Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ভোট প্রচার: ফের মত চাইল কমিশন

অতিমারির সময়ে জনস্থানে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক, দূরত্ববিধি বজায় রাখা প্রয়োজন। বিধি অনুসারে, বড় জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৬ অগস্ট ২০২০ ০২:২৩
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

কোভিড-১৯ অতিমারির সময়ে জনসভা, ভোট প্রচার কী ভাবে হবে, তা নিয়ে স্বীকৃত জাতীয় এবং রাজ্যের রাজনৈতিক দলের থেকে ফের মতামত, পরামর্শ, ভাবনা জানতে চাইল নির্বাচন কমিশন। এই মর্মে মঙ্গলবার সব স্বীকৃত দলকে চিঠি পাঠিয়েছে তারা। ১৭ জুলাইও চিঠি দিয়েছিল কমিশন। কিন্তু তাতে সাড়া দেয়নি অনেক রাজনৈতিক দলই।

অতিমারির সময়ে জনস্থানে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক, দূরত্ববিধি বজায় রাখা প্রয়োজন। বিধি অনুসারে, বড় জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এমনকি, জমায়েতের জায়গায় স্যানিটাইজার, থার্মাল গান ব্যবহারের নিয়মও রয়েছে। সেই পরিস্থিতির মধ্যে কী ভাবে জনসভা, ভোট প্রচার হবে, তা জানতে চেয়ে গত ১৭ জুলাই স্বীকৃত রাজনৈতিক দলকে চিঠি দিয়েছিল কমিশন। বলা হয়েছিল, ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে মত জানাতে হবে রাজনৈতিক দলকে। অতিমারির সময়ে ভোট হলে তার প্রচার ভঙ্গিমা কী হবে, তা নিয়ে এখনও কমিশনের কাছে মত জানায়নি অনেক রাজনৈতিক দলই। সে কারণে আর এক দফা সময় বাড়াল দেশের ভোট পরিচালক সংস্থা। আগামী ১১ অগস্টের মধ্যে এই মত জানানোর জন্য রাজনৈতিক দলকে নির্দেশ দিয়েছে তারা।

চলতি বছরে বিভিন্ন রাজ্যের উপ-নির্বাচন এবং বিহার বিধানসভার নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। কমিশন সূত্রের খবর, একটি লোকসভা আসন এবং ৫৬টি বিধানসভার আসনে উপ-নির্বাচন হওয়ার কথা। আর সেই নির্বাচনে রাজনৈতিক দল বা প্রার্থীর ভোট প্রচার নিয়ে নতুন নির্দেশিকা তৈরি করতে পারে কমিশন। সে কারণে রাজনৈতিক দলের থেকে মতামত, পরামর্শ চাওয়া হয়েছে বলে মত তাদের। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এ বিষয়ে মতামত না দিতে পারার ক্ষেত্রে অনেক রাজনৈতিক দলের পরিকল্পনার অভাব রয়েছে কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায় বলে মত রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনেকের। যদিও আর একটি অংশের মতে, এই ধরনের পরিস্থিতির মুখোমুখি আগে কখনও হতে হয়নি রাজনৈতিক দলকে। এমনকি, সমাজমাধ্যমে প্রচারের জন্য কয়েকটি রাজনৈতিক দল ছাড়া বাকিরা তেমন ভাবে সংগঠিত নয়। তাই মতামত-পরামর্শ দিতে সময় লাগছে তাদের।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement