Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পকেট বাঁচিয়ে কেব্‌ল চ্যানেল বাছতে চিন্তায় গ্রাহক

ট্রাইয়ের নতুন নির্দেশিকা ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই চালু হওয়ার কথা। কেব্‌ল অপারেটররা চ্যানেলের দামের তালিকা গ্রাহকদের হাতে পৌঁছে দিয়েছেন। কি

নিজস্ব সংবাদদাতা
দুর্গাপুর ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ০০:১৪

সিনেমা দেখার জন্য টিভি চালিয়েছিলেন দুর্গাপুরের সগড়ভাঙার প্রবীণ বাসিন্দা কানাইলাল দাস। কিন্তু রবিবার রাতে চ্যানেল খুলতে গিয়ে দেখেন, তা বন্ধ। ধাক্কা খেলেন খেলার চ্যানেল দেখতে গিয়েও। সেখানেও পর্দায় আঁধার। খবরের চ্যানেল-সহ গোটা কয়েক বাংলা চ্যানেলই শুধু দেখা যাচ্ছে। শুধু কানাইবাবু নন, এমন অভিজ্ঞতা ডিএসপি টাউনশিপের এ-জোনের অনুপমা দে, সৌরভ গুহদেরও। ট্রাইয়ের নতুন নিয়ম চালু হওয়ায় টিভি দেখার মজা উধাও, দাবি তাঁদের।

ট্রাইয়ের নতুন নির্দেশিকা ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই চালু হওয়ার কথা। কেব্‌ল অপারেটররা চ্যানেলের দামের তালিকা গ্রাহকদের হাতে পৌঁছে দিয়েছেন। কিন্তু জমা নেওয়া বা পছন্দের চ্যানেল চালু করার কাজ এখনও পুরোপুরি হয়নি। দুর্গাপুর শহরে তিনটি কেব্‌ল অপারেটর সংস্থা রয়েছে। যে সংস্থাটি সগড়ভাঙা, ডিএসপি টাউনশিপ, সেপকো টাউনশিপ প্রভৃতি এলাকায় সংযোগ সরবরাহ করে, আপাতত সেটির গ্রাহকেরা নানা চ্যানেল দেখতে সমস্যায় পড়েছেন বলে অভিযোগ। গ্রাহকেরা জানান, অনেক চ্যানেল খুললেই একটি নীল বক্স দেখা যাচ্ছে। সেখানে লেখা থাকছে, এই চ্যানেল দেখা যাবে না। সিটি সেন্টার, বেনাচিতির মতো এলাকায় যে দুই সংস্থা সংযোগ দেয়, তাদের গ্রাহকেরা এখনও তেমন সমস্যায় পড়েননি বলে জানান।

কেব্‌ল অপারেটরদের সঙ্গে কথা বলে জানা গিয়েছে, পরিস্থিতি সামাল দিতে দুর্গাপুরে আপাতত তিনটি রকমের ‘প্যাকেজ’ চালু করা হয়েছে। চলতি মাসে তাতেই টিভি দেখার সাধ পূরণের আর্জি জানানো হয়েছে গ্রাহকদের। এই সময়ের মধ্যে পছন্দের চ্যানেল চালু করার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে যাবে বলে মনে করছেন তাঁরা। ফলে, মার্চ থেকে ট্রাইয়ের নিয়মে টিভি দেখতে পারবেন গ্রাহকেরা। কেব্‌ল অপারেটররা জানান, কোন কোন চ্যানেল দেখবেন, তা জানিয়ে সব গ্রাহক ফর্ম এখনও ফেরত দেননি। সেই সব ফর্ম ফেরত নেওয়ার কাজ চলছে। তা ছাড়া, যদি কেউ কোনও একটি সংস্থার সব চ্যানেলের প্যাকেজ নিতে চান, পোর্টালের মাধ্যমে তা সহজেই চালু করে দেওয়া যাচ্ছে। কিন্তু যদি তিনি সেই সংস্থার বিশেষ দু’একটি চ্যানেল নিতে চান, তা চালু করা সময়সাপেক্ষ হচ্ছে।

Advertisement

এক কেব্‌ল অপারেটর বলেন, ‘‘সবাই এখন নতুন নিয়মে চ্যানেল চালুর কাজ করছেন। ফলে, পোর্টালের উপরে চাপ পড়ছে। আশা করা যায়, কয়েকদিনের মধ্যে জটিলতা অনেকটা কাটবে।’’ তবে হাই-ডেফিনিশন (এইচডি) চ্যানেলের চাহিদা কম থাকায় সহজেই তা চালু করা যাচ্ছে বলে জানান তাঁরা।

এই পরিস্থিতিতে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন গ্রাহকেরা। তাঁদের মতে, টিভি দেখার খরচ অনেকটা বেড়ে যাবে। সিনেমা, ধারাবাহিক, খবর, খেলা, বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান— সব বিষয়ের জন্য চ্যানেল বাছতে হবে আলাদা ভাবে। সিটি সেন্টারের বাসিন্দা অনুপম মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‘দেখেশুনে চ্যানেলের তালিকা তৈরি করছি। তবে খরচ যে আগের থেকে অনেক বাড়ছে, তা নিশ্চিত।’’ রাতুড়িয়া এলাকার স্থানীয় কেব্‌ল অপারেটর সুব্রত মণ্ডল বলেন, ‘‘পকেটের দিকে নজর দিতে গিয়ে গ্রাহকদের অনেককেই সমঝোতা করতে হবে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement