Advertisement
০৯ ডিসেম্বর ২০২২
Babul Supriyo

Babul Supriyo: সুজনের মতে স্বাধীনচেতা শিল্পীদের জায়গা নয় বিজেপি, সৌগত চান বাবুল থাকুন আসানসোলের পাশে

সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর অভিযোগ, গণতন্ত্রের কথা বললেও বিজেপি আদতে ফ্যাসিস্ট দল। দলের অন্দরের পরিবেশ অগণতান্ত্রিক।

গ্রাফিক।

গ্রাফিক। শৌভিক দেবনাথ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ৩১ জুলাই ২০২১ ১৮:১৪
Share: Save:

বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় ফেসবুকে পোস্ট করে রাজনীতি ছাড়ার কথা ঘোষণা করার পরেই শনিবার সন্ধ্যায় প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন রাজ্যের অ-বিজেপি নেতারা। সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী শিল্পী-সাহিত্যিকদের স্বাধীনচিত্ততার প্রসঙ্গ তুলে ‘ফ্যাসিস্ট’ বিজেপি-র অন্দরের ‘অগণতান্ত্রিক পরিবেশ’ নিয়ে খোঁচা দিয়েছেন। তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় আবার বাবুলকে ‘পরামর্শ’ দিয়েছেন আসানসোলের মানুষের প্রতি সুবিচার করতে।

Advertisement

বাবুলের ‘অলবিদা’ পোস্ট প্রসঙ্গে সুজন বলেন, ‘‘মুখে বললেও বিজেপি যে সকলকে নিয়ে চলতে পারে না, তা ফের স্পষ্ট হল। শিল্পী-সাহিত্যিকেরা স্বাধীনচেতা হন। বিজেপি-র রাজনীতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে তাঁদের অসুবিধা হচ্ছে। কারণ, গণতন্ত্রের কথা বললেও বিজেপি আদতে ফ্যাসিস্ট দল।’’

রাজনীতি থেকে বাবুলের ‘স্বেচ্ছানির্বাসনের’ ঘোষণা প্রসঙ্গে সৌগতের মন্তব্য, ‘‘রাজনীতি করা বা না করা ওঁর (বাবুল) ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। এ বিষয়ে আমি কিছু বলব না। কিন্তু ২০২৪ সাল পর্যন্ত উনি আসানসোলের সাংসদ পদে থাকবেন। ওঁর উচিত সেখানকার মানুষের প্রতি সুবিচার করা।’’

বাবুল অবশ্য রাজনীতির পাশাপাশি সাংসদ পদ ছাড়ার কথাও ঘোষণা করেছেন নেটমাধ্যমে। কিন্তু তাতে আমল না দিয়ে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের দাবি, বাবুল বিজেপি-র কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে চাপে ফেলে দর বাড়াতে চাইছেন। কুণাল শনিবার বলেন, ‘‘বাবুলের মন্ত্রিত্ব গিয়েছে। ওঁর কথা দলের কেউ শুনছেন না। তাই হতাশায় ভুগছেন। ‘বার্গেনিং’ করে নজর কাড়তে চাইছেন।’’ সেই সঙ্গে কুণালের মন্তব্য, ‘‘উনি আগে গান করতেন। এখন নাটক করছেন। ফেসবুকে রাজনীতি ছাড়ার কথা না বলে স্পিকারের কাছে গিয়ে সাংসদ পদে ইস্তফা দিন বাবুল।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.