×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

অগ্রিম নিয়েও ধর্মীয় পরিচয়ের জন্য ৩ ছাত্রীকে বাড়ি ভাড়া না দেওয়ার অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা
বর্ধমান ০৭ জানুয়ারি ২০২১ ২৩:০২
এই বাড়িতে ঘর ভাড়া দেওয়ার জন্য অগ্রিম নেওয়া হয়। নিজস্ব চিত্র।

এই বাড়িতে ঘর ভাড়া দেওয়ার জন্য অগ্রিম নেওয়া হয়। নিজস্ব চিত্র।

অগ্রিম নিয়েও বর্ধমানের এক মেস বাড়ি ভাড়া না দেওয়ার অভিযোগ উঠল। ৩ ছাত্রীর ধর্মীয় পরিচয় জানার পরই ভাড়া দিতে অস্বীকার করা হয় বলে অভিযোগ। এই গোটা ঘটনা নিয়ে বাড়ি মালকিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে একটি ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়েছে।

বর্ধমান শহরের শ্যামলাল ঘটনা এটি। ভিডিয়োতে দেখা যায় কী ভাবে বাড়ি মালকিন ওই মহিলা স্বীকার করছেন ধর্মীয় পরিচয়ের জন্য তিনি ভাড়া দিতে রাজি হচ্ছেন না। অগ্রিম নেওয়ার সয়ম তিনি ধর্মীয় পরিচয়ের বিষয়টি খেয়াল করেননি বলে দাবি করেন।

ওই তিন ছাত্রী হুগলির তারকেশ্বর এলাকা থেকে এসেছেন। বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনও পরীক্ষার জন্য তাঁরা ঘর ভাড়া নিয়েছিলেন। তার জন্য সপ্তাহ খানেক আগে অগ্রিম ১ হাজার টাকা দিয়ে গিয়েছিলেন। এখন আর ওই বাড়ি মালকিন তাঁদের আর বাড়িতে থাকতে দিতে চাইছেন না। বাধ্য হয়ে অন্যত্র বেশি টাকা দিয়ে বাড়ি খুঁজতে হয়েছে ওই ছাত্রীদের।

Advertisement

একটি সামাজিক সংগঠন ওই ছাত্রীদের পাশে দাঁড়িয়েছে। তারা জেলাশাসকের কাছে ভিডিয়োটি-সহ একটি অভিযোগ করেছে। ওই সংস্থার রাজ্য সম্পাদক প্রাক্তন সাংসদ সাইদুল হক জানান, তাঁরা ওই ভিডিয়োর বিষয়টি তুলে ধরে গোটা বিষয়টি জেলা শাসককে জানিয়েছেন।

জেলাশাসক মহম্মদ এনাউর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, গোটা বিষয়টি পুলিশ দেখছে। অভিযুক্তরা ভুল স্বীকার করেছেন।

Advertisement