×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৮ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

নোদাখালিতে প্রকাশ্য রাস্তায় গুলিবিদ্ধ তৃণমূলের যুবনেতা, কলকাতায় চলছে চিকিৎসা

নিজস্ব সংবাদদাতা
ডায়মন্ড হারবার ১৭ মে ২০২১ ১৩:৫১
গুলিবিদ্ধ তৃণমূল নেতা কৃষ্ণপদ মণ্ডল।

গুলিবিদ্ধ তৃণমূল নেতা কৃষ্ণপদ মণ্ডল।
নিজস্ব চিত্র।

বাজার করতে বেরিয়ে সোমবার সকালে গুলিবিদ্ধ হলেন তৃণমূল যুবনেতা। প্রকাশ্য রাস্তায় তাঁকে লক্ষ্য করে বিজেপি-র দুষ্কৃতীরা গুলি চালায় বলে অভিযোগ তৃণমূলের। যদিও অভিযোগ মানতে নারাজ বিজেপি। ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার নোদাখালি থানার ডোঙারিয়া মোড়ের কাছে। গুলিবিদ্ধ তৃণমূল নেতা কৃষ্ণপদ মণ্ডল গুরুতর জখম অবস্থায় বর্তমানে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে নোদাখালি থানার পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অন্য দিনের মতোই সোমবার সকাল ৭টা নাগাদ ডোঙাড়িয়া মোড়ে বাজার করতে গিয়েছিলেন দক্ষিণ রায়পুর অঞ্চলের তৃণমূল যুব সভাপতি কৃষ্ণপদ মণ্ডল। সেই সময় আচমকা কাঁধে ব্যাগ নিয়ে এক দুষ্কৃতী এসে তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। যদিও গুলিটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে কৃষ্ণর পিঠের দিকে লাগে। গুলিবিদ্ধ তৃণমূল নেতার চিৎকার শুনে স্থানীয় বাসিন্দারা ছুটে এলে এলাকা ছেড়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতী। স্থানীয়রাই রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় তাঁকে।

ঘটনাস্থলের কাছে থাকা সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। এলাকায় চাপা উত্তেজনা থাকায় পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। তৃণমূলের জেলা পরিষদের সদস্য শেখ বাপি বলেছেন, ‘‘এলাকায় সন্ত্রাস ছড়াতে বিজেপির দুষ্কৃতীরা আমাদের যুবনেতাকে গুলি করেছে। আমরা চাই, পুলিশ ব্যবস্থা নিক।’’ তৃণমূলের অভিযোগ মানতে নারাজ বিজেপি। ডায়মন্ড হারবার সাংগঠনিক জেলার বিজেপি-র সভাপতি সুফল ঘাটু বলেছেন, ‘‘এলাকার দখল নিয়ে ২ গোষ্ঠীর বিবাদের জেরেই গুলিবিদ্ধ হয়েছেন ওই তৃণমূল নেতা। অথচ আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ করছে তৃণমূল।’’

Advertisement
Advertisement