Advertisement
১৯ জুন ২০২৪
Moloy Ghatak

কয়লা পাচারকাণ্ডে মন্ত্রী মলয় ঘটককে তলব করল ইডি, মন্ত্রী অবশ্য বলছেন, তিনি কিছু জানেন না

ইডি সূত্রে খবর, শুধু মলয় নন, তাঁর আপ্ত সহায়ককেও চলতি মাসের ২৩ তারিখেই ডাকা হয়েছে। এছাড়া আসানসোল পুর নিগমের বেশ কয়েক জন কাউন্সিলরকেও ইডি ডাকতে পারে বলে খবর।

Moloy Ghatak is summoned by ED

এর আগেও মন্ত্রী মলয়কে দিল্লিতে তলব করেছে ইডি। তবে তিনি যাননি। গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২১ মার্চ ২০২৩ ১৯:৫৬
Share: Save:

কয়লা পাচার তদন্তে আবার ইনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) তলব করা হল রাজ্যের আইনমন্ত্রী মলয় ঘটককে। সূত্রের খবর, আগামী ২৩ মার্চ, বৃহস্পতিবার মলয়কে দিল্লিতে যেতে বলা হয়েছে। যদিও মন্ত্রী বলছেন তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না। কোনও চিঠিও পাননি তিনি।

কয়লা পাচার কাণ্ডে আগেও একাধিক বার মলয়কে তলব করেছে ইডি। তাঁর বাড়িতে গিয়ে তল্লাশি করেছেন সিবিআই আধিকারিকরা। এমনকি টানা জেরাও করা হয়েছে মন্ত্রীকে। তবে ইডির একাধিক বার তলবেও দিল্লি যাননি মলয়। এখন ইডি সূত্রে খবর, শুধু মলয় নন, তাঁর আপ্ত সহায়ককেও চলতি মাসের ২৩ তারিখেই ডাকা হয়েছে। এছাড়া আসানসোল পুর নিগমের বেশ কয়েক জন কাউন্সিলরকের কাছেও ইডির ডাক আসতে পারে বলে খবর। তবে আপ্ত সহায়ক শঙ্কর চক্রবর্তীর স্ত্রী দীপা চক্রবর্তী বলেন, ‘‘আমাদের কাছে এমন কোনও নোটিস আসেনি। আর শঙ্করবাবু অসুস্থ।’’

‌গত বছরের সেপ্টেম্বরে কলকাতা থেকে আসানসোল মলয় ঘটকের একাধিক ঠিকানায় হানা দেয় সিবিআই। মন্ত্রীর কলকাতার ডালহৌসির সরকারি আবাসনেও টানা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় মন্ত্রীকে। বেশ কয়েক জন ইসিএল আধিকারিকের গ্রেফতারির পর মলয়ে ঘটকের বিরুদ্ধে কয়লা পাচার তদন্তে নামে সিবিআই।

উল্লেখ্য, কম্বলকাণ্ডে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন আসানসোল পুরনিগমের প্রাক্তন মেয়র তথা অধুনা বিজেপি নেতা জিতেন্দ্র তিওয়ারি। রবিবার তাঁকে ৮ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন বিশেষ আদালতের বিচারক। ঘটনাচক্রে মন্ত্রী মলয়ও আসানসোলের বাসিন্দা। এবং আসানসোল উত্তর কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Moloy Ghatak ED Coal Scam
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE