Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

৩০ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

উৎসবের মরসুমে পদ্মা উজিয়ে ইলিশ এল গঙ্গায়

নিজস্ব সংবাদদাতা
ফরাক্কা ২৯ অক্টোবর ২০২০ ০৫:১৪
পদ্মায় ইলিশ ধরা। ফাইল চিত্র

পদ্মায় ইলিশ ধরা। ফাইল চিত্র

উৎসবের মরসুমে বাড়তি পাওনা গঙ্গার ইলিশ। সোমবার রাত থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ উঠছে ফরাক্কা ছোঁয়া গঙ্গায়। আর তার দৌলতেই ৩০০ টাকা কিলো দরে বিকোচ্ছে ছোট ইলিশ। একটু বড় হলেই দাম মেরেকেটে ৭০০ থেকে হাজার টাকা কিলো। তবে আকাশ ছোঁয়া নয়। দেড় থেকে দু’টনের উপর ইলিশ ধরা পড়ছে সোমবার রাত থেকে। ধুলিয়ান থেকে ফরাক্কা পর্যন্ত গঙ্গায় মৎতস্যজীবীদের জালে এখন ইলিশের রমরমা।

বাংলাদেশে গত ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর, ২২ দিন ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ। এই সময় সমুদ্রের নোনা জলছেড়ে ইলিশ পদ্মা, গঙ্গার মিষ্টি জলে ডিম ছাড়তে আসে। তাই চোরা পথে বেশ কিছু বাংলাদেশের ধীবরও এখন এ দেশের পদ্মায় আনাগোনা শুরু করেছে। ইতিমধ্যেই বিএসএফের হাতে ধরাও পড়েছে অন্তত দশ জন। মুর্শিদাবাদের গঙ্গা, পদ্মায় যে অঢেল ইলিশ মিলছে তার খোঁজে বাংলাদেশের মৎস্যজীবীরাও ভারতে ইলিশ ধরতে সীমানা ভাঙছে বলে বিএসএফের দাবি। বিএসএফের মতে, বাংলাদেশে মাছ ধরতে না পেরে পেটের দায়ে তারা ভারতীয় সীমান্তে ইলিশ ধরতে ঢুকে পড়েছিল। তাই ধরা পড়ার পরে মানবিক কারণে তাদের বাংলাদেশের সীমান্ত রক্ষীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

মুর্শিদাবাদের সহকারি মৎস্য আধিকারিক অমলেন্দু বর্মন অবশ্য দাবি করেছেন, “সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা রয়েছে এ রাজ্যেও। নিষেধাজ্ঞা বাড়ানো হয়েছে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত। পদ্মা বা গঙ্গায় বাংলাদেশের মত পশ্চিমবঙ্গেও ইলিশের প্রজনন মরসুমে ইলিশ ধরা যায় না।”

Advertisement

তবে, কঠোর নজরদারিতে এই নিষেধাজ্ঞা মানতে মৎস্যজীবীদের বাধ্য করতে পেরেছে বাংলাদেশ। কিন্তু এ রাজ্যে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও সেভাবে তা মেনে চলা হয় না বলেই স্থানীয় মৎস্যজীবীদের দাবি। তার ফলেই ধুলিয়ান থেকে ফরাক্কা পর্যন্ত গঙ্গায় ইলিশের খোঁজে মৎস্যজীবীদের রমরমা। এই সময়ে বাংলাদেশের পদ্মা বেয়ে ইলিশের ঝাঁক গঙ্গায় চলে আসায় ফরাক্কা বাঁধের উজানে ১০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে প্রতি বছরই বাণ ডাকে ইলিশের। তবে এ বারে তা কিছুটা দেরিতে এল ইলিশ। ফরাক্কার পাইকারি মাছ বিক্রেতা রঞ্জিত সরকার জানান, ফরাক্কার বাজারে মঙ্গলবার থেকে ইলিশের আমদানি প্রায় দেড় থেকে দু’টন। বড় ইলিশের দাম ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা কমেছে। ২৫০ থেকে ১ কিলো সব রকমের মাছই রয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই তাই ইলিশ কেনার ধুম পড়েছে। অঢেল আমদানির খবর পেয়ে কিছুটা সস্তায় ইলিশ পেতে সকাল, বিকেল নদীর পাড়ে ভিড় জমাচ্ছেন স্থানীয় গ্রামবাসীরা। রাজ্য মৎস্য দফতরের ব্যাখ্যা, পদ্মা নদী নিমতিতার আগে মিশেছে গঙ্গায়। পদ্মার বাঁকা পথেই বাংলাদেশ থেকে ইলিশের ঝাঁক ঢুকছে ফরাক্কায়।

আরও পড়ুন

Advertisement