Advertisement
২৯ জানুয়ারি ২০২৩
Local News

চম্পাহাটিতে রেল লাইন পার হতে গিয়ে দুর্ঘটনা, মৃত ভাই, বোন-সহ ৩

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চম্পাহাটি রেল স্টেশনের কাছে পাইকারি মাছ ও সব্জির বাজার বসে প্রতিদিনই। সেই বাজারেই যাচ্ছিলেন ওই তিন জন। সকাল তখন ৬টা বেজে ৪০ মিনিট। সবে আপ লাইন পেরিয়ে ডাউন লাইনের বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন তাঁরা।

এখানেই দুর্ঘটনাটি ঘটে। পড়ে আছে মাছের ঝুড়ি। ছবি: শশাঙ্ক মণ্ডল।

এখানেই দুর্ঘটনাটি ঘটে। পড়ে আছে মাছের ঝুড়ি। ছবি: শশাঙ্ক মণ্ডল।

নিজস্ব সংবাদদাতা
চম্পাহাটি শেষ আপডেট: ০২ জুলাই ২০১৭ ১৪:৩২
Share: Save:

রেললাইন পার হতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হল তিন জনের। রবিবার সকালে ঘটনাটি ঘটে শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখায় ক্যানিং লাইনে দক্ষিণ ২৪ পরগনার চম্পাহাটি স্টেশনের কাছে। মৃতদের মধ্যে দু’জনকে পিন্টু মণ্ডল ও মামণি মণ্ডল বলে সনাক্ত করেছেন স্থানীয়েরা। ভাঙড়ের তারদহ গ্রামের বাসিন্দা পিন্টু ও মামণি ভাই-বোন। এই ঘটনায় আরও এক ব্যবসায়ী গুরুতর জখম হন। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তাঁরও মৃত্যু হয়।

Advertisement

আরও পড়ুন: হাসপাতাল চত্বরে বাজল ব্যান্ড

কী ভাবে ঘটল দুর্ঘটনা?

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চম্পাহাটি রেল স্টেশনের কাছে পাইকারি মাছ ও সব্জির বাজার বসে প্রতিদিনই। সেই বাজারেই যাচ্ছিলেন ওই তিন জন। সকাল তখন ৬টা বেজে ৪০ মিনিট। সবে আপ লাইন পেরিয়ে ডাউন লাইনের বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন তাঁরা। সে সময়ই ডাউন লাইনে ট্রেন আসছে দেখে তাঁরা ফের আপ লাইনের দিকে পিছিয়ে আসেন। তখনই আপ লাইনে শিয়ালদহগামী একটি ট্রেন এসে পড়ে। ট্রেনের ধাক্কায় লাইনের দু’ধারে ছিটকে পড়েন তিন জন। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় পিন্টু ও মামণির। গুরুতর জখম অবস্থায় আহত ব্যবসায়ীকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিতসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

Advertisement

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, আরপিএফ এবং জিআরপি-র গাফিলতিতেই ঘটেছে এই দুর্ঘটনা। আগামী দিনে বিষয়টিকে গুরুত্ব না দিলে আরও বড় দুর্ঘটনা ঘটবে। তাঁদের আরও অভিযোগ, রেল লাইনের পাশ দিয়ে রাস্তা থাকলেও সেটা ভেরবেলা থেকেই মাছ ও সব্জি বিক্রেতাদের দখলে চলে যায়। ফলে ওই রাস্তা দিয়ে চলাচল করা মুশকিল হয়ে ওঠে। এক প্রকার বাধ্য হয়েই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রেললাইন ধরে স্টেশনে যেতে হয়। এ বিষয়ে রেল কর্তৃপক্ষকে বার বার অভিযোগ জানিয়েও কোনও কাজ হয়নি বলেও জানান তাঁরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.