Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ম্যানগ্রোভ কেটে মেছোভেড়ি, ধৃত ৩

নিজস্ব সংবাদদাতা
বাসন্তী ১৮ নভেম্বর ২০২০ ০৬:৩৮
ম্যানগ্রোভ কাটা হচ্ছে। বাসন্তীতে। ছবি: প্রসেনজিৎ সাহা

ম্যানগ্রোভ কাটা হচ্ছে। বাসন্তীতে। ছবি: প্রসেনজিৎ সাহা

একশো দিনের কাজের প্রকল্পে নদীবাঁধে মাটি দেওয়ার নাম করে কিছু লোক ম্যানগ্রোভ কাটছিল বলে অভিযোগ। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে তিনজনকে গ্রেফতার করে। আটক করা হয়েছে একটি মাটি কাটার যন্ত্র।

সোমবার বিকেলে বাসন্তী থানার মসজিদবাটি পঞ্চায়েতের কামারডাঙা এলাকায় ঘটনা। খবর পেয়ে বাসন্তী থানার আইসি ও বাসন্তীর বিডিও ঘটনাস্থলে যান। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, পঞ্চায়েতের তরফ থেকে একশো দিনের কাজের প্রকল্পে এই কাজ হচ্ছে বলে প্রথমে পুলিশকে জানায় অভিযুক্তেরা। বিষয়টি আদতে কতটা সত্যি, তা জানতে বাসন্তীর বিডিওকে ঘটনাস্থলে আসার অনুরোধ করে পুলিশ। বিডিও সৌগত সাহা আসেন। দেখা যায়, বেশ কয়েকজন মিলে মাটি কাটার যন্ত্র দিয়ে একটি বড় এলাকাজুড়ে ম্যানগ্রোভ কেটে ভেড়ি তৈরি করছে। ঘটনাস্থল থেকেই দুর্গাপদ সর্দার, মারুফ মিদ্দে ও রবিন সর্দারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রজু করা হয়েছে। পাশাপাশি বন সংরক্ষণ আইনেও মামলা হয়েছে। এই ঘটনায় আর কে বা কারা জড়িত, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

দীর্ঘ দিন ধরে বাসন্তীর কুমিরমারি, আনন্দাবাদ মৌজাতেও ম্যানগ্রোভ ধ্বংস করে ভেড়ি তৈরির কাজ চলছে বলে অভিযোগ। মাটি কাটার যন্ত্র লাগিয়ে হোগল নদীর চরের ১৪০০ বিঘা ম্যানগ্রোভের জঙ্গল কেটে মেছো ভেড়ি তৈরি হচ্ছিল বাসন্তীর আনন্দাবাদ ও কুমিরমারি মৌজায়। একাধিকবার প্রশাসনকে জানিয়েও লাভ হয়নি বলে অভিযোগ। অবশেষে অক্টোবর মাসে উচ্চ আদালতে এ নিয়ে জনস্বার্থ মামলা করেন বাসন্তীর বাসিন্দা কামাল পৈলান। সেই মামলার শুনানি হয় হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে। শুনানিতে ম্যানগ্রোভ ধ্বংসের কথা জেনে ক্ষোভ প্রকাশ করেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি। ভর্ৎসনা করেন অ্যাডভোকেট জেনারেলকে। এ বিষয়ে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারপতি।

Advertisement

স্থানীয় বাসিন্দারা জানাচ্ছেন, ঘটনার পরে ওই এলাকায় নতুন করে ভেড়ি তৈরি না হলেও বিস্তীর্ণ ওই এলাকাকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ চোখে পড়েনি প্রশাসনের তরফে।

কামারডাঙায় মাটির বাঁধ দিয়ে যে ভেড়ি তৈরি করা হয়েছিল সেগুলি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। বিডিও বলেন, “কোনও ভাবেই এই বেআইনি কাজ মেনে নেওয়া হবে না। ওই জমিকে পুরনো অবস্থায় ফিরিয়ে দেওয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। দ্রুত ওই এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত ম্যানগ্রোভের পুনরুদ্ধারের জন্য প্রচুর ম্যানগ্রোভ নতুন করে লাগানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।” বারুইপুর পুলিশ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইন্দ্রজিৎ বসু বলেন, “ম্যানগ্রোভ কেটে ভেড়ি তৈরির খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত গিয়ে ব্যবস্থা নিয়েছে। ধৃতদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।”

আরও পড়ুন

Advertisement