Advertisement
১৮ জুন ২০২৪
Jitendra Tiwari

নিম্ন আদালতে জিতেন জামিন না পেলে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার ইঙ্গিত দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

জিতেনের পাশাপাশি, তাঁর স্ত্রী বিজেপি কাউন্সিলর চৈতালি তিওয়ারির জন্যও শীর্ষ আদালতে জামিনের আবেদন করা হবে বলে জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।

image of suvendu adhikari and jitendra tiwari

জিতেনের জামিন করাতে মরিয়া বিজেপি। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২০ মার্চ ২০২৩ ২১:৩৩
Share: Save:

নিম্ন আদালতে জামিন না পেলে আবার সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার ইঙ্গিত দিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। সোমবার সন্ধ্যায় নিজাম প্যালেসের সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি। শুভেন্দু বলেন, ‘‘জিতেন তিওয়ারির গ্রেফতারি নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট রাজ্য সরকারকে আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যে হলফনামা দায়ের করতে বলেছে। সঙ্গে এই গ্রেফতারি যে পদ্ধতি মেনে হয়নি সে বিষয়ে উষ্মা প্রকাশ করেছেন আইনজীবীদের সামনে। জিতেন তিওয়ারিকে বলা হয়েছে আপনি নিম্ন আদালতে জামিনের জন্য আবেদন করুন।’’

এরপরেই তিনি আরও বলেন, ‘‘সাধারণত নিম্ন আদালত সুপ্রিম কোর্টের এই পর্যবেক্ষণকে সম্মান দিয়ে থাকে। এবং জিতেন তিওয়ারির পক্ষের আইনজীবী মঙ্গলবার আসানসোল আদালতে জামিনের আবেদন করবেন। আমরা আশাবাদী, সুপ্রিম কোর্টের মানসিকতাকে সম্মান দেবে নিম্ন আদালত। যদি সেক্ষেত্রে তেমনটা না হয়, তা হলে প্রত্যাখানের কপি তুলে আমরা আবার সর্ব্বোচ্চ আদালতের জামিনে জন্য আবেদন করব।’’

জিতেনের পাশাপাশি, তাঁর স্ত্রী বিজেপি কাউন্সিলর চৈতালির জন্যও শীর্ষ আদালতে জামিনের আবেদন করা হবে। সেই আবেদন করা হবে এই সপ্তাহেই। সে কথাও স্পষ্ট জানিয়েছেন নন্দীগ্রাম বিধায়ক। গত শনিবার উত্তরপ্রদেশের নয়ডার কাছে যমুনা এক্সপ্রেসওয়ে থেকে গ্রেফতার করা হয় আসানসোলের বিজেপি নেতা জিতেন্দ্রকে। গত বছর ডিসেম্বর মাসে আসানসোলে একটি কম্বল বিতরণ কর্মসূচিতে পদপিষ্ট হয়ে ৩ জনের মৃত্যুর ঘটনায় জিতেন্দ্র অভিযুক্ত হন। আসানসোলের প্রাক্তন মেয়র ছাড়াও তাঁর স্ত্রী চৈতালি এবং আসানসোলের অন্য দুই বিজেপি নেতা অভিযুক্তের তালিকায় রয়েছেন। কলকাতা হাই কোর্টে আগাম জামিনের আর্জি খারিজ হয়ে যাওয়ার পর জিতেন্দ্র, বিজেপি কাউন্সিলর গৌরব গুপ্ত এবং যুবনেতা তেজপ্রতাপ সিংহ সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন একই আর্জি নিয়ে। সোমবার সেই মামলারই শুনানি ছিল ।

ডিভিশন বেঞ্চের বিচারপতি সূর্য কান্ত এবং বিচারপতি জেকে মাহেশ্বরী জিতেন্দ্রর আইনজীবীর কাছে ‘অপহরণ’ তত্ত্বের ব্যাখ্যা চান। জিতেন্দ্রর আইনজীবী শীর্ষ আদালতের সামনে দু’টি ‘তথ্য’ তুলে ধরেন। এক, ভিন্‌রাজ্য থেকে বাংলার পুলিশ এক জনকে তুলে নিয়ে গেল সংশ্লিষ্ট রাজ্যের পুলিশকে বা স্থানীয় থানাকে কিছু না জানিয়েই? দুই, গ্রেফতারের পর স্থানীয় আদালতে পেশ করে তাঁকে রিমান্ডে না চেয়ে, সরাসরি জিতেন্দ্রকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বাংলায়। এর পরেই দুই বিচারপতির বেঞ্চ নির্দেশ দেয়, জিতেন্দ্রর আইনজীবীর অভিযোগের জবাব দিয়ে হলফনামা জমা দিতে হবে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে। মামলার পরবর্তী শুনানি ২ সপ্তাহ পর। সঙ্গে জিতেন্দ্রকে নিম্ন আদালতে জামিনের আবেদন করার নির্দেশ দিয়েছে। সেই নিয়ম মেনে নিম্ন আদালতে আবেদন করার পাশাপাশি, সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার রাস্তাও খোলা রাখছে বিজেপি নেতৃত্ব।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Jitendra Tiwari Suvendu Adhikari BJP
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE