×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

Dilip Ghosh: ‘অবৈধ’ বিয়ের নেমতন্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা কেন? নুসরত-কাণ্ডে এ বার আসরে দিলীপ ঘোষ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১১ জুন ২০২১ ১২:৫৯
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

নুসরত-কাণ্ডে ক্রমশ রাজনৈতিক ঘুঁটি সাজাচ্ছে বিজেপি। বৃহস্পতিবারই দলের আইটি সেলের সর্বভারতীয় প্রধান অমিত মালব্য আনন্দবাজার ডিজিটালকে জানিয়েছিলেন নুসরতের বিরুদ্ধে স্বাধিকার ভঙ্গের নোটিস আনা যায় কি না, তা দেখা হচ্ছে। আরও এক ধাপ এগিয়ে বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ শুক্রবার বললেন, “এ তো প্রতারণা। বিয়ে হল। একজন সাংসদ। তিনি বলছেন আমার বিয়েই হয়নি। সিঁদুরের ফোঁটা লাগিয়ে, রথ টেনে ভোটে জিতে গেলেন! কত নীচে নামবে বাংলার রাজনীতি!” এর পরই তিনি প্রশ্ন তোলেন, “যাঁর বিয়ে হল না, তাঁর বিয়ের অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কীভাবে গেলেন!”

প্রসঙ্গত, সংসদে শপথ গ্রহণের সময় নুসরত নিজের নামের সঙ্গে নিখিল জৈনের পদবি ব্যবহার করেছিলেন। বুধবার দুপুরে বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ একটি বিবৃতি দিয়ে বলেন, ‘নিখিলের সঙ্গে আমি সহবাস করেছি। বিয়ে নয়। ফলে বিবাহবিচ্ছেদের প্রশ্নই ওঠে না।’ আনন্দবাজার ডিজিটালে সেই খবর প্রকাশের পরেই হইচই শুরু হয়ে যায়। কিন্তু পরে দেখা যায়, নুসরত নিখিলের সঙ্গে লিভ-ইন করেছেন বলে দাবি করলেও সরকারি নথিতে তিনি বিবাহিতা এবং স্বামীর নাম নিখিল জৈন। লোকসভার ওয়েবসাইটে পশ্চিমবঙ্গ থেকে জয়ী তৃণমূল সাংসদদের যে তালিকা, তাতে নুসরতের নামে ক্লিক করলেই দেখা যাচ্ছে যাবতীয় তথ্য। সেখানে স্পষ্ট লেখা নুসরত বিবাহিত। তিনি বিয়ে করেছেন ২০১৯ সালের ১৯ জুন। স্বামীর নাম নিখিল জৈন।

নুসরতের দেওয়া সেই তথ্যকে হাতিয়ার করে নুসরতের বিরুদ্ধে অসত্য ভাষণ দেওয়ার অভিযোগ এনে শপথগ্রহণের মুহূর্তের ভিডিয়ো প্রকাশ করে আক্রমণ করেন বিজেপি নেতা মালব্য। নুসরতের ঘটনা নিয়ে যখন জলঘোলা হতে শুরু করেছে, একের পর এক আক্রমণ শানাচ্ছে বিজেপি, ঠিক তখনই তৃণমূলের তরফে জানিয়ে দেওয়া হল এটা সাংসদের ব্যক্তিগত বিষয়। এটার সঙ্গে রাজনীতি বা দলের কোনও সম্পর্ক নেই। রাজনৈতিক মহলের ধারণা, নুসরত-কাণ্ডে দূরত্ব বাড়াতে চাইছে দল।

Advertisement

অমিতের টুইটের পাল্টা টুইট করে তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, ‘প্রসঙ্গ নুসরত জাহান: বিষয়টি ব্যক্তিগত। এর সঙ্গে রাজনীতি বা দলের কোনও সম্পর্ক নেই। বিজেপি-র মালব্যের এ সব নিয়ে টুইট না করাই ভাল। তর্ক শুরু হলে বিজেপি-র পক্ষে ভাল হবে না। তৃণমূল মানুষের কাজ নিয়ে ব্যস্ত।’

Advertisement