×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকে আমন্ত্রণ অধীরের

নিজস্ব সংবাদদাতা
বহরমপুর২১ নভেম্বর ২০১৯ ০৪:২১
মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকে অধীর চৌধুরীকে আমন্ত্রণ। —ফাইল চিত্র

মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকে অধীর চৌধুরীকে আমন্ত্রণ। —ফাইল চিত্র

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশাসনিক বৈঠকে অবশেষে ডাক পেলেন বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরী। বুধবার বহরমপুর রবীন্দ্রসদনে মুখ্যমন্ত্রী প্রশাসনিক বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে হাজির থাকার জন্য অধীরকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। এত দিন অবশ্য মুখ্যমন্ত্রীর কোনও বৈঠকে ডাক পাননি বিরোধী রাজনৈতিক দলের জনপ্রতিনিধিরা। তা নিয়ে বিভিন্ন সময়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিরোধী দলের জনপ্রতিনিধিরা। এর আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশাসনিক বৈঠক করতে মুর্শিদাবাদে যত বার এসেছেন, কোনও বারই ডাকা হয়নি বিরোধী রাজনৈতিক দলের জনপ্রতিনিধিদের। যদিও দিল্লিতে থাকায় অধীর এ দিনের মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকে থাকতে পারেননি তিনি।

অধীর বলছেন, ‘‘১৯ নভেম্বর রাতে মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকের জন্য জেলাশাসকের তরফে আমন্ত্রণ জানানো হয়। কিন্তু আমি দিল্লিতে থাকায় ওই বৈঠকে যেতে না পারার কথাও জানিয়ে দিয়েছি।’’ অধীর বলেন “এটাই স্বাভাবিক। ভারতের প্রধানমন্ত্রীও আমাদের ডেকে আলোচনা করেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কেন ডাকবেন না তা হলে? যে জেলায় মুখ্যমন্ত্রী প্রশাসনিক বৈঠক করবেন, সেখানে নিজের দলের বিধায়ক-সাংসদদের পাশাপাশি বিরোধী দলের জনপ্রতিনিধিদের ডাকবেন শুধু নয়, বিরোধী দলের জনপ্রতিনিধিরাও সেই সভায় ডাক পাবেন। গণতান্ত্রিক পরিকাঠামোয় এটাই স্বাভাবিক নিয়ম। না ডাকাটাই অস্বাভাবিক। তবে সাত দিন আগে মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকের আমন্ত্রণ পেলে হাজির থাকার চেষ্টা করতাম।’’

Advertisement
Advertisement