Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Firing

নালা তৈরি নিয়ে অশান্তি, প্রতিবেশীর সঙ্গে বচসার সময় আচমকা গুলি চালাল মেমারির যুবক

নালা তৈরি করা নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে বচসা। তার জেরে চলল গুলি। এই ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল পূর্ব বর্ধমানের মেমারিতে। ওই ঘটনায় পুলিশ দুই অভিযুক্তকে আটক করেছে পুলিশ।

Father and son detained over the charge of firing in Memari of Purba Bardhaman

বচসার সময় গুলি চালানোর অভিযোগ। প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
মেমারি শেষ আপডেট: ০৯ মে ২০২৩ ১৬:৩৬
Share: Save:

নালা তৈরি করা নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে বচসা। তার জেরে চলল গুলি। এই ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল পূর্ব বর্ধমানের মেমারিতে। ওই ঘটনায় পুলিশ দুই অভিযুক্তকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সকালে মেমারি থানার দুর্গাপুর অঞ্চলের মগলামপুর গ্রামে নালা তৈরি করা নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে বচসা শুরু হয়। মগলামপুর গ্রামের বাসিন্দা অশোক বিশ্বাস তার বাড়ির সামনে একটি জল নিকাশি নালা তৈরি করতে গেলে তাঁরই প্রতিবেশী বিপ্লব সাধুখাঁ বাধা দেন বলে অভিযোগ। শুরু হয় বচসা। সেই সময় বিপ্লবের ছেলে হঠাৎ ঘর থেকে তাঁদের লাইসেন্সপ্রাপ্ত দোনলা বন্দুক বার করে গুলি চালায় বলে অভিযোগ। এ নিয়ে অশোকের দাবি, ‘‘আমার ছেলের বিয়ের জন্য রাস্তার পাশে পাইপ বসান হচ্ছিল। প্রতিবেশী বিপ্লব আমাদের বাধা দিলে তাঁকে বোঝানোর চেষ্টা করি। এই নিয়ে দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হচ্ছিল। সেই সময় বিপ্লবের ছেলে বন্দুক বার করে নিয়ে এসে গুলি চালিয়ে দেয়। আমার দাদা বন্দুকের নলটা উপরদিকে তুলে না ধরলে বড় বিপদ ঘটে যেত।’’

হঠাৎ গুলির আওয়াজে অন্য প্রতিবেশীরাও ছুটে যান। এলাকায় দেখা দেয় উত্তেজনা। খবর পেয়ে মেমারি থানার পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। ঘটনাস্থল থেকে বন্দুক এবং একটি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ বিপ্লব এবং তাঁর ছেলেকে আটক করেছে। বিপ্লবের ছেলে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। তাঁর দাবি, ‘‘আমাদের মারধর করা হচ্ছিল। তাই বাধ্য হয়ে প্রাণ বাঁচাতে বন্দুক বার করেছিলাম।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE