Advertisement
২৮ নভেম্বর ২০২২
Fire

Medical College Fire: বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজের কোভিড ওয়ার্ডে আগুন, পুড়ে মৃত্যু এক করোনা রোগীর

বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ জানিয়েছেন, আগুন লাগার কারণ জানতে ইতিমধ্যেই একটি পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ঘটনাস্থলে দমকল বাহিনী।

ঘটনাস্থলে দমকল বাহিনী। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বর্ধমান শেষ আপডেট: ২৯ জানুয়ারি ২০২২ ০৭:২৯
Share: Save:

আগুন লাগল বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজের কোভিড ওয়ার্ডে। অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে এক করোনা রোগীর। মৃতার নাম সন্ধ্যা মণ্ডল (৬০)। তাঁর বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের গলসির বড়মুড়িয়া গ্রামে বলেও হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে খবর, শনিবার ভোর রাতে এই আগুন লাগে। এক জন কোভিড রুগী প্রথম আগুন দেখতে পান। তার পর তিনি বাকিদের ঘুম ভাঙান। আগুন লাগার পর হাসপাতালের কর্মীরাই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। পরে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের ইঞ্জিন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে বর্ধমান থানার পুলিশ। তবে নিরাপত্তার গাফিলতির কথা অস্বীকার করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ প্রবীর সেনগুপ্ত বলেন, ‘‘এই ঘটনা খুবই দুঃখজনক। আগুন লাগার কারণ জানতে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।’’

Advertisement

অন্য দিকে, মৃতার মেয়ে রানু মণ্ডলের বলেন, ‘‘আমাদের ঢুকতে দিলে মা-কে বাঁচানো যেত।’’

তবে শট সার্কিট থেকে আগুন লাগেনি বলেই প্রাথমিক তদন্তের পর অনুমান দমকলের। দমকলের এক আধিকারিক দীপক সেন বলেন, ‘‘আমরা যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছয় তখন আগুন নিয়ন্ত্রণে। কোভিড ওয়ার্ডের বিছানার উপর দেশলাই এবং লাইটার ছিল। সেখান থেকেও আগুন লাগতে পারে। তবে সম্পূর্ণ তদন্তের আগে নিশ্চিত হয়ে কিছু বলা সম্ভব না।’’

শনিবার ভোর সাড়ে চারটে নাগাদ হাসপাতালের রাধারাণী কোভিড ওয়ার্ডে প্রথম আগুনের শিখা দেখা যায়। সেখানেই ৬ নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়ে ভর্তি ছিলেন সন্ধ্যা।

Advertisement

হাসপাতালের কোভিড ওয়ার্ডের অন্য রোগীর আত্মীয় শত্রুঘ্ন মণ্ডলের অভিযোগ, আগুন লাগার সময় হাসপাতালের নিরাপত্তারক্ষী-সহ অন্য কর্মীরা ঘুমোচ্ছিলেন। তাঁরা ডাকাডাকি করার পরই এই কর্মীরা তৎপর হন বলেও তিনি জানান।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.