Advertisement
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২
Railway station

লোকাল ট্রেনের দাবিতে বিক্ষোভ, ধুন্ধুমার মল্লিকপুর স্টেশন, ভাঙচুর পুলিশের গাড়ি

বুধবারের পর বৃহস্পতিবারের বিক্ষোভ ঘিরে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়েছে মল্লিকপুর স্টেশন সংলগ্ন এলাকায়। বিক্ষোভকারীরা তাড়া করে পুলিশকে।

লোকাল ট্রেন চালানোর দাবিতে বিক্ষোভ।

লোকাল ট্রেন চালানোর দাবিতে বিক্ষোভ। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বারুইপুর শেষ আপডেট: ২৪ জুন ২০২১ ১০:৩৫
Share: Save:

সকলের জন্য লোকাল ট্রেন চালুর দাবিতে বিক্ষোভে উত্তাল হল শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখা। বুধবারের পর বৃহস্পতিবারের বিক্ষোভ ঘিরে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়েছে মল্লিকপুর স্টেশন সংলগ্ন এলাকায়। বিক্ষোভ ওঠাতে গেলে বিক্ষোভকারীরা তাড়া করে পুলিশকে। ভাঙচুর করা হয় পুলিশের গাড়িও। সংবাদমাধ্যমের কর্মীদেরও উপরও চড়াও হওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে।

দেড় মাসেরও বেশি সময় ধরে রাজ্যে বন্ধ রয়েছে লোকাল ট্রেন-সহ অন্যান্য গণপরিবহন। যার জেরে গ্রাম এবং শহরতলির মানুষের যাতায়াত এক প্রকার বন্ধ রয়েছে। যা প্রভাব ফেলেছে সাধারণ মানুষের রোজগারে। স্টাফ স্পেশ্যাল কিছু ট্রেন চললেও সেখানে উঠতে পারছেন না সাধারণ মানুষ। তাই সকলের জন্য লোকাল ট্রেন চালু করা নিয়ে বুধবার ঘণ্টা চারেক বিক্ষোভ হয়েছিল শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখার সোনারপুর স্টেশনে। বৃহ্স্পতিবার সকাল সাড়ে ৬টা নাগাদ বিক্ষোভ শুরু হয় সোনারপুরে। কিন্তু কিছুক্ষণ পরই রেলপুলিশ হঠিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীদের। এর পর মল্লিকপুর স্টেশনে শুরু হয় রেললাইন বিক্ষোভ। বড় অংশের জনতা রেললাইন অবরোধ করে ট্রেন চালুর দাবি জানাতে থাকেন। এর জেরে যে সব স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেন চলছিল, সে গুলিও আটকে পড়ে।

ঘটনাস্থলে রেল পুলিশ পৌঁছলে তাঁদের ঘিরে ধরেন বিক্ষোভকারীরা। বারুইপুর থানা থেকে পুলিশের একটি দল যায় ঘটনাস্থলে। তখন উত্তেজিত জনতা তেড়ে যান পুলিশের দিকে। ভাঙচুর করা হয় পুলিশের গাড়িও। শেষ পাওয়া খবর অনুসারে, শিয়ালদহের ওই শাখায় এখনও চলছে বিক্ষোভ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.