Advertisement
২৭ জানুয়ারি ২০২৩
Sitalkuchi

শীতলখুচি-কাণ্ডের তদন্তে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কোচবিহারের প্রাক্তন এসপি-কে তলব সিআইডির

শীতলখুচিতে গত ১০ এপ্রিল চতুর্থ পর্বের ভোটগ্রহণের সময় মাথাভাঙা ব্লকের জোরপাটকির আমতলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গুলি চালায় সিআইএসএফ।

ফাইল চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৪ জুন ২০২১ ১২:১১
Share: Save:

শীতলখুচি-কাণ্ডে কোচবিহারের প্রাক্তন পুলিশ সুপারকে তলব করল সিআইডি। জেলার তৎকালীন পুলিশ সুপার দেবাশিস ধরকে ১৮ জুন বেলা সাড়ে ১১টায় ভবানী ভবনে উপস্থিত হতে বলা হয়েছে। শীতলখুচি-কাণ্ডে কেন গুলি চালনা করা হয়েছিল, কেন বুকের উপর গুলি লাগে— এ সব নিয়েই দেবাশিসকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে বলে সূত্র মারফত খবর পাওয়া গিয়েছে। গুলি চালনার ঘটনার পর পুলিশ সুপার হিসাবে সেই সময় কী পদক্ষেপ করেছিলেন দেবাশিস, সেটিও জানতে চাওয়া হতে পারে বলে খবর।

Advertisement

এপ্রিল মাসে শীতলখুচি-কাণ্ডের পর তদন্ত শুরু করে সিআইডি। তদন্তভার নেওয়ার পর ইতিমধ্যে তৎকালীন পুলিশ সুপার হিসাবে দেবাশিসকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিআইডি, জেরা করা হয়েছে মাথাভাঙা থানার আইসিকেও। এর আগে ছ’জন সিআইএসএফ জওয়ানকে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হলেও তাঁরা আসেননি। এর মধ্যেই ফের নতুন করে ফের ভবানী ভবনে ডাক পড়ল দেবাশিসকে।

কোচবিহারের শীতলখুচিতে গত ১০ এপ্রিল চতুর্থ পর্বের ভোটগ্রহণের সময় মাথাভাঙা ব্লকের জোরপাটকির আমতলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অশান্তির সময় গুলি চালায় সিআইএসএফ। ঘটনায় ৪ জন নিহত হন। ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে দেখা যায়, ১২৬ নম্বর বুথে বুক তাক করেই গুলি করা হয়েছিল। বুথের দরজায় গুলি লেগেছিল। দরজা ভেদ করে সেই গুলি ক্লাসের ভিতরের ব্ল্যাকবোর্ডের ক্ষতস্থান তৈরি করে। ব্যালেস্টিক বিশেষজ্ঞরা এই বিষয়টি পুরোটাই তদন্ত করে দেখে নিশ্চিত করেন, বুক লক্ষ্য করেই গুলি ছোড়া হয় সে দিন।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.