Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Durga Puja 2021: জনতরঙ্গ ঠেকাতে শেষ আশা বৃষ্টি, পুজোয় মাস্কহীন জনতাকে গৃহবন্দি করতে ভরসা বরুণদেব

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৩ অক্টোবর ২০২১ ০৬:২৯
 দক্ষিণ কলকাতার মুদিয়ালি।

দক্ষিণ কলকাতার মুদিয়ালি।
ছবি: রণজিৎ নন্দী।

এ বারের মতো বর্ষার অবসান। তবে বৃষ্টি ছুটি নিচ্ছে না পুজোতেও। আজ, বুধবার মহাষ্টমী থেকেই কলকাতা-সহ গাঙ্গেয় দক্ষিণবঙ্গের বেশির ভাগ জেলায় বৃষ্টি শুরু হতে পারে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। কাল, বৃহস্পতিবার নবমী এবং শুক্রবার, দশমীতে বৃষ্টির মাত্রা বাড়তে পারে। বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নতুন একটি নিম্নচাপের প্রভাবেই এই বৃষ্টি।

বচ্ছরকার মহোৎসবে সাধারণ ভাবে বৃষ্টির ঝঞ্ঝাট চায় না কেউই। কিন্তু এ বারের অতিমারি আবহে কলকাতা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলার পুজোয় উপচে পড়া ভিড় দেখে অনেকেরই বক্তব্য, এই বৃষ্টি হয়তো শাপে বর হবে। কারণ, বৃষ্টির দাপটে কিছু লোক কম বেরোবেন। মঙ্গলবার, মহাসপ্তমীতে আলিপুর আবহাওয়া দফতর গোটা উত্তরবঙ্গ এবং প্রায় সারা দক্ষিণবঙ্গ থেকে বর্ষা বিদায়ের কথা জানালেও আসন্ন বর্ষণকে তাই অবাঞ্ছিত বলতে চাইছেন না অনেকে। সব মিলিয়ে এই বৃষ্টি নিয়ে চলছে আশা ও আশঙ্কার দোলাচল। কারও কারও প্রশ্ন, বর্ষা বিদায়ের পরেও বৃষ্টি হবে কী ভাবে? হাওয়া অফিসের বক্তব্য, এটা বর্ষার বৃষ্টি নয়। সাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপের জেরে এই বৃষ্টি। বর্ষার সঙ্গে এর সম্পর্ক নেই। অতীতেও বর্ষা বিদায়ের পরে আচমকা কোনও নিম্নচাপের হানায় জোরালো বৃষ্টি হতে দেখা গিয়েছে।

হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস, আজ কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলির দু’-একটি জায়গায় বৃষ্টি হতে পারে। তবে নবমী-দশমীতে ওই সব জেলার বহু জায়গাতেই বৃষ্টি হবে। বৃষ্টি অষ্টমীর ভিড় কতটা রুখতে পারবে, তা নিয়ে অবশ্য সংশয়ও আছে। কেউ কেউ বলছেন, কোভিড যে-ভিড়কে ঘরবন্দি রাখতে পারল না, নিম্নচাপের বৃষ্টি কি তাকে আটকাতে পারবে?

Advertisement

শিবমন্দিরে উপচে পড়ছে ভিড়। দীপঙ্কর মজুমদার

শিবমন্দিরে উপচে পড়ছে ভিড়। দীপঙ্কর মজুমদার


শুরু থেকেই এ বার বর্ষার কৃপাদৃষ্টি পেয়েছে গাঙ্গেয় বঙ্গ। তুলনায় বঞ্চিত উত্তরবঙ্গ। গাঙ্গেয় বঙ্গে ৩১ শতাংশ বেশি বৃষ্টি হয়েছে, জোরালো বৃষ্টির ধাক্কায় বানভাসি হয়েছে বহু জেলা। মৌসম ভবন জানায়, এ বার দেশ থেকে বর্ষা বিদায়ের পালা শুরু হয়েছে অনেক দেরিতে। ১৭ সেপ্টেম্বরের জায়গায় ৬ অক্টোবর উত্তর-পশ্চিম ভারত থেকে বর্ষা বিদায় নিতে শুরু করে। একে বর্ষার স্বাভাবিক চরিত্র বলা যায় কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন আছে। আবহবিজ্ঞানীদের মতে, নির্ঘণ্ট অনুযায়ী দেশ থেকে বর্ষার বিদায় নিতে প্রায় এক মাস লাগে। সেখানে জোরালো উত্তুরে বাতাসের ধাক্কায় এ বার মাত্র এক সপ্তাহেই উত্তর-পশ্চিম থেকে পূর্ব ভারত পর্যন্ত পাততাড়ি গুটিয়েছে বর্ষা। দ্রুত ছন্দে এই বিদায়ও স্বাভাবিক নয় বলে অনেকের মত।

ক’দিন চলবে বৃষ্টি? আবহাওয়া দফতরের খবর, আপাতত দশমী পর্যন্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি বিচার করে পূর্বাভাসের সময়সীমা বাড়ানো হতে পারে।

আরও পড়ুন

Advertisement