়াতে বহু বার রানিকে দেখা গিয়েছে রাজপরিবারের সদস্যদের সঙ্গে বিভিন্ন রাজপ্রাসাদে চলে যেতে। হাজার হাজার একরের উপর তৈরি সে সব প্রাসাদে অভাব নেই বিলাসব্যসনের।

বাকিংহাম প্রাসাদ

বাকিংহাম প্রাসাদ

বাকিংহাম প্রাসাদ

লন্ডনের এই প্রাসাদ তৈরি ১৭০৩ সালে। ১৮৩৭ সালে সরকারি ভাবে এই প্রাসাদে রাজপরিবারের থাকার ব্যবস্থা করা হয়। ৭৭৫টি ঘর রয়েছে এই প্রাসাদে। কর্মচারীদের থাকার জন্য রয়েছে ১৮৮টি ঘর, ৯২টি অফিসঘর ও ৭৮টি বাথরুম। ডিসেম্বর-জানুয়ারি মাসে ও ইস্টারের দিন এই প্রাসাদের একাংশ পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়।

উড ফার্ম

উড ফার্ম ছবি: সংগৃহীত

উড ফার্ম

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ ও রাজা ফিলিপের শীতকালীন নিবাস ছিল এই প্রাসাদ। ২০১৭ সালে অবসর গ্রহণের পর থেকে এখানেই থাকতেন ফিলিপ। লাল ইট ও সুরকির তৈরি এই প্রাসাদ প্রায় ২০ হাজার একরের উপর তৈরি। বন্দুক রাখার জায়গা, বোলিং করার জায়গা থেকে চুল কাটার নিজস্ব সালোঁ— কোনও কিছুরই অভাব নেই এই প্রাসাদের ভিতর। এখন এই প্রাসাদের উদ্যানের মধ্যেই থাকা একটি বাগানবাড়ি ভাড়া পাওয়া যায়। এয়ারবিএনবিতে বুক করে নিলে সেখানে থাকতে পারেন পর্যটকরা।

উইন্ডসর কেল্লা

উইন্ডসর কেল্লা ছবি: সংগৃহীত

উইন্ডসর কেল্লা

ইংল্যান্ডের বার্কশায়ার কাউন্টির এই কেল্লাটি ব্রিটেনের রাজপরিবারের ‘গ্রামের বাড়ি’। কেল্লাটি প্রায় হাজার বছরের প্রাচীন। বেশির ভাগ ছুটির দিনেই সপরিবার এখানে থাকতেন রানি। কেল্লায় রয়েছে এক হাজার ঘর। এটিই বর্তমানে পৃথিবীর বৃহত্তম বসবাসযোগ্য কেল্লা। প্রায় সারা বছরই কেল্লার বিশেষ কিছু অংশ ঘুরে দেখা যায়। মঙ্গল ও বুধবার বন্ধ থাকে কেল্লা।

বালমোরাল কেল্লা

বালমোরাল কেল্লা ছবি: সংগৃহীত

বালমোরাল কেল্লা

রাজপরিবারের অন্য প্রাসাদগুলি সরকারি সম্পত্তি। স্কটল্যান্ডের এই কেল্লাটি সেই অর্থে ব্যতিক্রমী। এটি ব্রিটেনের রাজপরিবারের ব্যক্তিগত প্রাসাদ। রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ অনেকের মতে, এখানে থাকতেই সবচেয়ে পছন্দ করতেন রানি। গত ২৪ জুলাই এখানে আসেন রানি। শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন এখানেই। ডি নদীর ধারে প্রায় ৫০ হাজার একরের উপর কেল্লা ছাড়াও রয়েছে প্রায় ১৫০টি বাড়ি। প্রায় সবগুলিই কেল্লার কর্মচারীদের জন্য নির্মিত। প্রতি বছর সাধারণত ৩০ মার্চ থেকে ৩১ জুলাই পর্যটকদের জন্য আংশিক খুলে দেওয়া হয় কেল্লাটি।

এই প্রাসাদগুলি ছাড়াও রিচমন্ড, কেনসিঙটন, এডিনবরা ও হিলসবরোর মতো বেশ কিছু জায়গায় রয়েছে রাজপরিবারের প্রাসাদ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.