Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

দীর্ঘ প্রক্রিয়া, কথা হয়েছে অমিত শাহের সঙ্গে, সিএএ নিয়ে ধৈর্য ধরার পক্ষে শান্তনু

নিজস্ব সংবাদদাতা
বনগাঁ ১৯ অগস্ট ২০২১ ১৭:৫৮
শান্তনু ঠাকুর।

শান্তনু ঠাকুর।
ফাইল চিত্র

রাজ্যে বিধানসভা ভোটের আগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ)-এর বাস্তবায়ন নিয়ে অধীর হয়ে উঠেছিলেন। তবে এখন সিএএ নিয়ে ধৈর্য ধরার পক্ষেই বার্তা দিচ্ছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বনগাঁর বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। তাঁর বক্তব্য, এটা একটা দীর্ঘ প্রক্রিয়া। আগামিদিনে সিএএ অবশ্যই কার্যকর হবে বলে দাবি করেছেন তিনি। বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন শান্তনু।

বৃহস্পতিবার শান্তনু যান গাইঘাটার জলেশ্বর শিব মন্দিরে পুজো দিতে। সেখানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সিএএ কার্যকর করা নিয়ে তিনি বলেন, ‘‘এটা একটা দীর্ঘ প্রক্রিয়া। আগামিদিনে অবশ্যই হবে। আমার সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বহু বার কথা হয়েছে। এটা অবশ্যই হবে। কিন্তু যে হেতু দীর্ঘ প্রক্রিয়া তাই এর নিয়ম নীতি তৈরি করার বিষয় রয়েছে তার কাজ চলছে।’’ বিষয়টি নিয়ে কটাক্ষ করেছে তৃণমূল। এ নিয়ে বনগাঁর তৃণমূল নেতা চেয়ারম্যান শঙ্কর দত্ত বলেন, ‘‘বিজেপি যে প্রথম থেকেই ভাঁওতা দিয়ে আসছে সেটা আমরা আগে বহু বার বলেছি। ভোটের আগে মানুষকে এ সব ভাঁওতা দিয়ে, ধাপ্পা দিয়ে বিভ্রান্ত করেছে। এখনও করে চলেছে।’’

সম্প্রতি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই জানান, সিএএ-এর নিয়মনীতি পরিমার্জনের কোনও পরিকল্পনা নেই কেন্দ্রের। রাজ্যসভার কাছে সিএএ সংক্রান্ত নিয়মনীতি নির্ধারণ এবং বাস্তবায়নের জন্য ২০২২-এর ৯ জানুয়ারি পর্যন্ত সময়ও চেয়ে নেন তিনি। অথচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে সিএএ নিয়ে মন্থন চলছিল মতুয়া সমাজে। এমনকি দলের গড়িমসি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন স্বয়ং শান্তনুও। যদিও তখন তিনি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হননি। গত জুলাই মাসে জাহাজ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয় তাঁকে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement