Advertisement
১৯ জুন ২০২৪
rape

নতর্কীর কাজ পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ! বর্ধমানে গ্রেফতার এক

ধৃতকে রবিবার বর্ধমান সিজেএম আদালতে হাজির করা হয়। রবিবারই ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে তরুণীর গোপন জবানবন্দি নথিভুক্ত করিয়েছে পুলিশ।

প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বর্ধমান শেষ আপডেট: ১৯ মার্চ ২০২৩ ২২:৫৫
Share: Save:

নর্তকীর কাজ পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ এবং তাঁর অশ্লীল ছবি ছড়ানোর হুমকি দিয়ে এক লক্ষ টাকা চাওয়ার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে বর্ধমান মহিলা থানার পুলিশ। ধৃতের নাম রেজাউল ইসলাম। কালনার কদমতলায় তাঁর বাড়ি। শনিবার রাতে কদমতলা এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতকে রবিবার বর্ধমান সিজেএম আদালতে হাজির করা হয়। রবিবারই ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে তরুণীর গোপন জবানবন্দি নথিভুক্ত করিয়েছে পুলিশ। বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়ে ২৯ মার্চ ধৃতকে আবার আদালতে হাজির করানোর নির্দেশ দেন ভারপ্রাপ্ত সিজেএম।

পুলিশ জানিয়েছে, কালনা থানার আটঘড়িয়ায় ওই তরুণীর বাড়ি। তিনি পিতৃ–মাতৃহীন। নাবালক অবস্থা থেকে তিনি আটঘড়িয়ায় এক ব্যক্তির বাড়িতে কাজ করেন। রেজাউলের কদমতলায় একটি দোকান রয়েছে। কিছু দিন আগে তিনি তরুণীকে নতর্কীর কাজ পাইয়ে দেওয়ার আশ্বাস দেন। তরুণী প্রথমে তাতে রাজি হননি। পরে দারিদ্র ও একাকিত্বের কারণে ওই প্রস্তাবে রাজি হয়ে যান। অভিযোগ, গত ৪ জানুয়ারি রেজাউল তাঁকে বর্ধমান শহরের নবাবহাট এলাকার একটি হোটেলে নিয়ে যান। সেখানেই তাঁকে ধর্ষণ করেন। আরও অভিযোগ, তরুণীকে হোটেলের একটি ঘরে আটকে রেখে তাঁর নগ্ন ছবিও তোলেন। তরুণী পুলিশে অভিযোগ জানানোর কথা বললে তাঁর অশ্লীল ছবি ও ভিডিয়ো সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হবে বলেও তরুণীকে হুমকি দেওয়া হয়। এমনকি তরুণীর কাছ থেকে এক লক্ষ টাকাও দাবি করা হয়। তাঁকে খুনের হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। তরুণী পুলিশকে জানিয়েছেন, ভয় পেয়েই এই ঘটনার কথা কাউকে এত দিন জানাতে পারেননি। কিন্তু, দিনের পর দিন ব্ল্যাকমেলিং বাড়তে থাকায় শনিবার তিনি মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

rape
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE