Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Anis Khan Death Mystery: আমি ও পার বাংলার লোক, ছোট ভাই ভেবে ক্ষমা করুন! আনিসের দাদাকে ফোনে বললেন সেই ব্যক্তি

একই সঙ্গে সিবিআই তদন্তের দাবি থেকে পিছু না হটলে পুরো পরিবারকে ‘দুনিয়া থেকে সরিয়ে’ দেওয়ার হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

সারমিন বেগম
আমতা ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ১৪:৪২
Save
Something isn't right! Please refresh.
আনিস মৃত্যুর ঘটনায় হুমকি-ফোন রহস্যে নয়া মোড়।

আনিস মৃত্যুর ঘটনায় হুমকি-ফোন রহস্যে নয়া মোড়।
গ্রাফিক: সনৎ সিংহ

Popup Close

আনিস মৃত্যুর ঘটনায় হুমকি-ফোন রহস্যে নয়া মোড়। এ বার ফোন করে ক্ষমা চাইলেন মৃত ছাত্রনেতা আনিস খানের বাবা-দাদাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া সেই ব্যক্তি। আনিসের দাদা সাবির খানকে ফোন করে ক্ষমা চাওয়ার এই অডিয়ো ক্লিপটি ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে। এই অডিয়ো ক্লিপে অপর দিক থেকে বলতে শোনা যায়, ‘‘দাদা আপনাকে ২৩ ফেব্রুয়ারি রাতে যে ফোনটি করা হয়েছিল, সেটা আমিই করেছিলাম। আমি বাংলাদেশের লোক। আমি মালয়েশিয়াতে থাকি। আমি মজা করতে গিয়ে ভুল করে ফোনটা করে ফেলেছিলাম।’’ এর পর নিজের কর্মকাণ্ডের জন্য ক্ষমাও চান ওই অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি। এমনকি তাঁকে নিজের ‘ছোট ভাই’ ভেবে ক্ষমাও করে দিতে বলেন। পাশাপাশি আনিসের মৃত্যু নিয়ে সমবেদনা প্রকাশ করে ওই ব্যক্তি অনুরোধ করেন, যাতে তাঁর বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ না করা হয়। এই অডিয়ো ক্লিপের সত্যতা অবশ্য যাচাই করেনি আনন্দবাজার অনলাইন।

তবে সাবির ওই ব্যক্তিকে স্পষ্ট বার্তা দেন যে, তাঁর আর কিছু করার নেই। তিনি পুলিশকে ইতিমধ্যেই নম্বরটি দিয়ে দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২৩ ফেব্রুয়ারির রাতে খুনের হুমকি দিয়ে ফোন করার অভিযোগ আনেন মৃত আনিসের দাদা সাবির। একই সঙ্গে সিবিআই তদন্তের দাবি থেকে পিছু না হটলে পুরো পরিবারকে ‘দুনিয়া থেকে সরিয়ে’ দেওয়ার হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। রাত ১ টা ৪ মিনিটে একটি অজ্ঞাত পরিচয় নম্বর থেকে এই হুমকি ফোনটি আসে বলে জানান আনিসের দাদা সাবির খান। তার মধ্যেই আবার এই হুমকি ফোন তাঁদের পরিবারে যথেষ্ট আতঙ্কের সৃষ্টি করে বলেও তিনি জানান। এই অডিও ক্লিপটি নেটমাধ্যমে ভাইরাল হয়। একই সঙ্গে এই ফোনটি ৫ দিয়ে শুরু তিন সংখ্যার একটি নম্বর থেকে এসেছিল বলেও সাবির জানান।

Advertisement

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পুরো বিষয়টি জানিয়ে সাবির বলেন, যখন এই ফোনটি আসে তখন তিনি পুলিশ স্টেশনেই বসে ছিলেন। ভাইয়ের মৃত্যু নিয়ে পুলিশের সঙ্গে কথা বলছিলেন। ফোন আসার সঙ্গে সঙ্গেই তিনি পুলিশকে বিষয়টি জানান। নম্বরটি সত্যিই কোনও বাংলাদেশের ব্যক্তির, না এর পিছনে অন্য কোনও রহস্য আছে, পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে বলেও জানান সাবির। হুমকি ফোন আসার ঘটনায় শনিবারই আমতা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন আনিসের দাদা সাবির।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement