Advertisement
২৪ জুন ২০২৪
DA

অনুমতি প্রত্যাহার করেছে সেনা, খোলা হল ডিএর ধর্না মঞ্চ, রাজ্যের ‘চক্রান্ত’ দেখছেন আন্দোলনকারীরা

বকেয়া ডিএ-র দাবিতে ধর্মতলার শহিদ মিনার চত্বরে প্রায় এক বছরের বেশি সময় ধরে ধর্না কর্মসূচি করছে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের সংগঠন সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ। গত ১৬ দিন ধরে তারা অনশন করছে।

A photograph of DA protester.

সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের সাংবাদিক বৈঠক। নিজস্ব চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৮:০৮
Share: Save:

মহার্ঘ ভাতা বা ডিএ-র দাবিতে কলকাতার ধর্মতলায় চলা রাজ্য সরকারি কর্মচারী সংগঠনের ধর্না মঞ্চ জোর করে খুলে দেওয়ার অভিযোগ উঠল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে চক্রান্তের অভিযোগ আন্দোলনকারীদের। তাঁদের অভিযোগ, ধর্না মঞ্চ খুলে দেওয়ার পিছনে পুলিশ ও মুখ্যমন্ত্রীর চক্রান্ত রয়েছে। মঞ্চ খুলে দিলেও খোলা আকাশের নীচে ধর্না কর্মসূচি চলবে বলে তাঁরা জানান। যদিও ওই সংগঠনের দাবি অস্বীকার করেছে তৃণমূল। তাদের বক্তব্য, সেনার জায়গায় রাজ্যের কোনও হাত নেই। অসত্য অভিযোগ তোলা হচ্ছে।

বকেয়া ডিএ-র দাবিতে ধর্মতলার শহিদ মিনার চত্বরে প্রায় এক বছরের বেশি সময় ধরে ধর্না কর্মসূচি করছে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের সংগঠন সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ। শনিবার সেনার তরফে ওই জায়গা থেকে ধর্না কর্মসূচি তুলে নিতে বলা হয়। সেই মতো রবিবার সকালে ধর্না মঞ্চ খুলে দেওয়ার কাজ শুরু হয়ে যায়। এর ফলে ক্ষোভে ফেটে পড়েন আন্দোলনকারীরা। মঞ্চ খুলে দেওয়া প্রসঙ্গে ওই সংগঠনের নেতা ভাস্কর ঘোষ বলেন, ‘‘আমাদের এই অবস্থান বিক্ষোভ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর অস্বস্তি ছিল। তিনি কলকাঠি নেড়েছেন। সেনাকে দিয়ে মঞ্চ খুলে দেওয়ার কাজ করানো হয়েছে। এর জন্য আইনি লড়াই চলবে। দরকারে খোলা মাঠে ধর্না চলবে।’’

সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের দাবিকে অস্বীকার করেছে তৃণমূল। শাসকদলের এক নেতার কথায়, ‘‘ওই জায়গাটি সেনার। তারা অনুমতি দিয়েছিল এখন তুলে নিয়েছে। এতে মুখ্যমন্ত্রী কী ভাবে চক্রান্ত করতে পারেন? আসলে মুখ্যমন্ত্রীকে হাতিয়ার করে প্রচার পাওয়ার চেষ্টা করছে সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ।’’ রবিবার ৩৭৪ দিনে পড়ল ওই কর্মসূচি। গত ১৬ দিন ধরে তারা অনশন করছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

DA DA Case DA Protest
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE