Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

হস্টেলে রাতভর ঘেরাও

জল, আলো বন্ধ করে ঘেরাও করা হল হস্টেলের আধিকারিক, সাফাই কর্মী, নিরাপত্তা কর্মীদের। রাতে খাবারও দেওয়া হয়নি তাঁদের। পরে কয়েকজন অসুস্থ হয়ে পড়লে

নিজস্ব সংবাদদাতা
দেগঙ্গা ২৯ এপ্রিল ২০১৭ ০৩:০৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
ক্ষোভ: তখনও চলছে ঘেরাও। ছবি: সজলকুমার চট্টোপাধ্যায়

ক্ষোভ: তখনও চলছে ঘেরাও। ছবি: সজলকুমার চট্টোপাধ্যায়

Popup Close

জল, আলো বন্ধ করে ঘেরাও করা হল হস্টেলের আধিকারিক, সাফাই কর্মী, নিরাপত্তা কর্মীদের। রাতে খাবারও দেওয়া হয়নি তাঁদের। পরে কয়েকজন অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁদের স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত এই পরিস্থিতি চলেছে বেড়াচাঁপার আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু পলিটেকনিক কলেজে ছাত্রীদের হস্টেলে। বিদ্যুৎ পরিষেবা, পানীয় জল সরবরাহ, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা নিয়ে নানা অভিযোগ আছে ছাত্রীদের। এ সব নিয়ে মুখ খুলতে গেলে তাঁদের সঙ্গে অশালীন আচরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ। যার প্রতিবাদে অধ্যক্ষের পদত্যাগ দাবি করেন তাঁরা।

জনা তিরিশেক ছাত্রী থাকেন হস্টেলে। পল্লবী জড় নামে দ্বিতীয় বর্ষের এক ছাত্রী বলেন, ‘‘হস্টেলে ঠিকঠাক আলো নেই, খাওয়ার জল নেই।’’ শিউলি পাথার নামে এক ছাত্রী জানান, বাথরুম পরিষ্কার না হওয়ায় দুর্গন্ধ বেরোয়। রাতে নিরাপত্তা রক্ষীর দেখা মেলে না। বারবার অভিযোগ জানিয়েও কাজ হয়নি। বৃহস্পতিবার বিকেলে কলেজের অধ্যক্ষ গৌরহরি বিশ্বাস ও হস্টেলের সুপারের দায়িত্বে থাকা রজত দে হস্টেলে ঢুকে মেয়েদের সঙ্গে অশালীন ব্যবহার করেন বলে অভিযোগ। পূর্ণিমা রায় এক প্রতিবন্ধী ছাত্রী জানান, হস্টেলের মেন্টর সেরিনা খাতুন তাঁদের গালিগালাজ করেছেন।

Advertisement

সেরিনার অবশ্য দাবি, ‘‘সরকারি নির্দেশও মানতে চান না ছাত্রীরা। ওঁদের কথায় রাজি না হওয়ায় ঘরে আটকে রেখে আলো-জল বন্ধ করে দিয়েছিল ছাত্রীরা। সারা রাত না খেয়ে আমরা অসুস্থ হয়ে পড়ি।’’ শুক্রবার কলেজ অধ্যক্ষ ও শিক্ষকেরা তাঁদের উদ্ধার করে বিশ্বনাথপুর ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ গৌরহরি বিশ্বাস বলেন, ‘‘বহিরাগত কিছু লোক কলেজের প্রশাসনিক ক্ষমতা কেড়ে নিতে চাইছে। উপর মহলে বিষয়টি জানাব।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement