Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

আত্মীয়ের নির্যাতনে আত্মঘাতী মহিলা, অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা
পূর্বস্থলী ০৪ অক্টোবর ২০১৮ ০৬:২৫
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

ভাসুর ধর্ষণ করেছে তাঁর মেয়েকে, অভিযোগ করেছিলেন মহিলা। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। অভিযোগ, ২৩ দিন পরে জামিনে ছাড়া পেয়েই মহিলার উপরে অত্যাচার শুরু করে অভিযুক্ত ও তার আত্মীয়েরা। তা সহ্য করতে না পেরে আত্মঘাতী হয়েছেন মেয়ে, অভিযোগ করলেন মহিলার বাবা। পুলিশ জানায়, পূর্বস্থলীর পলাশবেড়িয়া এলাকার এই ঘটনায় ছ’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নবদ্বীপের কালীনগর এলাকায় বাপেরবাড়ি ওই বধূর। মঙ্গলবার রাতে পুলিশের কাছে ওই বধূর বাবা লিখিত অভিযোগ করেন, ১৭ বছর আগে পলাশবেড়িয়া গ্রামে মেয়ের বিয়ে হয়। খেতমজুরি করে সংসার চলত দম্পতির। দু’টি মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে তাঁদের। অভিযোগ, গত ৯ ফেব্রুয়ারি দম্পতির বাড়িতে না থাকার সুযোগ নিয়ে তাঁদের এক নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণ করে তার জ্যাঠা। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। তবে জেল থেকে ফিরেই সে ও তার পরিজনেরা শারীরিক-মানসিক নির্যাতন শুরু করে মহিলার উপরে। তাঁর বাবার দাবি, তাতে তিনি ভেঙে পড়েও। সোমবার রাতে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।

মহিলার বাবার অভিযোগ, মেয়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে এসে তাঁরা দেখেন, দেহ বাড়ির পাশে রাস্তায় পড়ে রয়েছে। অভিযুক্তেরা দেহ লোপাটের চেষ্টা করছিল বলে তাঁদের ধারণা। পুলিশ দেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। মৃতার বাবার আরও অভিযোগ, পূর্বস্থলী থানায় কর্তব্যরত পুলিশ আধিকারিক অভিযোগ নেওয়া নিয়ে টালবাহানা করেন। এমনকি, সিভিক ভলান্টিয়াররা তাঁকে থানা থেকে বার করে দেন বলেও অভিযোগ। পরে অবশ্য ঊর্ধ্বতন আধিকারিকদের হস্তক্ষেপে অভিযোগ নেওয়া হয় বলে জানান তিনি। পুলিশ জানায়, মূল অভিযুক্ত পলাতক। তবে তার ছ’জন আত্মীয়কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Advertisement

বুধবার মহিলার বাবা বলেন, ‘‘আমি চাই, ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করে দোষীদের শাস্তি দেওয়া হোক।’’ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাজনারায়ণ মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‘অভিযোগপত্রটি দেখিনি। যদি থানায় অভিযোগ হয়ে থাকে, তদন্ত হবে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement