Advertisement
২৩ জুন ২০২৪
Monsoon in West Bengal

বর্ষা ঢুকছে বাংলায়, উত্তর হয়ে আসবে দক্ষিণে, কত দিনের অপেক্ষা? জানিয়ে দিল আবহাওয়া দফতর

শুক্রবার কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি জেলার কিছু অংশে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। সেখানে কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে। দার্জিলিং, কালিম্পঙে হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

image of rain

রাজ্যে কবে প্রবেশ করতে পারে বর্ষা, জানাল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। ছবি: পিটিআই।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ৩০ মে ২০২৪ ১৬:৪৯
Share: Save:

ভ্যাপসা গরমে হাঁসফাঁস কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলি। এর মধ্যেই স্বস্তির বার্তা দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। জানানো হয়েছে, আগামী দু’-তিন দিনের মধ্যে উত্তরবঙ্গে বর্ষা ঢোকার অনুকূল পরিস্থিতি রয়েছে। এ ছাড়া, উত্তরপ্রদেশ থেকে পশ্চিম বাংলাদেশ পর্যন্ত একটি অক্ষরেখা উত্তরবঙ্গের উপর দিয়ে বিস্তৃত রয়েছে। এর ফলে উত্তরবঙ্গের কিছু এলাকায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির কমলা সতর্কতা দেওয়া হয়েছে। সপ্তাহান্তে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের প্রায় সব জেলায় বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে।

হাওয়া অফিস জানিয়েছে, কেরলে ঢুকেছে বর্ষা। উত্তর-পূর্ব ভারতের দিকে এগোচ্ছে। বৃহস্পতিবার নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মিজোরাম, অরুণাচল প্রদেশ এবং ত্রিপুরা, মেঘালয়, অসমের বেশির ভাগ অংশে ঢুকে পড়ছে বর্ষা। আগামী দু’-তিন দিনে তা হিমালয় সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গ এবং সিকিমে প্রবেশ করতে পারে। সেই উপযোগী পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এমনিতে জুনের প্রথম সপ্তাহে উত্তরবঙ্গে প্রবেশ করে বর্ষা। এ বার রেমালের কারণে একটু আগেই বর্ষা প্রবেশের উপযুক্ত পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। তবে বর্ষা যত ক্ষণ না ঢুকছে, তত ক্ষণ বলা যাবে না যে, রাজ্যে আগে না পরে আসছে। বর্ষা প্রবেশের ক্ষেত্রে অনেক বিষয়ের ভূমিকা রয়েছে। তার মধ্যে এ বছর অন্যতম ভূমিকা রয়েছে ঘূর্ণিঝড় রেমালের।

উত্তর-পশ্চিম উত্তরপ্রদেশ থেকে পশ্চিম বাংলাদেশের পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে অক্ষরেখা। সেটি দক্ষিণ-পূর্ব উত্তরপ্রদেশ, দক্ষিণ বিহার এবং হিমালয় সংলগ্ন উত্তরবঙ্গ এবং সিকিমের উপর দিয়ে গিয়েছে। তার জেরে বঙ্গোপসাগর থেকে ছুটে আসছে আর্দ্র জলীয় বাষ্প। তার জেরেই উত্তরের বিভিন্ন জায়গায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। আগামী সোমবার পর্যন্ত দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, কোচবিহারে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে।

পূ্র্বাভাস বলছে, বৃহস্পতি এবং শুক্রবার কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি জেলার কিছু অংশে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। সেখানে কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে। দার্জিলিং এবং কালিম্পঙে ভারী বৃষ্টির জন্য হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। শনিবার ভারী বৃষ্টি হতে পারে জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, দার্জিলিং, কালিম্পং, উত্তর দিনাজপুর, আলিপুরদুয়ারে। সেখানে জারি হলুদ সতর্কতা। রবিবারও এই জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। সঙ্গে দক্ষিণ দিনাজপুরেও হতে পারে ভারী বৃষ্টি। আগামী সোমবার জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ারে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা।

দক্ষিণে আপাতত তাপমাত্রার হেরফের হচ্ছে না বলেই জানিয়েছে হাওয়া অফিস। শুক্র এবং শনিবার হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে সব জেলাতেই। শনিবার দক্ষিণবঙ্গের ৯ লোকসভা কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ রয়েছে। ওই দিন দুই মেদিনীপুর, দুই বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, বীরভূমে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বিক্ষিপ্ত ভাবে। তবে সব জায়গায় নয়। আগামী রবিবার দক্ষিণবঙ্গের সব জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা। ভোটগণনা আগামী মঙ্গলবার, ৪ জুন। সে দিনও দক্ষিণের সব জেলাতে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Rain Forecast Weather Update
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE