Advertisement
২০ জুলাই ২০২৪
Arms Racket

নিরাপত্তারক্ষী সেজে অস্ত্রের চোরা কারবার! মন্তেশ্বর থেকে এসটিএফের জালে ধরা পড়ল দুই

এসটিএফ জানতে পেরেছেন, কুরবান আলি কলকাতার একটি বেসরকারি সংস্থায় নিরাপত্তারক্ষীর কাজ করত। তার আড়ালেই সে আগ্নেয়াস্ত্রের চোরা কারবার শুরু করেছিল।

এসটিএফের জালে দুই।

এসটিএফের জালে দুই। — নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বর্ধমান শেষ আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০২২ ১৯:৫২
Share: Save:

বেসরকারি সংস্থার নিরাপত্তারক্ষী সেজে অস্ত্রের চোরা কারবার চালাচ্ছিল যুবক। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে তাকে হাতেনাতে ধরল স্পেশাল টাস্ক ফোর্স (এসটিএফ)-এর অভিযানে পূর্ব বর্ধমানের মন্তেশ্বর থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে কুরবান আলি নামে ওই বেআইনি অস্ত্র ব্যবসায়ীকে। কুরবানের কাছে অস্ত্র কিনতে গিয়েছিল মুর্শিদাবাদের ডোমকলের বাসিন্দা রাকেশ মোল্লা। তাকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে এসটিএফ উদ্ধার করেছে এসবিবিএল আগ্নেয়াস্ত্র বা শট গান।

এসটিএফ সূত্রে জানা গিয়েছে, কুরবানের বাড়ি মন্তেশ্বরের ভান্ডারবাটি এলাকায়। অপর দিকে ধৃত রাকেশ মুর্শিদাবাদের ডোমকল এলাকার বাসিন্দা। কুরবানের কাছ থেকে বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র কেনার জন্য শুক্রবার রাতে ডোমকল থেকে কুসুমগ্রাম-নাদনঘাট রোডে গিয়েছিল রাকেশ। তার পর সেখান থেকে তারা দু’জনে বাইকে চড়ে রওনা দেয় গোপন ডেরার উদ্দেশে। সেই খবর গোপন সূত্রে খবর পেয়ে অভিযান চালায় এসটিএফ। তারা দুই অস্ত্র কারবারিকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। কুরবানের কাছে পাওয়া গিয়েছে একটি এসবিবিএল বন্দুক বা শটগান। মন্তেশ্বর থানায় কুরবান এবং রাকেশের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে এসটিএফ।

এসটিএফ জানতে পেরেছেন, কুরবান কলকাতার একটি বেসরকারি সংস্থায় নিরাপত্তারক্ষীর কাজ করত। তার আড়ালেই সে আগ্নেয়াস্ত্রের চোরা কারবার শুরু করেছিল। সে আগ্নেয়াস্ত্র সরবরাহ করতে গিয়ে শুক্রবার রাতে হাতেনাতে ধরা পড়ে যায়। কুরবানের এই কীর্তির কথা জেনে স্তম্ভিত মন্তেশ্বরের বাসিন্দারা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Arms Racket arrest police
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE