Advertisement
০২ মার্চ ২০২৪
Agnimitra Paul vs Bratya Basu in Vidhan Sabha

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইংরেজিতে প্রশ্ন পদ্মের অগ্নিমিত্রার, শুনে ধন্যবাদ-কটাক্ষ ব্রাত্যের

প্রশ্নোত্তর পর্বের মধ্যেই শুরু হয় শাসকদল এবং বিরোধী বিজেপির বিধায়কদের কথা কাটাকাটি। শাসকদলের মন্ত্রী এবং বিধায়কদের শিক্ষা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন পদ্ম বিধায়ক।

Agnimitra Pal was given thanks by Bratya Basu for Asking question in English on international mother language day.

মাতৃভাষা দিবসে বসেছিল বিধানসভার অধিবেশন। প্রশ্নোত্তর পর্বে প্রশ্ন করেন বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল। পাল্টা জবাব দেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১৩:১৯
Share: Save:

ভাষা দিবসে বাংলার শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর বিশেষ ‘ধন্যবাদ’ পেলেন বিরোধী বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল। যদিও তাতে খুশি হওয়ার বদলে বিধানসভার অধিবেশনের মাঝেই শুরু হল বিরোধী এবং শাসকদলের কথা কাটাকাটি, অশান্তি। চলল ব্রাত্য-অগ্নিমিত্রার ছোট্ট বাগ্‌যুদ্ধও।

মাতৃভাষা দিবসের সকালেই বসেছিল বিধানসভার অধিবেশন। নানা আলোচনার শেষে প্রশ্নোত্তর পর্বে নিজের প্রশ্ন করতে ওঠেন আসানসোল দক্ষিণের বিধায়ক বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা। প্রশ্নটি ছিল বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষা নিয়ে। যদিও প্রশ্নটি বিধানসভা কক্ষে দাঁড়িয়ে ইংরেজিতে করেন অগ্নিমিত্রা। আর প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই তার জবাব আসে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্যের। পদ্ম বিধায়ককে মাতৃভাষা দিবসে ইংরেজিতে কথা বলার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ব্রাত্য। বলেন, ‘‘মাননীয়া বিধায়িকাকে ধন্যবাদ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইংরাজিতে প্রশ্ন করার জন্য।’’ ব্রাত্যের সেই মন্তব্যেই শুরু হয় শাসক-বিরোধীদের বাদানুবাদ।

প্রশ্নোত্তর পর্বের মধ্যে শুরু হয় শাসকদল এবং বিরোধী বিজেপির বিধায়কদের কথা কাটাকাটি। অগ্নিমিত্রা স্বপক্ষ সমর্থনে বলেন, ‘‘আমি দশ দিন আগে প্রশ্ন জমা দিয়েছি। বিধানসভায় যদি ইংরেজিতে প্রশ্ন করা না যায়, তবে তখনই বলে দিতে পারতেন। কিন্তু আমাকে এমন কিছু বলা হয়নি।’’

এ প্রসঙ্গে বছর পাঁচেক আগে দাড়িভিটের ঘটনার প্রসঙ্গও টেনে আনেন অগ্নিমিত্রা। তিনি বলেন, ‘‘দাড়িভিটের তাপসরা বাংলা ভাষা নিয়ে আন্দোলন করেছিল। ওদের মৃত্যুর বিচার হয়নি এখনও। এ দিকে বিধানসভায় সামান্য একটি প্রশ্ন বাংলায় না করার জন্য কটাক্ষ করা হচ্ছে।’’

২০১৮ সালের ২০ সেপ্টেম্বর উত্তর দিনাজপুরের দাড়িভিট হাইস্কুলে গুলিচালনার ঘটনায় মৃত্যু হয় স্কুলের দুই প্রাক্তন ছাত্র তাপস বর্মণ এবং রাজেশ সরকারের। অভিযোগ ছিল, স্কুলে বাংলা শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে আন্দোলন করছিলেন ওই ছাত্ররা। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষেই তাঁদের মৃত্যু হয়। সেই ঘটনার পর থেকে প্রতি বছর ২০ সেপ্টেম্বর দাড়িভিটে স্মরণ সভা করে বিজেপি। এমনকি, সেখানে শহিদবেদি স্থাপন করে মাঝে সামাজিক মাধ্যমে ২০ সেপ্টেম্বরকে পশ্চিমবঙ্গ মাতৃভাষা দিবস হিসাবে পালন করার দাবিও তুলেছিল বিজেপি।

২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ইংরেজিতে প্রশ্ন করার পর মঙ্গলবার ক্ষুব্ধ পদ্মনেত্রী পাল্টা প্রশ্ন তুলেছেন শাসকদলের বিধায়কদের ইংরেজি শিক্ষা নিয়ে। বিধানসভার বাইরে অগ্নিমিত্রাকে এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘‘সম্ভবত শাসকদলের বিধায়কদের ইংরেজি ভাষা বোঝার ক্ষমতা নেই। তাই তাঁদের এত আপত্তি।’’

তবে অগ্নিমিত্রার অভিযোগ নিয়ে ব্রাত্যকে প্রশ্ন করা হলে শিক্ষামন্ত্রী জবাব দেন একটি বাক্যে। তিনি বলেন, ‘‘আমি তো শুধু ধন্যবাদই দিয়েছিলাম।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE