Advertisement
১৫ জুলাই ২০২৪
Cyclone Remal Update

কলকাতা থেকে কত দূরে সরেছে রেমাল? এখন কী অবস্থায় কোথায় রয়েছে? জানাল হাওয়া অফিস

হাওয়া অফিস জানিয়েছে, সন্ধ্যা পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড় হিসাবেই থাকবে রেমাল। সন্ধ্যার পর তা শক্তি হারিয়ে পরিণত হবে গভীর নিম্নচাপে। ক্রমে তা আরও উত্তর-পূর্ব দিকে সরবে এবং শক্তি হারাবে।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৭ মে ২০২৪ ১৫:৫৫
Share: Save:

রবিবার রাতে বাংলাদেশ এবং সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গের উপকূলে আছড়ে পড়েছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল। তার প্রভাবে প্রভূত ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে। ‘প্রবল’ ঘূর্ণিঝড় শক্তি খুইয়ে সাধারণ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হলেও এখনও তার প্রভাব চলছে। ঝোড়ো হাওয়া বইছে কলকাতাতেও। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, কলকাতা থেকে ১১০ কিলোমিটার উত্তর-পূর্ব দিকে রয়েছে রেমাল।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, স্থলভাগে প্রবেশ করার পর ঘূর্ণিঝড় রেমাল বাংলাদেশ এবং পশ্চিমবঙ্গের উপকূল ধরে ক্রমে উত্তর দিকে এগিয়েছে। গত ছ’ঘণ্টায় তার গতি ছিল ঘণ্টায় আট কিলোমিটার। এই মুহূর্তে তা পশ্চিমবঙ্গের সংলগ্ন বাংলাদেশের উপর অবস্থান করছে। বাংলাদেশের মোংলা থেকে রেমালের দূরত্ব ৬৫ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে। এ ছাড়া, ক্যানিং থেকে ১০০ কিলোমিটার উত্তর উত্তর-পূর্ব, বাংলাদেশের খেপুপাড়া থেকে ১৫০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিম এবং ঢাকা থেকে ১৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে রয়েছে রেমাল।

হাওয়া অফিস জানিয়েছে, সন্ধ্যা পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড় হিসাবেই থাকবে রেমাল। সন্ধ্যার পর তা শক্তি হারিয়ে পরিণত হবে গভীর নিম্নচাপে। ক্রমে তা আরও উত্তর-পূর্ব দিকে সরবে।

রেমালের প্রভাবে রবিবার রাত থেকে দুর্যোগ চলছে দক্ষিণবঙ্গে। রাতে দমদমে ঝড়ের গতি ছিল ঘণ্টায় ৯১ কিলোমিটার। বাংলাদেশে ১০০-র বেশি ছিল গতিবেগ। সোমবার সকাল থেকেও ঝোড়ো হাওয়া ছিল দক্ষিণের জেলাগুলিতে। ঝড়ের সঙ্গে একনাগাড়ে বৃষ্টি হয়ে চলেছে। কলকাতায় গত রাতে ১৪৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। সকাল থেকে শহরের বিস্তীর্ণ অংশ জলমগ্ন। বৃষ্টি থামেনি। তাই নামেনি জলও। রেমালের প্রভাবে শহরে ৫০টিরও বেশি গাছ উপড়ে গিয়েছে। ব্যাহত হয়েছে ট্রেন, মেট্রো এবং বাস চলাচল। রাজ্যে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে এখনও পর্যন্ত ছ’জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। এন্টালিতে রবিবার রাতে বাড়ির কার্নিস ভেঙে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছিল। মৌসুনি দ্বীপে সোমবার সকালে বাড়িতে গাছ ভেঙে পড়ে মৃত্যু হয়েছে এক বৃদ্ধার। এ ছাড়া, পূর্ব বর্ধমানের মেমারিতে কলাগাছে জড়ানো তারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় বাবা এবং ছেলের। পানিহাটিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আরও এক জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। মহেশতলায় জমা জলে পা দিতেই তড়িদাহত হয়ে মৃত্যু হয়েছে এক জনের।

রেমালের প্রভাবে সোমবার নদিয়া, মুর্শিদাবাদে লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে কলকাতা, হাওড়া, হুগলি এবং দুই ২৪ পরগনায়। মঙ্গলবার থেকে আবহাওয়ার উন্নতি হবে দক্ষিণবঙ্গে। তবে উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি বাড়বে। দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি-সহ একাধিক জেলায় বৃষ্টি এবং ঝোড়ো হাওয়ার সতর্কতা জারি করা হয়েছে। মঙ্গলবার দক্ষিণবঙ্গে কোথাও আবহাওয়াজনিত সতর্কবার্তা দেওয়া হয়নি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Cyclone Remal Remal Cyclone Weather Update
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE